সর্বশেষ সংবাদ শিবগঞ্জে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা পেলেন অসহায়-দুস্থ রোগীরা সোনামসজিদে বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ ক্যাপ্টেন জাহাঙ্গীরের সমাধিতে শ্রদ্ধা চাঁপাইনবাবগঞ্জে আমার ৯৩, এর ৮ ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী  পালিত  গোমস্তাপুরে বেগম রোকেয়া দিবস উদযাপন  চাঁপাইনবাবগঞ্জে ব্যারিষ্টার সুমন ফুটবল একাডেমির সাথে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভুটভুটির ধাক্কায় নিহত ১ঃ আহত ১ চাঁপাইনবাবগঞ্জে জয়ীতাদের সংবর্ধনা চাঁপাইনবাবগঞ্জে দূর্ণীতিবিরোধী দিবস পালিত নাচোলে বেগম রোকেয়া দিবসে জয়িতাদের সংবর্ধনা উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়তে চাই: প্রধানমন্ত্রী

গোমস্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ছাত্রলীগ নেতার দাফন সম্পন্ন

গোমস্তাপুর প্রতিনিধিঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে সিরাজগঞ্জের তারাশে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ছাত্রলীগ নেতা শামীম হোসেনের( ১৮) দাফন মঙ্গলবার সকালে সম্পন্ন হয়েছে। সে রাজশাহী কলেজের এইচএসসি ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী ও রহনপুর পৌর ছাত্রলীগের সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক ছিল । মঙ্গলবার সকালে রহনপুর পৌর এলাকার খয়রাবাদে তার নামাজে জানাজা শেষে তাকে স্থানীয় গোরস্থানে দাফন করা হয়। প্রসঙ্গতঃ সোমবার সিরাজগঞ্জের তারাশে বন্ধুর বাড়ি বেড়াতে গিয়ে মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় তার বন্ধুসহ সে মারা যায়।

শিবগঞ্জে ৩টি প্রাথমিকের নতুন ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন

 

শিবগঞ্জ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি:
শিবগঞ্জ উপজেলার উজিরপুর, রাধাকান্তপুর নামোটোলা ও বাবুপুর বেলায়েত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবনের নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে ২ কোটি ৬৮ লাখ ৩১ হাজার টাকা ব্যয়ে এই নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল। এ সময় তিনি বলেন, বর্তমান সরকার প্রাথমিক শিক্ষার উন্নয়নে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে কাজ করে চলেছেন। এ উপলক্ষে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উজিরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি সফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া, এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী হারুন অর রশিদ, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা পরিমল কুমার, উজিরপুর ইউপি সদস্য সাদিকুল ইসলাম ও প্রধান শিক্ষক ইসরাইল হোসেনসহ অন্যরা।

বিজিবি’র ইয়াবা ও ফেন্সিডিল উদ্ধার

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ পৃথক অভিযানে ৫৩ বিজিবি সদস্যরা মহানন্দা ব্রীজ চেকপোষ্ট হতে মালিকবিহীন ৪০ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল এবং মনাকষা সীমান্তে ৯৯০ পিস ভারতীয় ইয়াবা উদ্ধার করেছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জস্থ ৫৩ বিজিবি ব্যাটালিয়ন এর অধিনায়ক লেঃ কর্নেল মোঃ নাহিদ হোসেন বিষয়ের সত্যতা নিশ্চিত করে এক প্রেসনোটে জানান, নিজস্ব তথ্যের ভিত্তিতে ২১ নভেম্বর দুপুরে ৫৩ বিজিবির মহানন্দা ব্রীজ চেকপোষ্ট এর একটি টহল দল মহানন্দা ব্রীজ চেকপোষ্ট এলাকা হতে ৪০ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল আটক করে। এছাড়া, ২১ নভেম্বর রাত সাড়ে ৯টার দিকে ৫৩ বিজিবি এর অধীনস্থ মনাকষা বিওপির একটি টহল দল দায়িত্বপূর্ণ সীমান্ত পিলার ১৭২ হতে আনুমানিক ৫ কিঃ মিঃ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ থানাধীন মনাকষা ইউনিয়নের মনোহরপুর গ্রামে একটি মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে ৯৯০ পিস ভারতীয় ইয়াবা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। এঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। সীমান্ত এলাকায় অন্যান্য মালামালসহ মাদক চোরাচালান দমনে ভারতীয় চোরাকারবারীরা যাতে সীমান্ত অতিক্রম করে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করতে না পারে সেই লক্ষে সীমান্তে টহল তৎপরতা জোরদার করা হয়েছে বলেও জানান ৫৩ বিজিবি অধিনায়ক।

র‌্যাবের হাতে বিপুল পরিমান চোলাইমদসহ ২ ব্যবসায়ী আটক

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ ১৩৫০ লিটার চোলাইমদসহ ২ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব ৫ এর চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের সদস্যরা। চোলাইমদ তৈরী, সংরক্ষণ ও বিক্রয় করার অপরাধে আটক ২ ব্যবসায়ী হচ্ছে, জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার সরকারপাড়ার মোঃ আবুল হোসেনের ছেলে মোঃ সহিদুল ইসলাম (৩৬) ও একই উপজেলার আইন্দাপুকুর নওদাপাড়ার রফিকুল ইসলামের স্ত্রী মোছাঃ অজনুর বেগম (৩৫)। অভিযানে নেতৃত্ব দেন কোম্পানী অধিনায়ক লেঃ কমান্ডার রুহ-ফি-তাহমিন তৌকির এবং কোম্পানী উপ অধিনায়ক সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ আমিনুল ইসলাম। র‌্যাবের প্রেসনোটে জানানো হয়, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের একটি অপারেশন দল ২২ নভেম্বর সকাল সাড়ে ৯টার দিকে জেলার শিবগঞ্জ থানার আইন্দাপুকুর নওদা পাড়ার মোঃ রফিকুল ইসলামমের বসত বাড়ীতে মাদক বিরোধী অভিযান চালায়। এসময় ১ হাজার ৩৫০ লিটার চোলাইমদ, মদ রাখা প্লাস্টিকের ড্রাম-৫টি, স্টিলের হাড়ি-৩টিসহ ব্যবসায়ী মোঃ সহিদুল ইসলাম ও মোছাঃ অজনুর বেগম কে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় জেলার শিবগঞ্জ থানায় মামলা করা হয়েছে।

 

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ইমামগণকে নিয়ে জেলা নাটাবের মতবিনিময়

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ জেলার বিভিন্ন মসজিদের ইমামগণকে নিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জে মতবিনিময় সভা করেছে বাংলাদেশ জাতীয় যক্ষ্মা নিরোধ সমিতি (নাটাব) চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখা। “যক্ষ্মা রোগ প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে” আজ মঙ্গলবার দুপুরে শহরের কাঁঠাল বাগিচাস্থ শিশু শিক্ষা নিকতন মিলনায়তনে এই মতবিনিময় সভা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন নাটাবের চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মনিম উদ দৌলা চৌধুরী। প্রধান অতিথি ছিলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য ফেরদৌসী ইসলাম জেসী। প্রধান আলোচক ছিলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ বক্ষব্যাধি ক্লিনিকের জুনিয়র কনসালটেন্ট ডাঃ মোঃ তৌহিদুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ কৃষি গবেষনা ইন্সটিটিউটের পরিচালক (অবঃ) ড. মোঃ সাইফুল ইসলাম, ব্র্যাকের সহকারী প্রোগ্রামার আবুল কালাম আজাদ, নাটাবের রাজশাহী জোনের প্রতিনিধি রুহুল আমিন। জেলা নাটাবের সদস্য ী শিশু শিক্ষা নিকতনের অধ্যক্ষ মো. আনিসুর রহমানের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায়-৩০ জন ইমাম অংশগ্রহণ করে। সভার শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করা হয় এবং জেলা নাটাবের সাধারন সম্পাদক ইকবাল মনোয়ার খান চান্নার সুস্বাস্থ্য কামনা করে দোয়া করা হয়। বক্তারা, যক্ষ্মা রোগ প্রতিরোধে জেলার মসজিদের ইমামগণের প্রতি বিশেষ ভূমিকার কথা উল্লেখ করে সমাজের সকল শ্রেণী-পেশার মানুষকে এগিয়ে আসার আহবান জানান। সামাজিকভাবে সচেতনতার মাধ্যমে যক্ষ্মা রোগ প্রতিরোধ করা সম্ভব বলেও মতামত ব্যক্ত করেন আলোচকগণ ও নাটাব নেতৃবৃন্দ।
আলোচকগণ ও বক্তারা বলেন, যক্ষ্মা রোগ শুধু মানুষের ফুসফুসেই হয়না, হাড়েও হয়। হাড়ে যক্ষ্মা রোগ প্রায় ৪০ থেকে ৪২ শতাংশ হয়। ৫০% লোকের মেরুদন্ডে এই রোগ হয়। ফলে আক্রান্ত রোগী সামনে বা পেছনের দিকে বাঁকিয়ে যায়। আক্রান্ত হলে হাঁটুতে এবং পায়ের গোড়ালীতে সমস্যা দেখা দিতে পারে। এসব সমস্যা দেখা দিলে চিকিৎসা নিলে সহজেই প্রতিরোধ করা সম্ভব। যক্ষ্মা রোগীকে সঠিকভাবে ঔষধ সেবনের মাধ্যমে এই রোগ প্রতিরোধ করা যায়। এতে ডটস উল্লেখযোগ্যভাবে ভূমিকার রাখে। বক্তারা আরও বলেন, একটানা ৩ সপ্তাহের বেশী কাঁশি হলে চিকিৎসকের কাছে পরামর্শ নিতে হবে। হাঁচি ও কাঁশির মাধ্যমে যক্ষ্মা রোগ সংক্রমন হয় এবং রোগ প্রতিরোধ শক্তি কমে যাওয়া মানুষদের আক্রান্ত করে ফেলে। সাধারণতঃ রোগ প্রতিরোধ কমে মানুষরা এই রোগে বেশী আক্রান্ত হয়। যক্ষ্মা রোগ দেখা দিলে নিয়মিত, পরিমিত ও ক্রমাগত এবং সঠিকভাবে ঔষধ সেবন করাতে হবে। সমাজ থেকে এই রোগ প্রতিরোধে সকল শ্রেণী-পেশার মানুষদের এগিয়ে আসতে হবে। মানুষের সচেতনতায় পারে কঠিন রোগ যক্ষ্মা থেকে সমাজ তথা দেশকে রক্ষা করতে। মানুষের নখ ও চুল ছাড়া সব স্থানেই যক্ষ্মা রোগ হতে পারে। তাই সমস্যা হলে তাড়াতাড়ি চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।
বর্তমানে চাঁপাইনবাবগঞ্জ টিবি ক্লিনিকে আধুনিক মেশিনে মাত্র ১ ঘন্টায় যক্ষ্মা রোগ পরীক্ষা করা যায় এবং ফলাফল দেয়া হয়। সন্দেহ হলেই টিবি ক্লিনিকে পাঠিয়ে পরীক্ষা করে নেয়ার অনুরোধ জানান বক্তারা। বক্তারা আরও বলেন, ডটস্ এর মাধ্যমে সমাজের প্রতিনিধির তত্বাবধানে যক্ষ্মা রোগীকে সঠিকভাবে ঔষধ খাওয়ানো হচ্ছে। দীর্ঘদিন চিকিৎসা সেবা নিয়ে ঔষধ সেবন করলে যক্ষ্মা ভালো হয়। নিয়মিত ও নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত চিকিৎসা না নিলে পরিনতি ভয়াবহ যা এমডিআর রোগীর সংখ্যা বাড়বে বলেও বক্তারা বলেন। নাটাব যক্ষ্মা রোগী শনাক্ত ও প্রয়োজনীয় চিকিৎসার মাধ্যমে তাদের সুস্থ করে তোলার ক্ষেত্রে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য কাজ করে যাচ্ছে। সামাজিক কূসংস্কার, অজ্ঞতা, অবহেলা, অর্থনৈতিক সংকট ও তথ্যের অভাবে যক্ষ্মা রোগীরা চিকিৎসা কেন্দ্রে যেতে চান না, চিকিৎসা নিলেও নিয়মিত ওষুধ সেবন এবং পূর্ণ সময় চিকিৎসাও গ্রহণ করেন না। নাটাব সরবারের ডটস্ কর্মসূচির অংশীদার হিসেবে রোগীদের চিকিৎসা সম্পর্কে সচেতন করে তোলার ব্যাপারে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করে আসছে। এর আগেও জেলা নাটাবের উদ্যোগে ইমাম, শিক্ষক, মুক্তিযোদ্ধা, আইনজীবী, সাংবাদিক, ক্রীড়া সংগঠক, সাংস্কৃতিক কর্মী, এনজিও কর্মী, সুশীল সমাজ, পরিবহন শ্রমিক ও রিক্সাচালকদের নিয়ে মতবিনিময় সভা করেছে। বাংলাদেশ জাতীয় যক্ষ্মা নিরোধ সমিতি (নাটাব) এর জন্ম হয় ১৯৪৮ সালে। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই দেশব্যাপী যক্ষèা রোগ প্রতিরোধে জনসচেতনার মাধ্যমে কাজ করে আসছে নাটাব।

আজমতপুর সীমান্তে মদ ও ইনজেকশন উদ্ধার

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ জেলার আজমতপুর সীমান্ত থেকে বিদেশী মদ ও নেশা জাতীয় ইনজেকশন উদ্ধার করেছে ৫৯ বিজিবি সদস্যরা। রহনপুর ৫৯বিজিবি ব্যাটালিয়ন এর অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ আমীর হোসেন মোল্লা, পিএসসি বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিজস্ব তথ্যের ভিত্তিতে ২১ নভেম্বর আনুমানিক রাত ১০টার দিকে আজমতপুর বিওপির হাবিলদার মোঃ সানোয়ার হোসেন এর নেতৃত্বে টহল দল বিওপির দায়িত্বপূর্ণ এলাকার সীমান্ত পিলার ১৮১ মেইন হতে আনুমানিক ১.৫ কিঃমিঃ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে পাগলা নদীর পাড় নামক স্থানে অভিযান পরিচালনা করে মালিকবিহীন ভারতীয় ১৪ বোতল বিদেশী মদ এবং ৪৯০ পিস নেশা জাতীয় ইনজেকশন (বুপ্রেনরফিন) আটক করতে সক্ষম হয়। আটককৃত বিদেশী মদ এবং নেশা জাতীয় ইনজেকশন এর সিজার মূল্য-৯৪ হাজার ৫’শ টাকা। আটককৃত বিদেশী মদ এবং নেশা জাতীয় ইনজেকশন এর ব্যাপারে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহন করা হয়েছে।

গোমস্তাপুরে মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে দেয়ার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

গোমস্তাপুর(চাঁপাইনবাবগঞ্জ)প্রতিনিধিঃ চাঁপাই নবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে এক ব্যক্তিকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে দেয়ার অভিযোগ করেছেন তার পরিবার। মঙ্গলবার গোমস্তাপুর উপজেলা প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ
অভিযোগ করেন তারা। সংবাদ সম্মেলন লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মামলায় জেলহাজতে থাকা উপজেলার বোয়ালিয়া ইউনিয়নের লক্ষীনারায়নপুর গ্রামের মনিরুল ইসলামের বড় ছেলে মতিউর রহমান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন তার মা আনোয়ারা বেগম, চাচা আঃ গনি,ফুফু চেন বানু ও চাচাত ভাই আতাউর রহমান। লিখিত বক্তব্যে জানান হয়, গত ১৯ নভেম্বর র্যাব-৫,চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের সদস্যরা তার পিতা মনিরুল ইসলাম( ৫৭)কে অর্থ আত্নসাৎ ও প্রতারনার অভিযোগে আটক করে গোমস্তাপুর থানা পুলিশের নিকট হস্তান্তর করে। এ ঘটনায় একই ইউনিয়নের দূর্গাপুর গ্রামের প্রতারিত যুবক হামিদ আলী বাদী হয়ে গত ২০ নভেম্বর গোমস্তাপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাকে জেলহাজতে প্রেরন করে। সংবাদ সম্মেলন দাবি করা হয় আটককৃত মনিরুল ইসলাম কোন ভাবেই এ ঘটনার সাথে জড়িত নয়। তবে তার সৌদি প্রবাসী ছোট ভাই মাসুমসহ স্থানীয় কয়েকজন এ ঘটনার সাথে জড়িত বলে স্বীকার করে তারা। এ প্রসঙ্গে অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া র্যাব কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক আল নেওয়াজ আরেফীন জানান,ভূক্তভোগীর অভিযোগের ভিত্তিতে র্যাব তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। এ বিষয়ে মামলার বাদী হামিদ আলী জানান, মনিরুল ইসলাম ও তার সৌদি প্রবাসী ছোট ছেলে মাসুম সেনাবাহিনীর বেসামরিক পদে তাকে ভূয়া নিয়োগপত্র দিয়ে তার নিকট হতে ১২ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়। এ ঘটনায় সে র্যাবকে অভিযোগ করলে র্যাব তাকে আটক করে পুলিশে দেয়। পরে সে থানায় মামলা করে।