সর্বশেষ সংবাদ ট্রাকের ধাক্কায় অ্যাম্বুলেন্সের ৬ যাত্রী নিহত নাচোলের বীরমুক্তিযোদ্ধা ছাহেন মোল্লাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন চাঁপাইনবাবগঞ্জে মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃৃতিক কেন্দ্রের উদ্বোধন চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনে উপ-নির্বাচনঃপ্রচার-প্রচারনা শুরু প্রার্থীদের চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১০ দফা দাবিতে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ চাঁপাইনবাবগঞ্জের দুটি সংসদীয় আসনে উপ-নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দ গাইবান্ধায় বাস-ট্রাক-মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ, নিহত ৩ আফগানিস্তানে সাবেক নারী এমপিকে গুলি করে হত্যা নাচোলে পানের দোকান চালাচ্ছে ছাত্রী রাফিয়া সংসদ উপনির্বাচনঃ৷ একজনের মনোনয়ন প্রত্যাহার

কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক পাগলা মসজিদের দানবাক্সে মিলেছে রেকর্ড টাকা ও গয়না

নিজস্ব প্রতিনিধি, কিশোরগঞ্জ
মাত্র ৯৮ দিন পর কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক পাগলা মসজিদের দান বাক্সে মিলেছে সর্বোচ্চ চার কোটি ১৮ লাখ ১৬ হাজার ৭৪৪ টাকা। এ ছাড়া বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা ও স্বর্ণালঙ্কার পাওয়া গেছে। শনিবার (৭ জানুয়ারি) সারাদিন গণনার পর সন্ধ্যায় দানের টাকার এই হিসাব পাওয়া যায় বলে জানা গেছে।
এর আগে সর্বশেষ গত বছরের ১ অক্টোবর পাগলা মসজিদের দান বাক্স খোলার সময় তিন কোটি ৮৯ লাখ ৭০ হাজার ৮৮২ টাকা পাওয়া গিয়েছিল।
প্রতি তিন মাস পর পর দানবাক্স খোলা হলেও এবার এবার ৯৮ দিন পর দান বাক্স খোলা হয়। দান বাক্সগুলো থেকে রেকর্ড ২০ বস্তা টাকা পাওয়া যায়।
জানা গেছে, সকাল ৯টায় জেলা প্রশাসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণের উপস্থিতিতে পাগলা মসজিদের ৮টি দান বাক্স খোলা হয়। দান বাক্সের টাকাগুলো ২০টি বস্তায় ভরে সারাদিন গণনা চলে। রূপালী ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারী, মসজিদ মাদরাসার কর্মকর্তা-কর্মচারী ও মসজিদ মাদরাসার ছাত্ররা গণনায় অংশ নেন।
কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট এটিএম ফরহাদ চৌধুরীসহ প্রশাসন ও মসজিদ কমিটির কর্মকর্তারা টাকা গণনার কাজ তদারকি করেন। পাগলা মসজিদ কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবুল কালামসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা গণনার কাজ পরিদর্শন করেন।
পাগলা মসজিদ কমিটির প্রশাসনিক কর্মকর্তা বীরমুক্তিযোদ্ধা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. শওকত উদ্দীন ভূঞা, পাগলা মসজিদের দান সিন্দুক খুলে পাওয়া টাকাগুলো রূপালী ব্যাংকে জমা করা হয়েছে।
তিনি আরো জানান, পাগলা মসজিদের বিপুল পরিমাণের টাকা পাগলা মসজিদ এবং এই মসজিদ কমপ্লেক্সের অন্তর্ভুক্ত মাদ্রাসা, এতিমখানা ও গোরস্থানের ব্যায় নির্বাহ করাসহ জেলার বিভিন্ন মসজিদ, মাদ্রাসা, এতিমখানায় সহায়তার পাশাপাশি গরিব ছাত্র ও দুঃস্থদের মাঝে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়। এ ছাড়া বিভিন্ন সামাজিক কাজেও টাকা প্রদান করা হয়ে আসছে বলে তিনি জানান।
জানা গেছে, জেলা শহরের পশ্চিম প্রান্তে নরসুন্দা নদীর তীরে হারুয়া এলাকায় অবস্থিত পাগলা মসজিদাট প্রায় চার একর জায়গা জুড়ে অবস্থিত। সুউচ্চ মিনার ও তিন গম্বুজ বিশিষ্ট তিনতলা বিশাল পাগলা মসজিদ কিশোরগঞ্জে অন্যতম ঐতিহাসিক স্থাপনা। প্রায় পাঁচশত বছর পূর্বে বাংলার বারো ভুঁইয়া অন্যতম ঈশা খাঁর আমলে দেওয়ান জিলকদর খান ওরফে জিল কদর পাগলা নামক একজন ব্যক্তি নদীর তীরে বসে নামাজ পড়তেন। পরবর্তীতে ওই স্থানটিতে মসজিদটি নির্মিত হয়। জিল কদর পাগলার নামানুসারেই মসজিদটি ‘পাগলা মসজিদ’ হিসেবে পরিচিতি পায়।
এ মসজিদে মানত করলে মানুষের মনোবাসনা পূর্ণ হয় বলে জনশ্রæতি রয়েছে। তাই সকল ধর্মের মানুষ সেখানে দান করে থাকেন বলে জানা গেছে।

সাংবাদিক কল্যাণ তহবিলের প্রীতি ক্রিকেট ও ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত

নাচোল প্রতিনিধি

চাঁপাইনবাবগঞ্জের (নাচোল, গোমস্তাপুর ও ভোলাহাট) তিন উপজেলা মিলে একটি সংগঠন, সাংবাদিক কল্যাণ তহবিলের সদস্যবৃন্দের প্রীতি ক্রিকেট ও ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ শনিবার দুপুর ১২টায়
নাচোল রেলস্টেশন মাঠে কল্যাণ তহবিলের সদস্যদের মধ্যে লাল ও সবুজ দলের মধ্যে প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচ বিকেলে ফুটবল খেলা অনুষ্ঠিত হয়।

খেলায় সভাপতিত্ব করেন
কল্যাণ তহবিলের সভাপতি আসাদুল্লাহ আহমদ।
প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত পৌর মেয়র আব্দুর রশিদ খান ঝালু। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নাচোল উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মশিউর রহমান বাবু, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জান্নাতুন নাঈম মুন্নি, কল্যাণ তহবিলের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম বাবু সহ অন্যন্যোরা।

ক্রিকেট ম্যাচে লাল দলকে হারিয়ে সবুজ দল চ্যাম্পিয়ন হয়। লাল দলের পক্ষে অধিনায়ক শাকিল রেজা সর্বোচ্চ ১১৪রান করেন। এর আগে ভোলাহাট ও গোমস্তাপুরে জয়লাভ করে ৩ম্যাচের সিরিজে ২-০ এগিয়ে টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন হয় লাল দল। টুর্নামেন্ট সেরা নির্বাচিত হন লাল দলের অধিনায়ক শাকিল রেজা

এদিকে বিকেলের প্রীতি ফুটবল খেলায় অধিনায়ক শাকিল ও সহ-অধিনায়ক মোহাম্মদ আলীর নৈপুন্যে সবুজ দলকে ২-০ গোলে হারিয়ে লাল দল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

খেলা শেষে উভয় দলের মধ্যে পুরুষ্কার তুলে দেন অতিথিবৃন্দরা।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভারতীয় মোবাইল ফোন জব্দ ঃ আটক ১

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার সোনামসজিদ স্থল বন্দর সীমান্তে কোটি টাকার ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার ১৩২টি মোবাইল ফোন, ১টি ভারতীয় ট্রাকসহ ১ জন আসামীকে আটক করেছে বিজিবি।

সোনামসজিদ বিওপির ক্যাম্প কমান্ডার জানান, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে শনিবার (৭ জানুয়ারি) বিকাল ৪ টার দিকে বিজিবির অধিনায়ক লেঃ কর্নেল মোঃ আমীর হোসেন মোল্লা (পিবিজিএম, পিএসসি) এর নেতেৃত্বে ১৩ জন বিজিবি সদস্য নিয়ে অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানে সোনামসজিদ কাস্টমস কর্মকর্তাসহ ৫ জন সদস্যের সমন্বয়ে একটি বিশেষ টহল দল অত্র ব্যাটালিয়নের অধিনস্থ সোনামসজিদ বিওপির দায়িত্বপূর্ণ এলাকার সীমান্ত পিলার ১৮৬ মেইন হতে ৫০ গজ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে সোনামসজিদ স্থলবন্দর এলাকায় এই অভিযান পরিচালনা করেন।

 

উক্ত অভিযানে সন্দেহজনকভাবে ১টি ভারতীয় পন্যবাহী ট্রাক তল্লাশী করে চালকের বসার উপরের বক্স হতে ১৩২টি ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার মোবাইল ফোন এবং ১টি ট্রাকসহ (ট্রাক নম্বর WB- 59, 8130) ট্রাক ড্রাইভারকে আটক করেন। আটককৃত ট্রাক ড্রাইভার ভারতীয় নাগরিক। সে ভারতের মালদা জেলার ইংলিশ বাজার থানার নরেন্দ্রপুর গ্রামের মোঃ আজিজুল আলীর ছেলে সোলেমান আলী (২৮)।

 

এ ব্যাপারে রহনপুর ব্যাটালিয়ন (৫৯ বিজিবি) এর অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ আমীর হোসেন মোল্লা (পিবিজিএম, পিএসসি) বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, বর্তমানে করোনা পরিস্থিতিতে ভারতীয় চোরাকারবারীরা যাতে সীমান্ত অতিক্রম করে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করতে না পারে সেই লক্ষে সীমান্তে টহল ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে এবং ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তর হতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।

 

আটককৃত মোবাইল ফোন ও ট্রাকসহ ধৃত আসামীর ব্যাপারে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহন প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান।