সর্বশেষ সংবাদ অবিশ্বাস্য কর্মযজ্ঞ:বদলে গেছে মানুষের জীবন তিস্তার ১১৩ কিলোমিটার খননের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার শ্যামপুরে অসহায় বৃদ্ধাকে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের রান্না ঘর প্রদান গোমস্তাপুরে অসামাজিক কার্যকলাপ বন্ধের দাবিতে মানব বন্ধন চাঁপাইনবাবগঞ্জে আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবসে আলোচনা সভা চাঁপাইনবাবগঞ্জের নতুন জেলা প্রশাসক মঞ্জুরুল হাফিজ। গোমস্তাপুরে সাপের কামড়ে ২ জনের মৃত্যু নাচোলে সাংবাদিক বাবুকে হুমকী দেওয়ায় থানায় জিডি চাঁপাইনবাবগঞ্জে সোমবার থেকে আবারো টিসিবি’র পণ্য বিক্রি: জেনে নিন কোথায় কি পরিমান পাবেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে পূর্বের সিডিউলে ট্রেনের দাবীতে মানববন্ধন

মুজিববর্ষ উপলক্ষে শিবগঞ্জে ৩২ জন ভিক্ষুককে পুনর্বাসন করা হবে–উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাকিব

শিবগঞ্জ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি: মুজিববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে ৩২ জন ভিক্ষুককে পুনর্বাসন করা হবে। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার তালিকাভুক্ত ভিক্ষুকের সম্ভাবনা যাচাই ও পুনর্বাসন উপলক্ষে দিনব্যাপি কর্মশালায় এসব তথ্য জানানো হয়।

উপজেলা সমাজসেবা অফিস আয়োজিত উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাকিব আল-রাব্বি। কর্মশালায় আরো উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা সমাজসেবা অফিসার কাঞ্চন কুমার দাস, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম, উপজেলা পল্লী উন্নয়ন অফিসার আবু হাসান মো. সাঈদ ও উপজেলা এনজিও ফোরাম সভাপতি তোহিদুল আলম টিয়াসহ অন্যরা।

কর্মশালায় জানানো হয়, উপজেলার ১৫টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় মোট ৩২ জন ভিক্ষুককে নির্বাচিত করে তাদের পুনর্বাসন করা হবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইউএনও সাকিব আল রাব্বি বলেন, সরকার চাই আপনারা উন্নতির দিকে এগিয়ে যান। নিজেদের উদ্যোগে গরু পালন করা, ছাগল কিংবা হাঁস-মুরগি পালন করা, বিভিন্ন ধরনের কাজ করা। কিন্তু আপনি যদি না চান, তাহলে সরকার হাজার চেষ্টা করলেও কোনো কাজ হবে না।

এজন্য এখানে যারা আছেন তাদের উদ্দেশ্যে বলছি, নিজের পরিবর্তন করতে আপনি পারবেন কিনা? আপনি যদি পারেন তাহলে আমাদের এই কাজটা সার্থক হবে। এজন্য স্বপ্ন দেখলে হবে না, স্বপ্নের সাথে বাস্তবতার একটা সম্পর্ক তৈরি করতে হবে। বড় হবার জন্য সবার আগে যেটা প্রয়োজন সেটা হলো মনের শক্তি।

তিনি আরও বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আমারা চাঁপাইনবাবগঞ্জে আপনাদের মতো এ রকম ১০০ জনকে চাই। যারা আমাদের এ সাহায্য-সহযোগিতা নিয়ে নিজের ভাগ্য পরিবর্তনের চেষ্টা করবেন। আপনারা করতে পারলে, যত রকমের সহযোগিতা আপনাদের লাগবে আমরা করতে রাজি আছি। কিন্তু আপনাকে এগিয়ে আসতে হবে।

ভোলাহাট আ’লীগের দূর্দিনের কান্ডারি ওয়াজেদ আলীর দাফন সম্পন্ন


ভোলাহাট(চাঁপাইনবাবগঞ্জ)প্রতিনিধিঃ ভোলাহাটে আওয়ামীলীগের দূর্দিনের কান্ডারি দাপুটে নেতা ওয়াজেদ আলীর দাফন সম্পন্ন হয়েছে। তার নামাজে জানাজা মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার সময় ভোলাহাট রামেশ্বর হাই স্কুল মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। তার জানাজায় দেশের বিভিন্ন জায়গার নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। তাদের মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ -২ আসনের সাবেক এমপি গোলাম মোস্তফা বিশ্বাস, জিয়াউর রহমান, রাজশাহী জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকার, ভোলাহাট উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ আশরাফুল হক চুনু, সাধারণ সম্পাদক ইয়াসিন আলী শাহসহ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার বিভিন্ন উপজেলার নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। তাকে তেলীপাড়া জামে মসজিদ কবরস্থানে দাফন করা হয়। মৃত্যকালীন তার বয়স হয়েছিল প্রায় ৭০ বছর। মৃত্যকালে স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তিনি ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার রাত ৮ টা ৫০ মিনিটের সময় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ভোলাহাট উপজেলায় আওয়ামীলীগের দূর্দিনের কান্ডারি ওয়াজেদ আলী শক্ত হাতে হাল ধরেছিলেন আওয়ামীলীগের। সে সময় তিনি সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি একজন সংগ্রামী পরিশ্রমী ও স্পষ্ট ভাষি নেতা ছিলেন। বাস্তবতায় তিনি সব সময় ছিলেন অনড়। তিনি দলের জন্য সব সময় নিরলস ভাবে কাজ করে গেছেন। তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন ভোলাহাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সকল স্তরের নেতাকর্মী ও সমর্থকেরা। সেই সাথে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। এদিকে ভোলাহাট প্রেসক্লাব ,ভোলাহাট সংবাদ ও ভোলাহাট চিত্র পরিবার তার মৃত্যুতে গভীরভাবে শোকাহত ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

সোনামসজিদ বন্দরের ওপারে আটকেপড়া পিঁয়াজও ফিরিয়ে নিচ্ছে ভারত

শিবগঞ্জ(চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি:
দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম সোনামসজিদ স্থল বন্দর দিয়েও আকশ্মিকভাবে সোমবার বিকেল থেকে পিঁয়াজ রপ্তানী বন্ধ করে দিয়েছে ভারত সরকার। সোমবার নতুন করে কোন আমদানী অর্ডার গ্রহন করেনি দেশটি। উল্টো সোমবারের আগের দেয়া অর্ডার প্রত্যাহার করে ভারতে মাহদীপুর সীমান্তে আটকেপড়া পিঁয়াজের ট্রাক সরিয়ে নিচ্ছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ।এতে করে চাঁপাইনবাবগঞ্জের পিঁয়াজের বাজার অস্থিতিশীল হয়ে পড়েছে।
বিভিন্ন সূত্র জানিয়েছে, অন্যান্য বন্দরের ন্যায় সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে সোমবার বিকেলে পিঁয়াজ রপ্তানী বন্ধ করে দেয়ার চিঠি আসার পরই ভারতীয় পিঁয়াজ আসা বন্ধ হয়ে যায় সোনামসজিদ বন্দরে।
তবে রবিবার ও এর আগের আমদানী অর্ডারের বিপরীতে ৪৪ টি পেঁয়াজের ট্রাক ভারত থেকে সোনামসজিদ বন্দর দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। সোমবার নতুন করে কোন আমদানী অর্ডার ভারত গ্রহন না করে উল্টো বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় থাকা ৭০টি পিয়াঁজের ট্রাক সীমান্ত থেকে তাদের দেশের অভ্যান্তরে ফিরিয়ে দিয়েছে দেশটি। ভারতে কয়েকটি স্থানে বন্যা ,পিঁয়াজ উৎপাদন হওয়া অঞ্চল তলিয়ে যাওয়া ও অতিবৃষ্টির কারনে নিজ দেশে পিঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ায় ভারত সরকার হঠাৎ করে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে ভারতীয় রপ্তানীকারকদের উদৃতি দিয়ে আমদানী কারকরা জানান, এ অবস্থা চলতে থাকলে দেশীয় বাজার অস্থিতিশীল হয়ে পড়বে।তাই বাজার স্থিতিশীল রাখতে দ্রুত বিকল্প দেশ থেকে পিঁয়াজ আমদানী করতে হবে।
এদিকে সোনামসজিদ পানামা পোট লিংক লিমিটেডের পোর্ট ম্যানেজার মো: মাইনুল ইসলাম ভারতীয় সিএ্যান্ড এফ এজেন্ট ওয়েলফেয়ার সাধারন সম্পাদক শ্রী ভ’পতি মন্ডলের উদৃতি দিয়ে জানান, ভারতীয় অংশে সোমবার বিকেল পর্যন্ত ৭০টি পিঁয়াজের ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশের জন্য অপেক্ষা করলেও সন্ধ্যায় ৫০টি এবং মঙ্গলবার বাকী ট্রাকগুলো সরিয়ে ফেলেছে। এতে করে বাংলাদেশে আর কোন পেঁয়াজের ট্রাক প্রবেশের সম্ভাবনা নাই।
এ ব্যাপারে ইসলাম জানান, তার সীমান্তে ৩শ টন পিয়াঁজ আটকে থাকলেও সেগুলো ভারত সরকার ফিরিয়ে নিচ্ছে।এতে করে তার মত আমদানীকারকরা ক্ষতির মুখে পড়তে যাচ্ছেন।তিনি দাবী করেন,রবিবার বা তার আগের অর্ডার দেয়া পিঁয়াজের ট্রাকগুলো ছাড় দেয়া হোক।
এদিকে জেলার কয়েকটি বাজারে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বর্তমানে পাইকারী আড়ৎগুলোতে সবধরনের পিঁয়াজের দাম ৫-১০ টাকা করে বেড়ে গেছে।ফলে খুচরা বাজারগুলোতে রকম ভেদে ৪০ টাকা থেকে ৫০ টাকায় পিঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে।

পেঁয়াজের আগুন নেভাতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রশাসনের মজুদ রোধে সভা ॥ জেলা প্রশাসনের হুশিয়ারী


চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ হঠাৎ করেই চাঁপাইনবাবগঞ্জে পেঁয়াজের বাজারে অতিরিক্ত দাম হওয়ায় ক্রেতা সাধারন বিপাকে পড়েছেন। ২৫ থেকে ৩০ টাকার পেঁয়াজ ৫০, ৬০ থেকে ৭০ টাকা। ফলে পেঁয়াজের বাজারে গিয়ে রীতিমত হীমসীম খাচ্ছেন ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষ। এরই প্রেক্ষিতে চাঁপাইনবাবগঞ্জের বাজারে পেঁয়াজসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিষপত্রের অবৈধ মজুদ রোধ এবং সরবরাহ নিশ্চিত করার লক্ষে মতবিনিময় সভা করেছে জেলা প্রশাসন। সোমবার বিকেলে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে বানিজ্য মন্ত্রণালয় ও জেলা প্রশাসনের যৌথ আয়োজনে সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক এ জেড এম নূরুল হক। সভায় অংশ নেন বানিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব আবুল কালাম আজাদ, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্টেট জাকিউল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফজল-ই-খুদা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ চেম্বার সভাপতি ও এরফান গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ¦ মো. এরফান আলী, জেলা মার্কেটিং অফিসার নুরুল ইসলাম, সোনামসজিদ স্থলবন্দর কর্মকর্তা, আমদানী-রপ্তানীকারক, বিভিন্ন ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দসহ সংশ্লিষ্টরা। সভায় পেঁয়াজ অবৈধভাবে মজুদ না করার জন্য সকল ব্যবসায়ীর প্রতি আহবান জানানো হয়। সভায় জানানো হয়, বাজারে পেঁয়াজের যথেষ্ট মজুদ রয়েছে। প্রয়োজনে জেলায় টিসিবি’র মাধ্যমে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করা হবে। সভায় জানানো হয়, বেআইনিভাবে মজুদের বিষয়ে জেলা প্রশাসন কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য অবৈধভাবে মৌজুদ করে বাজারে অস্থিশিল পরিস্থিতি সৃষ্টি করা হলে, প্রয়োজনে ভ্রাম্যামাণ আদালতের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ ও কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা নেয়া হবে।
উল্লেখ্য, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সম্প্রতি বিপুল পরিমান ধান মৌজুদ করার অপরাধে কয়েকটি মৌজুদদারী প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা ও কারাদন্ড দেয়া হয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে জেলা কৃষকলীগের উদ্দোগে বৃক্ষ রোপন


চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্বানে সারাদেশে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির অংশ হিসেবে মঙ্গলবার সকালে সমাপনী দিনে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফলজ ও বনজ গাছের চারা রোপন করা হয়েছ। সকালে শহরের স্বরুপনগরস্থ বীরবিক্রম শহীদ মোহর আলি উচ্চ বিদ্যালয় ও জেলা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় চত্বরে বিভিন্ন প্রজাতির গাছের চারা রোপন করা হয়। জেলা কৃষকলীগের উদ্দোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে গাছের চারা রোপন করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব রুহুল আমিন, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি এ্যাড আব্দুস সামাদ বকুল ও সহ-সভাপতি জেলা পরিষদ সদস্য আব্দুল হাকিমের উপস্থিতিতে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এসব ফলজ ও বনজ গাছের চারা রোপন করা হয়। এসময় সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকবৃন্দ ছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন পৌর আওয়ামীলীগের ত্রান বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, হাবিবুর রহমান পিন্টু, জেলা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হারুনুর রশীদ সহ আওয়ামীলীগ, যুবলীগ নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। জেলা কৃষকলীগ সভাপতি এ্যাড আব্দুস সামাদ বকুল জানান জেলার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ৫ শতাধিক গাছ রোপণ করা হয়।

Rohingya crisis can frustrate hope for regional peace, stability if not solved: Momen


Dhaka fears that Rohingya crisis can frustrate the hope for regional peace and stability if the issue is not resolved at the earliest.

“Our fear is that, if this problem is not resolved quickly, it may lead to pockets of radicalism and since terrorists have no borders, no faith, there’s a high possibility of uncertainty which may frustrate our hope for a peaceful, secure and stable region,” Foreign Minister AK Abdul Momen said at the 27th ASEAN Regional Forum (ARF) held virtually today.

He said Bangladesh sheltered some 1.1 million Rohingyas on humanitarian grounds despite the threat to the country’s economy, ecology and societal impacts, and is keen on solving the crisis through constructive diplomacy with good neighbourly spirit.

Bangladesh signed 3 instruments with Myanmar for repatriation of the Rohingyas considering it a friend and Myanmar also agreed to take them back and create a conducive environment for their voluntary repatriation, safety and security, the minister said.

“But unfortunately, none went back till now, and instead of creating a conducive environment, fighting and shelling is ongoing in the Rakhaine state.”

বরিশাল কর ভবনে আগুনে আহত এক কমিশনার

বরিশাল কর ভবনের দ্বিতীয় তলার একটি অফিস কক্ষে আগুন লেগেছে। বৈদ্যুতিক গোলযোগ থেকে সৃষ্ট এই আগুনে আহত হয়েছেন অতিরিক্ত কর কমিশনার শাওন চৌধুরী। এছাড়া কম্পিউটারসহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথি পুড়েছে বলে জানা গেছে।

সোমবার রাত ২টা ৫২ মিনিটে নগরীর ক্লাব রোডস্থ কর ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

বরিশাল ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারি পরিচালক ফারুক হোসেন শিকদার বলেন, ‘কর ভবন সংলগ্ন রেন্ট এ কার এর শ্রমিকদের কাছ থেকে তারা অগ্নিকাণ্ডের খবর পান। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে আধা ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।’

আগুনের ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ তাৎক্ষনিকভাবে জানাতে না পারলেও প্রাথমিকভাবে বৈদ্যুতিক গোলযোগের কারণে অগ্নিকাণ্ড ঘটেছে বলে ধারণা করছে ফায়ার সার্ভিস।

তবে সূত্র জানিয়েছে, আগুনে কর ভবনের দোতলার তথ্য ও সেবা কেন্দ্রের তিনটি এসি, তিনটি কম্পিউটার, দুটি আলমিরা, কিছু ফাইল ও কাগজপত্র এবং অফিসের ডেকোরেশন পুড়ে যায়। এছাড়াও আগুনের অতিরিক্ত ধোয়ায় অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন অতিরিক্ত কর কমিশনার শাওন চৌধুরী।

এ ব্যাপারে উপ-কর কমিশনার মো. মঞ্জুর রহমান বলেন, ‘ওই ভবনের চারতলার ডরমেটরিতে থাকতেন অতিরিক্ত-কর কমিশনার শাওন চৌধুরী। তিনি ধোয়ায় অসুস্থ হয়ে পড়েন। রাতেই তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।’

যুগ্ম কমিশনার লুৎফর রহমান জানান, ‘বৈদ্যুতিক গোলযোগের কারণে অগ্নিকাণ্ড হয়ে থাকতে পারে।’

শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. বাকির হোসেন জানান, ‘অতিরিক্ত কর কমিশনার শাওন চৌধুরীর চিকিৎসা চলছে। তার শরীরের কোথাও পুড়েনি, তবে ধোয়ায় তার কি ক্ষতি হয়েছে পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়া তা নিশ্চিত করা যাচ্ছে না।’

এবার নবেলের জন্য মনোনীত বাংলাদেশি ড. রুহুল আবিদ


নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মার্কিনি অধ্যাপক ড. রুহুল আবিদ এবং তার অলাভজনক সংস্থা হেলথ অ্যাণ্ড এডুকেশন ফর অল (হায়েফা)। ২০২০ সালের নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত ২১১ ব্যক্তির মধ্যে তিনি একজন।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ব্রাউন বিশ্ববিদ্যালয়ের আলপার্ট মেডিকেল স্কুলের অধ্যাপক ড. রুহুল আবিদ এবং তার অলাভজনক সংস্থা হেলথ অ্যান্ড এডুকেশন ফর অল (হায়েফা) নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন।

ম্যাসাচুসেটস বোস্টন বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক জিন-ফিলিপ বেলিউ এই খবর নিশ্চিত করেছেন।

২০২০ সালের নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত ২১১ ব্যক্তির মধ্যে ড. আবিদ একজন।

ড. আবিদ ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে স্নাতক এবং জাপানের নাগোয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মোলিকুলার বায়োলজি ও জৈব রসায়নে পিএইচডি অর্জন করেছেন। পরে তিনি ২০০১ সালে হার্ভার্ড মেডিকেল স্কুল থেকে ফেলোশিপ সম্পন্ন করেন। তিনি ব্রাউন গ্লোবাল হেলথ ইনিশিয়েটিভের একজন নির্বাহী সদস্যও।

তার অলাভজনক সংস্থা হায়েফা বাংলাদেশের সুবিধাবঞ্চিতদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা দিয়ে আসছে। গত তিন বছরে এই প্রতিষ্ঠানটি প্রায় ৩০ হাজার পোশাক শ্রমিককে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা দিয়েছে।

প্রায় ৯ হাজার সুবিধাবঞ্চিত নারী ও পোশাক শ্রমিককে জরায়ু ক্যানসার স্ক্রিনিং ও চিকিৎসা এবং কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরের দেড় হাজারেরও বেশি মানুষকে বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা দিয়েছে।

বর্তমানে সংস্থাটি দুটি রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরে করোনা সংক্রমণরোধে দক্ষতার প্রশিক্ষণ দিচ্ছে।

২০১৩ সালে রানা প্লাজা ধসের পর ড. আবিদ সারাদেশে তৈরি পোশাক শ্রমিকদের স্বাস্থ্যসেবা দিতে হায়েফা প্রতিষ্ঠা করেন। সে সময় হার্ভার্ড মেডিকেল স্কুলের ডা. রোজমেরি দুদার সঙ্গে তিনি ঢাকা, গাজীপুর এবং শ্রীপুরের তিনটি কারখানায় পোশাককর্মীদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করেন।

ডা. আবিদ তার প্রতিষ্ঠান থেকে কাজের জন্য কোনো বেতন বা পারিতোষিক নেন না।

নোবেল পুরস্কার ওয়েবসাইটের তথ্যমতে, ২০২০ সালের পুরস্কারের জন্য মনোনীতদের মধ্য থেকে আগামী অক্টোবরে বিজয়ী ঘোষণা করা হবে।

২০০৬ সালে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন ড. মুহাম্মদ ইউনূস ও গ্রামীণ ব্যাংক।

বিয়ে গোপন করে পোষ্য কোটায় চাকুরি করার অভিযোগ এক শিক্ষিকার বিরুদ্ধে

শিবগঞ্জ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি:
শিবগঞ্জ উপজেলার আট রশিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মোসা সাবিনা ইয়াসমিন মিথ্যা তথ্য দিয়ে পোষ্য সনদে চাকরি করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক, জেলা শিক্ষা অফিসারসহ বিভিন্ন দপ্তরে এ নিয়ে একটি অভিযোগপত্র দিয়েছেন তারই সাবেক স্বামী মোঃ আব্দুল খালেক। অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, ২০১৩সালের ৮ডিসেম্বর মোসাঃ সাবিনা ইয়াসমিন আজমতপুর চাকপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পোষ্য কোটায় চাকরিতে যোগদান করেন। কিন্তু সাবিনা ইয়াসমিনের বিয়ে হয় ২০০৬ সালের ২২জানুয়ারি। এদিকে সাবিনা ইয়াসমিনের পূর্বের বিয়ের কথা জানতে পেরে তৎকালীন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ আব্দুস সাত্তার তার পোষ্য কোটায় নিয়োগপত্রটি বাতিলের সিদ্ধান্ত নেন। এ সময় সাবিনা ইয়াসমিন তার প্রথম বিয়ের কাবিননামা জালিয়াতি করে বিয়ের তারিখ দেখান ২০১৩ সালের ২৬ অক্টোবর এবং সেই নিকাহনামা জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে জমা দিয়ে নিয়োগপত্র গ্রহণ করে স্কুলে যোগদান করেন। এরপর ২০১৯ সালের ১ সেপ্টেম্বর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে লিখিতভাবে অভিযোগ করেন সাবিনা ইয়াসমিনের সাবেক স্বামী মোঃ আব্দুল খালেক। কিন্তু প্রায় একবছরেও কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় আবারও গত ৭ সেপ্টেম্বর প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক, জেলা শিক্ষা অফিসারসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করা হয়। অভিযোগ রয়েছে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসকে ম্যানেজ করে আগের অভিযোগপত্রটি ধামাচাপা দেয়া হয়েছে।
এব্যাপারে সাবিনা ইয়াসমিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি তার বিয়ের কথা স্বীকার করে জানান, ২০০৬ সালে তিনি যখন ছোট ছিলেন তখন তার বিয়ে হয়। পরে ওই স্বামীকে তালাক দিয়ে আবারও ২০১৩ সালে তার সাথেই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। কিন্তু পরবর্তীতে তিনি মোঃ আব্দুল খালেকের সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে তাকে বিয়ে করেন এবং একবছর আগে বিয়ের প্রায় দুই মাস পর তাকে তালাক দেন। তিনি আরও বলেন, আব্দুল খালেকের আগের পক্ষের স্ত্রী ও সন্তান থাকার কথা জানতে পেরেই তিনি তাকে তালাক প্রদান করেন। কিন্তু আব্দুল খালেক আবার তাকে বিয়ের জন্য চাপ দেয়ায় এবং এতে তিনি সম্মতি না জানানোয় এ ধরনের অভিযোগ দিয়ে তার ক্ষতি করার চেষ্টা করছে।
এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো: আসাদুজ্জামান জানান, তিনি এ ধরনের একটি অভিযোগ মহাপরিচালক বরাবরে দেয়া হয়েছে বলে শুনেছেন।তবে অধিদপ্তর থেকে তাদের তদন্তের নির্দেশ দিলে বিষয়টি তিনি তখন তদন্ত করে দেখবেন।

শিবগঞ্জে র‌্যাবের অভিযানে ৪ হাজার ৭’শ পিস ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার এক

নিজস্ব প্রতিবেদক, চাঁপাইনবাবগঞ্জ : র‌্যাব-৫, রাজশাহীর সিপিসি-১, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়ে ৪ হাজার ৭০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ একজন শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে। এ সময় নগদ ২ হাজার ৫০০ টাকাও জব্দ করা হয়। 
গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তি হচ্ছে, শিবগঞ্জ উপজেলার খাসেরহাট ইউনিয়নের কালীগঞ্জ ইসমাইল বিশ্বাসটোলা এলাকার মৃত নাসরিন বেগম ও মৃত রফিকুল ইসলামের ছেলে মো. জেনারুল ইসলাম (২০)।
প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সোববার দিবাগত রাত ২ টার দিকে র‌্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শিবগঞ্জের মুসলীমপুর বাজার থেকে শান্তিমোড় বাজারগামী নলডুবি হঠাৎ পাড়া গ্রামের মুনসুর আলী মন্ডলের বাড়ীর সামনে পাঁকা রাস্তার উপর অভিযান চালানো হয়।
অভিযানে জেনারুলকে ৪ হাজার ৭০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ হাতেনাতে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় র‌্যাব। ১৪ সেপ্টেম্বর রাত ১১ টার দিকে অভিযানটি চালানো হয়।
র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে বিভিন্ন ধরনের মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। এ ঘটনায় শিবগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়।
উল্লেখ্য, চাঁপাইনবাবগঞ্জ একটি সীমান্তবর্তী জেলা হয়ায় এ জেলার সীমান্ত এলাকা দিয়ে বেশিরভাগ মাদকদ্রব্য  বাংলাদেশে প্রবেশ করে। আর এই সকল মাদকদ্রব্য কিছু প্রসিদ্ধ মাদক ব্যবসায়ী বিভিন্ন উপায়ে ও কৌশলে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে পাচার করে থাকে। সমাজে মাদকের ভয়াল থাবার বিস্তার রোধকল্পে এ সকল মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেপ্তারসহ মাদক বিরোধী অভিযানে র‌্যাব সর্বদা সক্রিয় ভূমিকা পালন করে আসছে।