সর্বশেষ সংবাদ বেতন বাড়ছে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের নন্দীগ্রামে হেরে হাইকোর্টে মমতা, শুনানি আজ চীনের সিনোফার্মের টিকা চট্টগ্রামে পৌঁছেছে অবশেষে ফিরে এসেছেন আবু ত্ব-হা করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের নিয়ে মেয়র মনিরুলের মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ চাঁপাইনবাবগঞ্জে ফের গুচ্ছগ্রাম উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী মদ-ক্লাব-জুয়া নিয়ে উত্তপ্ত সংসদ দ্বিতীয় পর্যায়ে ঘর পাচ্ছে আরও ৫৩ হাজার পরিবার চাঁপাইনবাবগঞ্জে কঠোর বিধিনিষেধের মেয়াদ বাড়ল ৭ দিন সংসারের বোঝা কমাতে রাজমিস্ত্রীর কাজে গিয়ে প্রাণ হারালো স্কুলছাত্র
Large Add

অমুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফনের অভিযোগ  স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
চাঁপাইনবাবগঞ্জে এক অমুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফনের অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধারা।তবে স্থানীয় প্রশাসন এ আভিযোগ অস্বীকার করেছে। শহরের বড় ইন্দারা মোড় এলাকার শাহজাহান আলী মিয়া(পচু হাজি)র মৃত্যর পর গত সোমবার তাঁকে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফনের পর  সাবেক সহকারী কমান্ডার  মোহাম্মদ তরিকুল ইসলাম মাস্টার ২১ জন বীর মুক্তিযোদ্ধার স্বাক্ষর করা একটি অভিযোগ জেলা প্রশাসকের
নিকট জমা দেন। বুধবার বিকেলে এ অভিযোগ  দেন তাঁরা। এ সময় এ ঘটনার
 নিন্দা জানিয়েছেন স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধারা।
এর আগে বুধবার  দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে জরুরী সভায় এ ঘটনার প্রতিবাদ জানানো হয়।সভায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক জেলা কমান্ডার মো.আলাউদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক তরিকুল আলম,রুহুল আমীন,জয়নাল আবেদিন সহ বিভিন্ন ইউনিয়নের মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডাররা সভায় উপস্থিত ছিলেন।
সভা শেষে ২১ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়,শাহজাহান মিয়া কোন মুক্তিযোদ্ধাই ছিলেন না।বরং তিনি মুক্তিযুদ্ধের বিরুদ্ধে অবস্থান নেন।এমন একজন মুক্তিযুদ্ধ বিরোধীর মরদেহ জাতীয় পতাকায় মুড়ে রাষ্টীয় মর্যাদা দিয়ে পতাকার অবমাননা করা হয়েছে।এছাড়া মর্যাদা প্রদানের জন্য কোন বীর মুক্তিযোদ্ধা বা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারকে জানানো হয়নি এবং সেখানে মুক্তিযোদ্ধা  কেউ উপস্থিত ছিলেন না বলে জানান।
এ ব্যাপারে  জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক তরিকুল আলম জানান মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রনালয় প্রকাশিত মুক্তিযোদ্ধাদের দুটি তালিকার একটিতেও মো.শাহজাহান মিয়ার নাম নেই।
এ ব্যাপারে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) নাজমুল ইসলাম সরকার জানান  সরকারি গেজেটে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে মো.শাহজাহান মিয়ার নাম আছে।তাই বিধি মোতাবেক উনাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা দেওয়া হয়েছে।
 অপরদিকে মো.শাহজাহান মিয়ার ছোট ছেলে মো.আলী আসগার বলেন,স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের এ বক্তব্য সম্পূর্ণ মিথ্যা।
তবে তাঁর পিতা কোথায় মুক্তিযুদ্ধ করেছেন এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন সেটা আমি জানি না।আমি তখন নাবালক ছিলাম। তাঁর বড় ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলতে চাইলে তিনি বলেন,উনি(বড় ভাই) এখন অসুস্থ কথা বলতে পারবেন না।
  •  
  •  
  •  
  •  
Add img sm
Add img sm

আরও পড়ুন

%d bloggers like this: