সর্বশেষ সংবাদ চাঁপাইনবাবগঞ্জে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় রণক্ষেত্র এলাকা, ২টি ককটেল উদ্ধার নাচোলে সন্ত্রাসি হামলায় সাংবাদিক সুফিয়ান গুরুতর আহত করোনায় আরও ২৩৫ জনের মৃত্যু শিবগঞ্জের বেলী ব্রীজে জীবনের ঝুঁকি নিয়েই চলছে মানুষ ও যানবাহন সোনামসজিদ স্থলবন্দর সিএন্ডএফ’র নতুন কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ চাঁনশিকারী ও পোলাডাংগা সীমান্তে ইয়াবা সহ আটক ২ ॥ পলাতক-৮ চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২ কেজি গাঁজাসহ আটক-১ বড় অফিসার হওয়ার স্বপ্ন দেখে মেধাবী বনি Two associates of Helena Jahangir held PM distributes flats among 300 slum dwellers

বেতন বাড়ছে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের

স্পোর্টস ডেস্ক
মহামারি করোনা বিশ্বব্যাপী প্রাদুর্ভাব ছড়ানোর পর অনেক ক্রিকেট বোর্ডই ক্রিকেটারদের বেতন কেটেছে। এর ফলে অনেকেই মূল বেতন থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। কিন্তু ব্যতিক্রম শুধু টাইগার ক্রিকেট প্রশাসন। অতিমারিকালেও জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের বেতন বাড়াতে কার্পণ্য দেখাল না।

মহামারির এ সময়ে সাকিব-মুশফিকদের বেতন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে অভিভাবক সংস্থা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, জাতীয় দলের প্রতিটি সদস্যের ১০ থেকে ২০ শতাংশ বেতন বাড়বে।

তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে অন্য বোর্ডের খেলোয়াড় বলেন স্টাফ বলেন সবার বেতন কমাচ্ছে। সেখানে আমি মাননীয় বোর্ড সভাপতিকে অনুরোধ করেছি বেতনটা ১০-২০ শতাংশ বাড়ানোর জন্য। এটা ডিফার করবে কিন্তু আমরা এটা চিন্তা ভাবনা করে করবো। তবে আমরা মৌখিকভাবে অনুমোদন নিয়েছি যে বেতনটা বাড়বে, সেটারও সময় নিতে হবে।

এসময় জাতীয় দলের কেন্দ্রীয় চুক্তি নিয়েও কথা বলেন আকরাম খান। গত মঙ্গলবার বিসিবির ১০ তম সভা শেষে সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছিলেন, চলতি বছরে জাতীয় দলের কেন্দ্রীয় চুক্তির বিষয়টি পুরোপুরি ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগ দেখবে। সেই ধারাবাহিকতায় জাতীয় নির্বাচক প্যানেলের সঙ্গে বসেন আকরাম এবং নির্বাচক মন্ডলীর কাছ থেকে ক্রিকেটারদের সম্পর্কে একটি সম্যক ধারণা নেন।

তিনি বলেন, বোর্ড সভার পর আমরা নির্বাচকদের সাথে বসে মোটামুটি কিছু জানার ব্যাপার ছিল সেগুলো জেনেছি। আমরা দুই একদিনের মধ্যে খেলোয়াড়দের চিঠিটা পাঠিয়ে দিচ্ছি। মানে ওরা কোন ফরম্যাটে খেলতে আগ্রহী। সেটা আসার সাথে সাথেই চুক্তিটা চূড়ান্ত করে ফেলবো।

বিসিবির সবশেষ কেন্দ্রীয় চুক্তিতে ‘এ’ প্লাস ক্যাটাগরিতে থাকা মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও সৌম্য সরকারের বেতন ছিল সাড়ে চার লাখ টাকা। ‘এ’ ক্যাটাগরিতে থাকা এক মাত্র ক্রিকেটার মুমিনুল হকের মাসিক বেতন তিন লাখ টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরিতে জায়গা করে নেয়া লিটন দাস, তাইজুল ইসলাম, মেহেদি হাসান মিরাজ ও মোস্তাফিজুর রহমান বেতন পান দুই লাখ টাকা। ‘সি’ ক্যাটাগরির মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন ও মোহাম্মদ মিঠুনের বেতন দেড় লাখ টাকা। আর ‘ডি’ ক্যাটাগরির নাজমুল হোসেন শান্ত, নাঈম হাসান, আবু জায়েদ রাহি, এবাদত হোসেন, আফিফ হোসেন ধ্রুব ও নাইম শেখ’র বেতন মাসে এক লাখ টাকা ধার্য্য করা হয়েছিল।

নন্দীগ্রামে হেরে হাইকোর্টে মমতা, শুনানি আজ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রামের আসনের ফল নিয়ে এবার হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। গণনায় কারচুপিসহ একাধিক অভিযোগ তুলে একটি মামলা দায়ের করেছেন নন্দীগ্রামের তৃণমূল প্রার্থী মমতা। খবর আনন্দবাজারের

শুক্রবার ভারতের স্থানীয় বেলা ১১টায় কলকাতা হাইকোর্টে বিচারপতি কৌশিক চন্দের বেঞ্চে এই মামলার শুনানির সম্ভাবনা রয়েছে।

এর আগে ২ মে বিধানসভা নির্বাচনের ফলপ্রকাশের দিনই মমতা বলেছিলেন, নন্দীগ্রামের ফল নিয়ে আদালতে যাবেন তিনি। কিন্তু কবে যাবেন, সে ব্যাপারে কিছুই জানাননি।

ভোট গণনার দিন প্রথমে খবর শোনা যায় ১২০০ ভোটে নন্দীগ্রামে জয়ী হয়েছেন মমতা। তার ঠিক কিছুক্ষণ পরেই আবার খবর আসে, নন্দীগ্রামে মমতা নয়, জিতেছেন শুভেন্দু অধিকারী। ১৯০০-র কিছু বেশি ভোটের ব্যবধানে তিনি জিতেছেন। পরে শুভেন্দুকে জয়ী ঘোষণা করেন রিটার্নিং অফিসার।

সে সময় থেকে গণনায় কারচুপির অভিযোগ তোলে তৃণমূল। সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে নন্দীগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রে ভোট পুর্নগণনার দাবি জানালেন মমতা।

গণনায় কারচুপির অভিযোগে একাধিক বিষয় তুলে ধরা হয়েছিল তৃণমূলের পক্ষ থেকে। গণনার সময়ে দু’ঘণ্টার জন্য সার্ভার চলে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছিল। তা নিয়ে বার বার প্রশ্ন তুলেছে জোড়াফুল শিবির।

এদিকে শুভেন্দু ভোটের ফলের পর থেকে মমতাকে লাগাতার আক্রমণ করে এসেছেন। মমতা ভোটে হেরে মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন, এসব বলেও কটাক্ষ করেছেন তাকে।

চীনের সিনোফার্মের টিকা চট্টগ্রামে পৌঁছেছে

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি
চীনের সিনোফার্মের তৈরি করা ৯১ হাজার ২০০ ডোজ নভেল করোনাভাইরাসের টিকা বন্দরনগরী চট্টগ্রামে পৌঁছেছে । জেলার সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বির নেতৃত্বে একটি টিম শুক্রবার সকালে টিকাগুলো গ্রহণ করেন।

সিভিল সার্জন জানান, বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেডের নিজস্ব পরিবহনে ভ্যাকসিনগুলো চট্টগ্রামে আনা হয়। সকাল সাড়ে ৬টায় গাড়িটি চট্টগ্রামে এসে পৌঁছে। এসব টিকা ইপিআই স্টোরে সংরক্ষণ করা হয়েছে। পরে সেখান থেকে নগরী ও উপজেলার টিকা কেন্দ্রগুলোতে সরবরাহ করা হবে।

তিনি আরও জানান, শনিবার বৈঠক করে এসব টিকা দেওয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে এবার আগের মতো একাধিক টিকাকেন্দ্র থাকবে না। প্রতিটি জেলায় কেবল একটি টিকাকেন্দ্র থেকে টিকা দেওয়া হবে। সিনোফার্মের এসব টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে আগে যারা রেজিস্ট্রেশন করেছেন, তারা অগ্রাধিকার পাবেন। এর বাইরে ফ্রন্টলাইনার, মেডিকেল শিক্ষার্থী, সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতা কর্মী ও চীনা নাগরিকদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রাম বিভাগের পাঁচটি জেলার জন্য ১ লাখ ১৪ হাজার ডোজ টিকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে চট্টগ্রাম জেলার জন্য সর্বোচ্চ ৯১ হাজার ২০০ ডোজ, কক্সবাজার জেলার জন্য ১০ হাজার ৮০০ ডোজ, রাঙ্গামাটি জেলার জন্য ৪ হাজার ৮০০ ডোজ, খাগড়াছড়ি জেলার জন্য ৩ হাজার ৬০০ ডোজ এবং বান্দরবান জেলার জন্য ৩ হাজার ৬০০ ডোজ টিকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

চট্টগ্রামে এ পর্যন্ত ৪ লাখ ৫৩ হাজার ৭৬০ জন প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন। যার মধ্যে দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৩ লাখ ৪৪ হাজার ৪৪৬ জন। টিকার মজুদ শেষ হয়ে যাওয়ায় এখনও দ্বিতীয় ডোজ নিতে পারেননি ১ লাখ ৯ হাজার ৩১৪ জন।

অবশেষে ফিরে এসেছেন আবু ত্ব-হা

ঢাকা: নিখোঁজ ইসলামি বক্তা আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনান ও তার সহযোগীদের উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৮ জুন) রংপুরের কোতোয়ালি থানাধীন চার তলা মোড় আবহাওয়া অফিস মাস্টারপাড়া এলাকা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়।রংপুর মেট্টোপলিটন পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার (ডিবি অ্যান্ড মিডিয়া) মো. ফারুক হোসেন বাংলানিউজকে নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, আবু ত্ব-হাকে শ্বশুর বাড়ি থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়।

এদিকে দুপুরের দিকে আবু ত্ব-হা রংপুরের বাড়িতে ফেরেন বলে জানিয়েছেন ত্ব-হার শ্যালক জাকারিয়া হোসেন।