সর্বশেষ সংবাদ বেতন বাড়ছে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের নন্দীগ্রামে হেরে হাইকোর্টে মমতা, শুনানি আজ চীনের সিনোফার্মের টিকা চট্টগ্রামে পৌঁছেছে অবশেষে ফিরে এসেছেন আবু ত্ব-হা করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের নিয়ে মেয়র মনিরুলের মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ চাঁপাইনবাবগঞ্জে ফের গুচ্ছগ্রাম উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী মদ-ক্লাব-জুয়া নিয়ে উত্তপ্ত সংসদ দ্বিতীয় পর্যায়ে ঘর পাচ্ছে আরও ৫৩ হাজার পরিবার চাঁপাইনবাবগঞ্জে কঠোর বিধিনিষেধের মেয়াদ বাড়ল ৭ দিন সংসারের বোঝা কমাতে রাজমিস্ত্রীর কাজে গিয়ে প্রাণ হারালো স্কুলছাত্র
Large Add

জনসংখ্যা বাড়লেও খাদ্য নিরাপত্তায় চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করা সম্ভব হচ্ছে- কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক

চাপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেছেন,‘ দেশে খাদ্য নিরাপত্তায় অনেকগুলো চ্যালেঞ্জ রয়েছে। প্রতিবছর জনসংখ্যা বাড়ছে, অন্যদিকে নানা কারণে চাষযোগ্য জমির পরিমান কমছে। রয়েছে জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবও। এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ফসলের নতুন জাত ও চাষাবাদের প্রযুক্তি উদ্ভাবিত হয়েছে। ফলে ক্রমশ জনসংখ্যা বাড়লেও; খাদ্য নিরাপত্তার চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করা সম্ভব হচ্ছে।’

বৃহস্প্রতিবার (৬ মে) দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলায় ব্রি ধান-৮১ জাতের ‘ধান কর্তন ও কৃষক সমাবেশ’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন কৃষিমন্ত্রী।

মন্ত্রী বলেন,‘ ব্রি-৮১ জাতটি; ব্রি-২৮ জাতের মতই জনপ্রিয় কৃষকরা নতুন এই জাতটি চাষে ব্যাপক আগ্রহ দেখাচ্ছেন। উচ্চফলনশীল এ জাত চাষের মাধ্যমে ধান উৎপাদন উল্লেখ যোগ্য পরিমান বাড়বে এবং দেশের খাদ্য নিরাপত্তায় এটি আশানুরুপ ভূমিকা রাখবে। শুধু তাই নয় সরকার কৃষিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে যুগোপযোগী পদক্ষেপ গ্রহন ও বাস্তবায়নে বিভিন্ন প্রণোদনা ও গবেষণায় অর্থ বরাদ্দ এবং গবেষণাগার তৈরি, প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি প্রদান এবং বাজেট বৃদ্ধির মাধ্যমে গবেষণার উপর গুরুত্ব প্রদান অব্যাহত থাকবে। যাতে ভবিষ্যৎতে সকল চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধি ও খাদ্য নিরাপত্তায় বজায় রাখা সম্ভব হয়।
মন্ত্রী আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান কৃষকবান্ধব সরকার কৃষিতে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে যুগোপযোগী পদক্ষেপ গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন। সরকার অত্যান্ত উদারভাবে কৃষকদেরকে বিভিন্ন প্রণোদনা ও গবেষণা অর্থ বরাদ্দ দিয়ে যাচ্ছে। আধুনিক গবেষণাগারে তৈরি,প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি প্রদান ও বাজেট বৃদ্ধির মাধ্যমে গবেষণার ওপর গুরুত্ব প্রদান অব্যাহত থাকবে। যাতে করে ভবিষ্যাতেও সকল চালেঞ্জ মোকাবেলা করে খাদ্য উদপাদন বৃদ্ধি ও খাদ্যা নিরাপত্তা বজায় রাখা সম্ভব হয়।

জেলা প্রশাসক মঞ্জুরুল হাফিজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১(শিবগঞ্জ) আসনের সাংসদ ডা সামিল উদ্দিন আহম্মেদ শিমুল, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ ফেরদৌসী ইসলাম জেসি, কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব কমলারঞ্জণ দাশ, বিএডিসির চেয়ারম্যান ড. অমিতাভ সরকার, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তররের মহাপরিচালক আসাদুল্লাহ, ব্রি-র মহাপরিচালক ড. শাজাহান কবীর, বারির মহাপরিচালক ড. নাজিরুল ইসলাম , রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি আব্দুল বাতেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশ সুপার এ এইচ এম আব্দুর রকিব, সাবেক সাংসদ সদস্য মো: জিয়াউর রহমান ও গোলাম মোস্তাফা বিশ^াস প্রমুখ।

এ সময় মন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমসহ অন্যান্য ফল রপ্তানির জন্য বিদেশ থেকে ‘ভ্যাপার হিট ট্রিটমেন্ট’ মেশিন আনার প্রক্রিয়া চলছে। যার মাধ্যমে পোকা-মাকড় দমনসহ বাংলাদেশের আম বিদেশে রপ্তানি শুরু হবে এবং সেটি বর্তমান সরকারের আমলেই হবে বলে জানান মন্ত্রী।’

পরে মন্ত্রী সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন,‘ যারা ধর্মনিরপেক্ষতাকে ধ্বংস করতে চায়, তাদের মূলোৎপাটন বাংলাদেশ থেকে করা হবে।যেভাবে বাংলাদেশের স্বাধীনতায় বিশ^াসী নয় জামাত,আলবদর ও রাজাকারদের দেশ থেকে উচ্ছেদ করা হয়েছে একইভাবে দেশের স্থিতিশীলতা বিনষ্টকারী হেফাজত কেও উচ্ছেদ করা হবে। হেফাজত ইস্যুতে সরকারের অবস্থান স্পষ্ট এবং তাদের বিচার হবে বাংলার মাটিতেই।

পরে মন্ত্রী চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের আঞ্চলিক উদ্যানতত্ব ও গবেষনা কেন্দ্রে বারী আম -৪ এবং বারী আম ১১ এর উৎপাদনশীলতা প্রদর্শন শীর্ষক এক কৃষক সমাবেশে যোগ দেন। এ সময় কৃষকরা আম রপ্তানীতে বিভিন্ন সমস্যা যেমন আমের মূল্য বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিভিন্ন সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে উদ্যোগ নেয়া,পরিবহন ব্যবস্থা সহজীকরন, উত্তম পদ্ধতিতে আম চাষাবাদে কৃষকদের সহায়তা, পরিকল্পিতভাবে আমবাগান তৈরি সহ বিভিন্ন দাবী তুলে ধরলে মন্ত্রী এসব সমস্যা সমাধানে উদ্যোগ নেয়ার প্রতিশ্রুত দেন।
এ সময় জেলা আওয়ামলীগের সাধারন সম্পাক ও সাবেক সাংসদ আব্দুল ওদুদ বিশ^াস, আঞ্চলিক উদ্যানতত্ব ও গবেষনা কেন্দ্রের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. হরিদাশ চন্দ্র মোহন্ত, পরিচালক (প্রশিক্ষন ও যোগাযোগ) ড. মো: শামসুল আলম সহ গবেষনা কেন্দ্রের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন ।

সমাবেশ শেষে তিনি কৃষকদের মাঝে বারী আম ৪ এবং বারি আম ১১ এর চারা বিতরনের উদ্ধোধন এবং এ জাতের আম গাছের চারা রোপন করে রাজশাহীর উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
Add img sm
Add img sm

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: