সর্বশেষ সংবাদ শিবগঞ্জে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা পেলেন অসহায়-দুস্থ রোগীরা সোনামসজিদে বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ ক্যাপ্টেন জাহাঙ্গীরের সমাধিতে শ্রদ্ধা চাঁপাইনবাবগঞ্জে আমার ৯৩, এর ৮ ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী  পালিত  গোমস্তাপুরে বেগম রোকেয়া দিবস উদযাপন  চাঁপাইনবাবগঞ্জে ব্যারিষ্টার সুমন ফুটবল একাডেমির সাথে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভুটভুটির ধাক্কায় নিহত ১ঃ আহত ১ চাঁপাইনবাবগঞ্জে জয়ীতাদের সংবর্ধনা চাঁপাইনবাবগঞ্জে দূর্ণীতিবিরোধী দিবস পালিত নাচোলে বেগম রোকেয়া দিবসে জয়িতাদের সংবর্ধনা উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়তে চাই: প্রধানমন্ত্রী
Large Add

সারাদেশে আজ থেকে লঞ্চ ধর্মঘট ও ১ ডিসেম্বর থেকে রাজশাহীতে পরিবহন ধর্মঘট

নিজস্ব প্রতিবেদক

ন্যূনতম মজুরি ২০ হাজার টাকা ও নিয়োগপত্র, পরিচয়পত্র, সার্ভিস বুক প্রদানসহ ১০ দফা দাবিতে কর্মবিরতি পালন করছেন নৌ শ্রমিকরা। এতে বিপাকে পড়েছেন যাত্রীরা। ধর্মঘটের কারণে রোববার (২৭ নভেম্বর) সকাল থেকে চাদপুর, ভেলা ও বরিশালসহ দেশের বিভিন্ন ঘাট থেকে কোনো লঞ্চ ছেড়ে যায়নি।

ভোলার সঙ্গে অন্যান্য জেলার যোগাযোগের সবচেয়ে সহজ মাধ্যম নৌ-পথ। কিন্তু ধর্মঘটে লঞ্চ বন্ধ থাকায় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে যাত্রীদের। ভোলা-বরিশাল ও ভোলা-ঢাকা রুটসহ অভ্যন্তরীণ রুটেও লঞ্চ চলাচল বন্ধ রেখেছে জেলার নৌ-যান শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদ।

নৌ-যান শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা শেখ আবুল হাসেম বলেন, ১০ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে ধর্মঘটের ডাক দেয়া হয়েছে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত এ ধর্মঘট চলবে।

শ্রমিকদের ১০ দফা দাবি

শ্রমিকদের ১০ দফা দাবি হলো-নৌযান শ্রমিকদের নিয়োগপত্র, পরিচয়পত্র ও সার্ভিস বুক প্রদানসহ শ্রমিকদের সর্বনিম্ন মজুরি ২০ হাজার টাকা নির্ধারণ, খাদ্য ভাতা ও সমুদ্র ভাতার সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কন্ট্রিবিউটরি প্রভিডেন্ট ফান্ড ও নাবিক কল্যাণ তহবিল গঠন করা, দুর্ঘটনা ও কর্মস্থলে মৃত্যুজনিত ক্ষতিপূরণ ১০ লাখ টাকা নির্ধারণ করা।

অন্যান্য দাবির মধ্যে রয়েছে চট্টগ্রাম থেকে পাইপলাইনের মাধ্যমে জ্বালানি তেল সরবরাহে দেশের স্বার্থবিরোধী অপরিণামদর্শী প্রকল্প বাস্তবায়নে চলমান কার্যক্রম বন্ধ করা, বালুবাহী বাল্কহেড ও ড্রেজারের রাত্রিকালীন চলাচলের ওপরে ঢালাও নিষেধাজ্ঞা শিথিল, নৌপথে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি ও ডাকাতি বন্ধ।

এ ছাড়া ভারতগামী শ্রমিকদের ল্যান্ডিং পাস প্রদানসহ ভারতীয় সীমানায় সব ধরনের হয়রানি বন্ধ, চট্টগ্রাম বন্দর থেকে পণ্য পরিবহন নীতিমালা ১০০% কার্যকর করে সব লাইটারিং জাহাজকে সিরিয়াল মোতাবেক চলাচলে বাধ্য করা, চরপাড়া ঘাটে ইজারা বাতিল এবং নৌপরিবহন অধিদপ্তরের সব ধরনের অনিয়ম-অব্যবস্থাপনা বন্ধের দাবিও জানিয়েছেন শ্রমিকরা।
১ ডিসেম্বর থেকে রাজশাহীতে পরিবহন ধর্মঘট

