সর্বশেষ সংবাদ স্থগিত হওয়া আইপিএলেও ফিক্সিংয়ের অভিযোগ! বাংলাদেশসহ ৪ দেশের নাগরিকদের মালয়েশিয়ায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা নেদারল্যান্ডসের প্রেমিকাকে বিয়ে করলেন দিতির ছেলে খালেদা জিয়ার করোনা নেগেটিভ: খোকন Bangladesh sees fresh 1,822 Covid cases, 41 more deaths ‘ঈদে ছোটাছুটি নয়, বেঁচে থাকলে তো স্বজনদের সঙ্গে দেখা’ জনসংখ্যা বাড়লেও খাদ্য নিরাপত্তায় চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করা সম্ভব হচ্ছে- কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক চাঁপাইনবাবগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত অমুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফনের অভিযোগ  স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের তরমুজের পর এবার চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১২০ টাকা কেজি দরে বিকাচ্ছে আনারস
Large Add

‘নিয়মিত পর্নো ভিডিও দেখতেন রফিকুল মাদানী’: পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা দায়ের

গাজীপুর: রফিকুল ইসলাম মাদানীর মোবাইল ফোনে অশ্লীল আপত্তিকর পর্নোগ্রাফি ভিডিও পেয়েছেন ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা। তিনি নিয়মিত পর্নো ভিডিও দেখতেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) দুপুরে প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান গাজীপুর মেট্রোপলিটনের উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ ইলতুৎমিশ।

উপ-পুলিশ কমিশনার ইলতুৎমিশ বলেন, রফিকুল ইসলাম মাদানী মোবাইল ফোনে নিয়মিত পর্নোগ্রাফি ভিডিও দেখাসহ রাষ্ট্রবিরোধী বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করতেন। তার বিরুদ্ধে মামলায় পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১২ এর ৮(৫)(ক) ধারা যুক্ত করা হয়েছে। কারাগারে বন্দি রফিকুল ইসলাম মাদানীর ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) গাজীপুর সিনিয়ার জুডিসিয়াল আদালতে আবেদন করা হয়েছে। আগামী ১৫ এপ্রিল রিমান্ড শুনানির দিন ধার্য করেছেন আদালত। নেত্রকোনার নিজ বাড়ি থেকে আটকের পর গত ৮ এপ্রিল গাছা থানায় রফিকুল ইসলাম মাদানীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করে র‌্যাব। এ সময় তার কাছ থেকে ৪টি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। এরপর থেকে তিনি গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে বন্দি রয়েছেন। তার বিরুদ্ধে একই আইনে গাজীপুরের বাসন থানায় আরও একটি মামলা হয়েছে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটনের গাছা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ইসমাইল হোসেন জানান, রফিকুল ইসলাম মাদানীর বিরুদ্ধে গাছা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলায় নতুনভাবে পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনের ধারা যুক্ত করা হয়েছে। তার মোবাইল জব্দ করে এক্সপার্টের কাছে দেওয়া হয়। এতে দেখা গেছে তিনি পর্নোগ্রাফি ভিডিও দেখতেন এবং সংরক্ষণ করতেন। পর্নোগ্রাফি ভিডিও সংরক্ষণ করা একটি দণ্ডনীয় অপরাধ। তাই তার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় পর্নোগ্রাফি মামলার ওই ধারাও সংযুক্ত করা হয়েছে। চার্জশিট দেওয়ার সময় ওই দুটি বিষয়ে আলাদাভাবে চার্জশিট দেওয়া হবে।

ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন এডিসি মোহাম্মদ আহসান, গাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইসমাইল হোসেন ও পরিদর্শক তদন্ত নন্দলাল প্রমুখ।

  •  
  •  
  •  
  •  
Add img sm
Add img sm

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: