সর্বশেষ সংবাদ বিআরটিসি বাসে গাঁজা নিয়ে আসার সময় কানসাটে আটক ১ আলজাজিরার বিরুদ্ধে আদালতে মামলা হল খুলতে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো পাবে ৫০ কোটি টাকা ১ কোটি ৯ লাখ ৮ হাজার ডোজ টিকা পাচ্ছে বাংলাদেশ ঐশ্বরিয়া পাকিস্তানে! তীব্র বাতাসে ও গরমে কক্সবাজারে আর্চারিরা 18 anti-tank rockets recovered from Satchhari 6 killed as Myanmar security forces fire at protesters Bangladesh reports 5 deaths পাপুলের আসনে ভোট ১১ এপ্রিল

বিতর্কিতদের মনোনয়ন নয় : প্রধানমন্ত্রী

চলমান পৌরসভা নির্বাচনসহ কোনো নির্বাচনেই বিতর্কিতদের দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, কোনো অপকর্মে জড়িত হয়ে দলের জন্য বিতর্ক কুড়িয়েছেন, এমন নেতারা আর কখনও দলের মনোনয়ন পাবেন না। এমনকি বিতর্কিত পরিবারের কোনো সদস্যকেও দলীয় প্রার্থী করা হবে না।

গতকাল বুধবার গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন বলে বৈঠক সূত্র জানায়। তিনি বলেন, ইতোমধ্যে পৌরসভা নির্বাচনের মেয়র পদে বিতর্কিতরা পুনঃমনোনয়ন পাননি। বর্তমান মেয়রদের মধ্য থেকেও যারা নানা দুর্নীতি-অনিয়মে জড়িত হয়েছেন, তারাও এবারের নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন থেকে বাদ পড়েছেন।

দলীয় বিদ্রোহী প্রার্থীরাও ভবিষ্যতে আর দলীয় মনোনয়ন পাবেন না বলে আবারও জানিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, দল থেকে যাকেই প্রার্থী করা হবে, তার পক্ষেই সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করলে কঠোর সাংগঠনিক শাস্তির মুখে পড়তে হবে।

বৈঠক সূত্র জানায়, বৈঠকে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়েও আলোচনা হয়েছে। এ সময় প্রধানমন্ত্রী শীতে করোনার দ্বিতীয় ওয়েভ শুরু হওয়ার প্রেক্ষাপটে দলের নেতাকর্মীদের সতর্ক থেকে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর নির্দেশ দেন। তিনি বলেন, মানুষের জীবন-জীবিকা রক্ষায় সবাইকে সাধ্যমতো সাহায্য-সহযোগিতা করতে হবে।

২৫ জানুয়ারি দেশে করোনার ভ্যাকসিন আসবে জানিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, ভ্যাকসিন প্রাপ্তির ক্ষেত্রে করোনাযোদ্ধা চিকিৎসক-নার্স-স্বাস্থ্যকর্মীসহ ঝুঁকিতে থাকা ব্যক্তিরা অগ্রাধিকার পাবেন। তবে পর্যায়ক্রমে সবাই এ টিকা পাবেন। ভ্যাকসিন বিতরণের ক্ষেত্রেও সংশ্নিষ্টদের সহযোগিতা করতে হবে দলের নেতাকর্মীদের।

প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে বৈঠকে দেশের ৫৬টি পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীদের নাম চূড়ান্ত করা হয়। আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠেয় চতুর্থ ধাপের এসব পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন তারা। বৈঠক শেষে রাতে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ূয়া স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব দলীয় মেয়র প্রার্থীর নামের তালিকা প্রকাশ করা হয়।

মনোনয়ন বোর্ড সদস্যদের মধ্যে দলের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, কাজী জাফর উল্লাহ, লে. কর্নেল (অব.) মুহাম্মদ ফারুক খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান এবং প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

যারা মনোনয়ন পেলেন :ঠাকুরগাঁও জেলার ঠাকুরগাঁও পৌরসভায় আঞ্জুমান আরা বেগম ও রানীশংকৈলে মোস্তাফিজুর রহমান, লালমনিরহাট জেলার লালমনিরহাট পৌরসভায় মোফাজ্জল হোসেন ও পাটগ্রামে রাশেদুল ইসলাম সুইট, জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে শহীদুল আলম চৌধুরী, কালাইয়ে রাবেয়া সুলতানা, চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে সৈয়দ মনিরুল ইসলাম, রাজশাহীর নওহাটায় হাফিজুর রহমান হাফিজ, গোদাগাড়ীতে অয়েজ উদ্দিন বিশ্বাস, তানোরে ইমরুল হক ও তাহেরপুরে আবুল কালাম আজাদ, নাটোরের বড়াইগ্রামে মাজেদুল বারী নয়ন ও নাটোর পৌরসভায় উমা চৌধুরী, চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে রফিকুল ইসলাম ও আলমডাঙ্গায় হাসান কাদির গনু, যশোরের চৌগাছায় নূর উদ্দীন আল-মামুন ও বাঘারপাড়ায় কামরুজ্জামান, বাগেরহাট জেলার বাগেরহাট পৌরসভায় খান হাবিবুর রহমান, সাতক্ষীরা জেলার সাতক্ষীরা পৌরসভায় শেখ নাসেরুল হক, পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় বিপুল চন্দ্র হাওলাদার, বরিশালের মুলাদীতে শফিকউজ্জামান ও বানারীপাড়ায় সুভাস চন্দ্র শীল, টাঙ্গাইলের গোপালপুরে রকিবুল হক ছানা ও কালিহাতীতে মোহাম্মদ নুরন্নবী, কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরে আনোয়ার হোসেন, হোসেনপুরে আ. কাইয়ুম (খোকন) ও করিমগঞ্জে মুসলেহ উদ্দিন, মুন্সীগঞ্জের মিরকাদিমে আবদুস ছালাম।

নরসিংদী জেলার নরসিংদী পৌরসভায় আশরাফ হোসেন সরকার ও মাধবদীতে মোশাররফ হোসেন, রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে নজরুল ইসলাম ও রাজবাড়ী পৌরসভায় মহম্মদ আলী চৌধুরী, ফরিদপুরের নগরকান্দায় নিমাই চন্দ্র সরকার, মাদারীপুরের কালকিনিতে এসএম হানিফ, শরীয়তপুরের ডামুড্যায় কামাল উদ্দিন আহমদ, জামালপুরের মেলান্দহে শফিক জাহেদী রবিন, শেরপুর জেলার শেরপুর পৌরসভায় গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া ও শ্রীবর্দীতে মোহাম্মদ আলী লাল মিয়া।

ময়মনসিংহের ফুলপুরে শশধর সেন, নেত্রকোনা জেলার নেত্রকোনা পৌরসভায় নজরুল ইসলাম খান, সিলেটের কানাইঘাটে লুৎফুর রহমান, হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে মোহাম্মদ সাইফুল আলম, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় তাকজিল খলিফা, কুমিল্লার হোমনায় নজরুল ইসলাম ও দাউদকান্দিতে নাইম ইউসুফ, চাঁদপুরের কচুয়ায় নাজমুল আলম ও ফরিদগঞ্জে আবুল খায়ের পাটওয়ারী, ফেনীর পরশুরামে নিজাম উদ্দিন আহম্মদ চৌধুরী, নোয়াখালীর চাটখিলে নিজাম উদ্দিন, সোনাইমুড়ীতে নুরুল হক চৌধুরী, লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে এম মেজবাহ উদ্দিন, চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় মোহাম্মদ জোবায়ের, পটিয়ায় আইয়ুব বাবুল, চন্দনাইশে মাহবুবুল আলম, খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় শামছুল হক, রাঙামাটি জেলার রাঙামাটি পৌরসভায় আকবর হোসেন চৌধুরী এবং বান্দরবান জেলার বান্দরবান পৌরসভায় মোহাম্মদ ইসলাম বেবী।

ভারতে কুচকাওয়াজে অংশ নেবে বাংলাদেশ সশস্ত্রবাহিনী

 

ভারতের কুচকাওয়াজে অংশ নিতে আইএএফ সি-১৭ বিমানে দেশে ছেড়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১২২ জন সদস্য। আগামী ২৬ জানুয়ারি নয়াদিল্লীতে ভারতের গণতন্ত্র দিবসে এই কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হবে। মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) ঢাকাস্থ ভারতীয় হাই কমিশন থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ভারতের ইতিহাসে তৃতীয়বারের মত কোনো বিদেশী সামরিক বাহিনীর দলকে মধ্য দিল্লীর রাজপথে জাতীয় কুচকাওয়াজে অংম নিতে এ আমন্ত্রণ জানানো হয়।বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ৫০ বছর আগে যে বাহিনী একসঙ্গে লড়াই করেছে এখন তারা গর্বের সঙ্গে রাজপথে মার্চ করবে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী স্বাধীনতা, ন্যায়বিচার এবং তাদের জনগণের পক্ষে লড়াই করা সাহসী মুক্তিকযোদ্ধাদের উত্তরাধিকারকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর দলটিতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সৈনিক, বাংলাদেশ নৌবাহিনীর নাবিক এবং বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর সেনারা রয়েছেন।

বাংলাদেশ কন্টিনজেন্টের বেশিরভাগ সৈন্যই বাংলাদেশ নেসাবাহিনীর সর্বাধিক দক্ষ ইউনিট থেকে আগত, যার মধ্যে রয়েছে ১,২,৩,৪,৮,৯,১০ ও ১১ ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট এবং ১,২ ও ৩ ফিল্ড আর্টিলারি রেজিমেন্ট, যারা একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ ও বিজয় অর্জনের অনন্য সম্মানে ভূষিত।

কুচকাওয়াজটি আগামী ২৬ জানুয়ারি বিশ্বব্যাপী সরাসরি সম্প্রচার করা হবে বলেও জানানো হয়েছে।

শিক্ষকরা পরিচালক পর্যন্ত হতে পারবেন

শিক্ষার গুণগত মান বাড়াতে নতুন উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এখন থেকে শিক্ষা অফিসার থেকে পরিচালক পর্যন্ত পদোন্নতি পাবেন প্রাথমিক শিক্ষকরা। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের গেজেটেড অফিসার ও নন-গেজেটেড কর্মচারীদের নিয়োগ বিধিমালা, ১৯৮৫ সংশোধন করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে সংশোধিত চূড়ান্ত খসড়া প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্মদ মনসুরুল আলম বলেন, বর্তমান সরকার শিক্ষার গুণগত মান বাড়াতে সর ধরনের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। শিক্ষকরা যাতে আন্তরিকতা নিয়ে নিষ্ঠার সঙ্গে শিক্ষকতা করতে পারেন সে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। আমরা শিক্ষকদের কর্মকর্তা বা কর্মচারী ভাবতে চাই না। তারা শিক্ষক, তারা সম্মানীয়। তাই তাদের জন্য আমরা ১৯৮৫ সালের প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের গেজেটেড অফিসার ও নন-গেজেটেড কর্মচারীদের নিয়োগ বিধিমালা সংশোধন করার উদ্যোগ নিয়েছি। ইতোমধ্যে মন্ত্রণালয়ে খসড়া নিয়োগ বিধিমালা পাঠানো হয়েছে।

রাজধানীর ধানমন্ডি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোছা: সাইফুন্নাহার বলছেন, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের গেজেটেড অফিসার ও নন-গেজেটেড কর্মচারীদের নিয়োগ বিধিমালা, ১৯৮৫-এর অধীনে প্রধান শিক্ষকদের পদোন্নতির বিধান ছিল। প্রধান শিক্ষকরা সহকারী উপজেলা-থানা শিক্ষা অফিসার, উপজেলা শিক্ষা অফিসার পদে পদোন্নতি পেতেন। এতে সহকারী শিক্ষকরাও নির্দিষ্ট সময়ে প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতির সুযোগ পেতেন।

জানা গেছে, বেতন গ্রেড নিয়ে অসন্তোষের পর সম্প্রতি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবং সহকারী শিক্ষকের বিভাগীয় পদোন্নতি নিয়ে অসন্তোষ সৃষ্টি হয়েছে। শিক্ষকদের পক্ষ থেকে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরে লিখিত আবেদন করা হয়। এই ঘটনার পর প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর ১৯৮৫ সালের আইনটি সংশোধনের উদ্যোগ নেয়। সংশোধন খসড়ায় সহকারী শিক্ষক ও প্রধান শিক্ষকদের পরিচালক পর্যন্ত পদোন্নতির বিধান রাখা হয়। এতে একজন সহকারী শিক্ষক তার নিজ পদ থেকে প্রধান শিক্ষক, সহকারী উপজেলা-থানা শিক্ষা অফিসার, উপজেলা শিক্ষা অফিসার, সহকারী পরিচালক, এমনকি সর্বোচ্চ পরিচালক পর্যন্ত পদোন্নতি পাবেন। বর্তমানে পরিচালক প্রশাসন ক্যাডার থেকে হয়। এই নিয়োগ বিধির আওতায় এই প্রথম প্রাথমিক শিক্ষা প্রশাসন থেকে হবে। কিন্তু ১৯৯৪ সালের ১৯ ডিসেম্বর বিধিমালাটি সংশোধনের মাধ্যমে প্রধান শিক্ষকদের পদোন্নতি রহিত করা হয়। তখন থেকে সহকারী শিক্ষকদের পদোন্নতির বিধান থাকলেও পদোন্নতির সুযোগ হারিয়ে যায়। এবার প্রধান শিক্ষকদের পদোন্নতির বিধানও যুক্ত হচ্ছে। ফলে সহকারী শিক্ষক ও প্রধান শিক্ষকরা নির্ধারিত নিয়মে পদোন্নতি পাবেন। আগের নিয়মে উপজেলা শিক্ষা অফিসার পর্যন্ত পদোন্নতির সুযোগ থাকলেও এবার তা বাড়িয়ে পরিচালক পর্যন্ত করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব ও সহকারী শিক্ষক সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ শামছুদ্দীন মাসুদ ইনকিলাবকে বলেন, বিভাগীয় পরীক্ষার মাধ্যমে পদোন্নতির বিধান যুক্ত করতে হবে খসড়া নীতিমালায়। ৭০ শতাংশ বিভাগীয় পদোন্নতি এবং ৩০ শতাংশ উন্মুক্ত পরীক্ষার মাধ্যমে পদোন্নতি দিতে হবে। অনূর্ধ্ব ৪৫ বছরের বয়সের কোনও বাধা রাখা যাবে না। কারণ একজন সহকারী শিক্ষকের প্রধান শিক্ষক হতেই ৪৫ বছর লেগে যায়, তাহলে ঊর্ধ্বতন থানা-উপজেলা শিক্ষা অফিসার পদে পদোন্নতিতে অনূর্ধ্ব ৪৫ বছর শর্তজুড়ে দিলে কোনও সহকারী শিক্ষক ওই পদে যেতে পারবেন না।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে র‌্যাবের ওয়ান শুটারগান ও গুলি উদ্ধার ॥ গ্রেফতার ১

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ অস্ত্র চোরাচালানের গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার টোলবাড়ী এলাকা থেকে ২টি ওয়ান শুটারগান ও ২ রাউন্ড গুলি সহ এক অস্ত্র ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব ৫ এর রাজশাহী মোল্লাপাড়া ক্যাম্পের সদস্যরা। বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে চালানো অভিযানে গ্রেফতার হয়, জেলার ভোলাহাট উপজেলার বড় জামবাড়ীয়ার মো. এন্তাজের ছেলে মো. আক্তারুল ইসলাম (৩০)। র‌্যাবের এক প্রেসনোটে বুধবার গভীর রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানানো হয়, অস্ত্র ব্যবসায়ী আক্তারুল কে শিবগঞ্জের টোলবাড়ী এলাকা থেকে ২টি ওয়ান শুটারগান ও ২ রাউন্ড গুলি ও মোবাইলসহ গ্রেফতার করা হয়। এঘটনায় জেলার শিবগঞ্জ থানায় অস্ত্র আইনে একটি মামলা করা হয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসকের রাতভর কম্বল বিতরণ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ রাতভর ছিন্নমূল ও বস্তিবাসীদের মাঝে কম্বল বিতরণ করেছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জে জেলা প্রশাসক মো. মঞ্জুরুল হাফিজ। অসহায়, দরিদ্র ছিন্নমূল ও বস্তির মানুষদের শীত নিবারণের জন্য বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টা থেকে মধ্য রাত পর্যন্ত রেলস্টেশনে ছিন্নমূল ও শহরের নিমতলা এলাকায় হরিজন পল¬ীতে শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করেছেন জেলা প্রশাসক। কয়েকদিন ধরে শীতের প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় তিনি প্রথমে রেলস্টেশনে এবং পরে হরিজন পল্লীতে দরিদ্র মানুষগুলোর গায়ে কম্বল জড়িয়ে দেন এবং তাদের খোঁজ-খবর নেন। এসময় সাথে ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) দেবেন্দ্র নাথ উরাঁও, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট জাকিউল ইসলাম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) আনিসুর রহমান, সহকারি কমিশনার রবিন নিয়া, আশরাফুল ইসলাম, চন্দন কর, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাড. আফসার আলীসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা। রাতে কম্বল বিতরণ কাজে হরিজন পল্ল¬ীতে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফ জামান আনন্দসহ ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত থেকে সহযোগিতা করেন। অন্যদিকে, জেলা প্রশাসনের ত্রাণ শাখা সুত্র জানায়, চলতি শীত মৌসুমে জেলার ৪৫টি ইউনিয়নে ৪৬০টি করে কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। সমপরিমাণ কম্বল বিতরণ চলমান রয়েছে।

রহনপুরে প্রথম আলো পত্রিকার সাংবাদিক দিলুর শ্বশুরের দাফন সম্পন্ন

গোমস্তাপুর (চাঁপাইনবাবগঞ্জ )প্রতিনিধিঃ
রহনপুর পৌর এলাকার ডাকবাংলা পাড়ার মৃত জার্জিস আহমদের ছেলে ও দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকার জেলা প্রতিবেদক আনোয়ার হোসেন দিলুর শ্বশুর মোমিনুল ইসলাম মোমিন (৮০) এর দাফন সম্পন্ন হয়েছে। এর আগে তিনি গত বুধবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে তার নিজ বাসভবনে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ইন্তেকাল করেন। (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।
বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ডাক বাংলাপাড়াস্থ মুসা সরকারের চাতালে নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।জানাজায় উপস্থিত ছিলেন, সাবেক সংসদ সদস্য গোলাম মোস্তফা বিশ্বাস, মরহুমের ছোট শালক ঝিনাইদহের চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহাঃ হাসানুজ্জামান (রিপন),রহনপুর পৌর মেয়র তারিক আহমদ,সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বাইরুল ইসলাম, রহনপুর ইউসুফ আলী সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ আজিজুর রহমান, রহনপুর পৌর নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী মতিউর রহমান খাঁন ও আশরাফুল ইসলামসহ স্থানীয় গণ্যমান্যব্যক্তিবর্গ। জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। মৃত্যুকালে তিনি ৩ মেয়ে,আত্মীয়-স্বজনসহ গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ

শেহালা তরুণ প্রগতি সংঘ আয়োজিত মহান বিজয় দিবস-২০২০ উপলক্ষে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত। আজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৪ টায় পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডের শেহালা জগদীশ চন্দ্র প্রাইমারি স্কুল প্রাঙ্গণে স্থানীয় তরুণ প্রগতি সংঘ আয়োজিত মহান বিজয় দিবস-২০২০ উপলক্ষে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়। ওর্য়াড পুলিশিং কমিটির সহ সভাপতি জয়নাল আবেদিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পুরস্কার বিতরণ করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি সাবেক সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব রুহুল আমিন, বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বিশিষ্ট চিকিৎসক ডাঃ গোলাম রাব্বানী, শহীদ মোহর আলি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হাবিবুর রহমান পিন্টু,তরুণ উদ্যৌক্তা নাজনীন ফাতেমা জিনিয়া এবং সঞ্চালনায় ছিলেন রাজু আহমেদ। অনুষ্ঠানে আলোচনা সভা শেষে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

Bangladesh reports 16 deaths

Bangladesh today confirmed 16 deaths from the coronavirus (COVID-19) infection in the last 24 hours, raising the death toll to 7,849.

According to the Health authorities, 813 people have tested positive for coronavirus in the last 24 hours raising the total number of coronavirus cases in the country to 525,723.

The Directorate General of Health Services (DGHS) disclosed the update of the country’s coronavirus situation issuing a press release this afternoon.

As 883 patients have recovered in last 24 hours, the number of total recoveries reached 470,405, it also said.

A total of 3,418,114 samples have been tested so far with 16,608 samples tested in 199 coronavirus testing laboratories across the country in last 24 hours, the release added.

Bangladesh reported its first Coronavirus case on March 8 while first death on March 18 in last year.

Fire guts 500 shanties at Teknaf Rohingya camp

More than 500 shanties have been destroyed after a fire tore into parts of the Rohingya refugee camp in Teknaf upazila of Cox’s Bazar.

Besides, at least 15 people were injured in the fire that broke out at Block-E of the camp in Nayapara area of Teknaf on early Thursday morning.

On information, members of Bangladesh Army, APBn, police and Fire Service rushed to the spot and doused the blaze.

Later, Cox’s Bazar Refugee Relief and Repatriation Commissioner (RRRC) Shah Rezwan Hayat visited the destroyed shanties in the camp.

Locals said the fire erupted inside one of the shanties and then quickly spread as most occupants use gas cylinders for cooking.

Teknaf Fire Service team leader Mukul Kumar Nath told Banglanews that the cause and origin of the fire could not be known yet.

“There were about eight families living inside one tin-shed house. As many as 514 houses, including 48 tin-shed houses and 130 shanties, have been gutted in the fire,” he said.

Cox’s Bazar Refugee Relief and Repatriation Commission Additional Commissioner Shamsuddouza Nayon told Banglanews that the affected families were temporarily sheltered to learning centers. They will be transferred to other camps later.

এবার শুটিংয়ে কৃষকদের বাধা

এবার শুটিংয়ে কৃষকদের বাধা দেয়ার ঘটনা ঘটেছে

পাঞ্জাবে চলছিল জাহ্নবী কাপুরের ‘গুড লাক জেরি’ সিনেমার শুটিং। কিন্তু সেখানে বিপত্তি ঘটায় ভারতে চলমান কৃষি আইনের বিরোধিতাকারী পাঞ্জাবি কৃষকরা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, সোমবার শুটিং চলাকালে একদল কৃষক আন্দোলনকারী হানা দেন সেটে। তাদের দাবি ছিল, অভিনেত্রীকে তাদের আন্দোলনে প্রকাশ্যে সমর্থন দিতে হবে। শুটিংয়ে আগত সবাই তাদের আন্দোলনে সমর্থন করেন কিনা সেটাও তারা জানতে চান।

এরপর কৃষক আন্দোলনের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেন শুটিং ক্রু। অভিনেত্রী জাহ্নবীও তার ইনস্টাগ্রামে কৃষক আন্দোলনের সমর্থনে একটি পোস্ট দেন।

ইনস্টাগ্রাম পোস্টে শ্রীদেবীকন্যা বিবৃতি দেন, ‘কৃষকরাই আমাদের দেশের হৃদয়। আমাদের জাতির মুখে আহার তুলে দিতে তারা যে ভূমিকা রাখেন তা আমি জানি ও মূল্যায়ন করি। আমি আশা করি, শিগগিরই একটি সমাধানে পৌছানো যাবে যাতে কৃষকরা উপকৃত হন। ’

নিজেদের দাবি মেটার সঙ্গে সঙ্গেই ফিরে যান কৃষকরা। স্বস্তি মেলে শুটিং ফ্লোরে।

২০১৮ সালের তামিল সিনেমা ‘কোলামাভু কোকিলা’ সিনেমার হিন্দি রিমেক ‘গুড লাক জেরি’। মূল সিনেমার নয়নতারার ভূমিকায় অভিনয় করবেন জাহ্নবী কাপুর। এতে উল্লেখযোগ্য চরিত্রে আরও অভিনয় করছেন দীপক দোব্রিয়াল, মিতা বশিষ্ঠ, নীরাজ সুদ ও সুশান্ত সিং। সিদ্ধার্থ সেনগুপ্ত পরিচালিত সিনেমাটির অর্থ যোগাচ্ছেন আনন্দ এল রাই।