নাটোর প্রতিনিধি

আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে সড়কে অবৈধ যান চলাচল বন্ধসহ ১১ দফা দাবি বাস্তবায়ন না হলে ১ ডিসেম্বর থেকে রাজশাহী বিভাগের ৮ জেলায় অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘটের ঘোষণা দিয়েছে রাজশাহী বিভাগীয় সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক পরিষদ।

এদিকে বিএনপির নেতা-কর্মীদের দাবি, ৩ ডিসেম্বর রাজশাহী বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশ বানচাল করতেই এই অপকৌশল নেয়া হয়েছে।

বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বিএনপির সমাবেশ ঠেকাতেই এ ধর্মঘট ডাকা হয়েছে বলে অভিযোগ করে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তিনি অবিলম্বে জনবিরোধী এ ধর্মঘট প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন।

শনিবার নাটোরে অনুষ্ঠিত বিভাগীয় মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের যৌথসভা থেকে এই ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

শহরের কানাইখালী এলাকায় আরপি কমিউনিটি সেন্টারে নাটোর জেলা বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির সার্বিক ব্যবস্থাপনায় এই সভায় সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী বিভাগীয় সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক পরিষদ সভাপতি সাফকাত মঞ্জুর বিপ্লব।

সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজান।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বগুড়া বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম,পাবনা মোটর মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মমিনুল হক মোমিন, সিরাজগঞ্জ বাস কোচ মালিক সমিতির সভাপতি আতিকুল ইসলাম আতিক, চাপাঁই নবাবগঞ্জ মালিক সমিতির সভাপতি আমিনুল ইসলাম সেন্টু, নাটোর জেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি কামরুল ইসলাম, বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি লক্ষ্মণ পোদ্দার, সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান প্রমুখ।

এছাড়া সভায় রাজশাহী বিভাগের আট জেলার মালিক-শ্রমিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পরে বিকেলে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ সংশোধান করাসহ হাইকোর্টের নির্দেশানুযায়ী মহাসড়ক ও আঞ্চলিক সড়কে থ্রিহুইলার, সিএনজি ও ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা চলাচল বন্ধ ও জ্বালানি তেলসহ যন্ত্রাংশের মূল্যহ্রাস করাসহ ১১ দফা বাস্তবায়নে সরকারের নিকট দাবি জানানো হয়।

এই দাবি ৩০ নভেম্বরের মধ্যে বাস্তবায়ন করা না হলে আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য রাজশাহী বিভাগের ৮ জেলায় পরিবরহন ধর্মঘটের ঘোষণা দেয়া হয়।

রাজশাহী বিভাগীয় সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক পরিষদ সভাপতি সাফকাত মঞ্জুর বিপ্লব যৌথসভার লিখিত সিদ্ধান্ত পাঠ করেন। এসময় আট জেলার পরিবহন নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি, নির্বাচনকালীন সরকার, জ্বালানিসহ নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি, পুলিশের গুলিতে নেতাকর্মী হত্যা, হামলা ও মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে দেশের বিভাগীয় শহরগুলোতে গণসমাবেশের কর্মসূচি পালন করছে বিএনপি।

গত ২২ জুলাই থেকে শুরু হওয়া বিএনপির ইস্যুভিত্তিক এই আন্দোলন বিভাগীয় পর্যায়ের গণসমাবেশের কর্মসূচিতে রূপ নিয়েছে।

গত ২৬ সেপ্টেম্বর রাতে বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল সভায় সব বিভাগে গণসমাবেশের সিদ্ধান্ত হয়। ওই সভায় সভাপতিত্ব করেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

গত ৮ অক্টোবর চট্টগ্রামে প্রথম কর্মসূচি পালন করে। এরপর ১৫ অক্টোবর ময়মনসিংহে। ২২ অক্টোবর খুলনায়। ২৯ অক্টোবর রংপুর। ৫ নভেম্বর বরিশাল। ১২ নভেম্বর ফরিদপুর। ১৯ নভেম্বর সিলেট। এবং সর্বশেষ ২৬ নভেম্বর কুমিল্লায় গণসমাবেশ করে বিএনপি।

এরপর আগামী ৩ ডিসেম্বর রাজশাহী এবং ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় গণসমাবেশের মধ্য দিয়ে বিএনপির তৃতীয় ধাপের কর্মসূচি শেষ হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
Add img sm
Add img sm

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: