সর্বশেষ সংবাদ সিলেট ও খাগড়াছড়িতে গণধর্ষণের প্রতিবাদে জেলা ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে ফুলেল শুভেচ্ছা মোদির, চীনের অভিনন্দন বার্তা আবারো বাড়ছে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ! শেখ হাসিনার নেতৃত্ব বিশ্বে প্রশংসিত চাঁপাইনবাবগঞ্জে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল নাচোলে আ’লীগের পৃথক পৃথক ভাবে প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪ তম জন্ম বার্ষিকী পালিত অবিশ্বাস্য কর্মযজ্ঞ:বদলে গেছে মানুষের জীবন তিস্তার ১১৩ কিলোমিটার খননের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার শ্যামপুরে অসহায় বৃদ্ধাকে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের রান্না ঘর প্রদান গোমস্তাপুরে অসামাজিক কার্যকলাপ বন্ধের দাবিতে মানব বন্ধন

নাচোলে উগ্রবাদী লিফলেটসহ জেএমবি’র ২ সদস্য আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক
চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার শ্রীরামপুর এলাকা থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠন জামায়াতুল মোজাহেদীন (জেমমবি)’র ২ জন সক্রিয় সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব। আটককৃতরা হচ্ছে শ্রীরামপুরে ফজর আলী মন্ডলের ছেলে কামাল উদ্দিন (৫০) ও কামাল উদ্দিনের ছেলে রুবেল আহমেদ রুবেল (২৬)।
এ সময় ৩ টি উগ্রবাদী বই, ৩৯ টি উগ্রবাদী লিফলেট ও একটি চাঁদা আদায়ের রশিদ উদ্ধার করে র‌্যাব।
বুধবার রাত 10 টার দিকে র্যাব এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করলেও একই দিন ভোর ৪ টার দিকে তাদের আটক করা হয়।
র‌্যাব জানায়, র‌্যাব-৫ রাজশাহীর একটি দল নাচোল উপজেলার শ্রীরামপুর এলাকায় অভিযান চালায়। অভিযানে উগ্রবাদী বই, লিফলেট ও একটি চাঁদা আদায়ের রশিদসহ জেএমবি’র ২ জন সক্রিয় সদস্যকে আটক করে।
এ ঘটনায় নাচোল থানায় একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে রাইস মিলে ধান গুদামজাত করার অপরাধে জেল জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক : চাঁপাইনবাবগঞ্জে র‌্যাব-৫ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে মের্সাস সাব্বির রাইস মিলসকে ধান গুদামজাত করার অপরাধে একমাস বিনাশ্রম কারাদন্ড এবং ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১৫ দিন বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়।
বুধবার (০৯ সেপ্টেম্বর)  বিকেল 4 টা থেকে 2ঘন্টা ব্যাপি অভিযান চালিয়ে এ অাদেশ দেয় ভ্রাম্যমান অাদালত।রাত 9 টার দিকে র্যাবের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি তে জানানো হয়, সিপিসি-১ চাঁপাইনবাবগঞ্জ র‌্যাব-৫ রাজশাহীর একটি আভিযানিক দল  এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আশরাফুল হক এর উপস্থিতিত্বে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার সদর থানার আমনুরা রোডে আতাহর মোড় এলাকায় মের্সাস সাব্বির রাইস মিলে  ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা   করা  হলে  ধান গুদামজাত  করার সত্যতা মেলায়   ধান গুদামজাত করার অপরাধে অত্যবশকীয় পন্য নিয়ন্ত্রন আইন-১৯৫৬ এর ০৩ ধারা লঙ্ঘন করার জন্য আতাহর গ্রামের  মোঃ নজরুল ইসলামের ছেলে মিল মালিক মোঃ শহিদ (২৮) কে ০১ মাস বিনাশ্রম কারাদন্ড এবং ৫,০০,০০০/- (পাঁচ লক্ষ) টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১৫ দিন বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়। পরে জরিমানাকৃত টাকা সরকারী কোষাগারে জমা করা হয়।

বগুড়া সহ পাঁচ জেলায় হবে লাইট শিল্পপার্ক

ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, যশোর, বগুড়া ও নরসিংদী এই পাঁচ জেলায় বিশেষায়িত লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্পপার্ক স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। শিল্পপার্কগুলোতে স্থাপিত শিল্প-কারখানার জন্য দক্ষ জনবলের জোগান নিশ্চিত করতে একই সঙ্গে লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং ট্রেনিং ইনস্টিটিউট স্থাপন এবং বিশ্বমানের প্রশিক্ষক ও প্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটগুলোতে দেশীয় জনবলের দক্ষতা বৃদ্ধির উদ্যোগ থাকবে।
গতকাল শিল্প মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্পের বিকাশে শিল্প মন্ত্রণালয় চিহ্নিত কার্যক্রমসমূহ বাস্তবায়নে করণীয় নির্ধারণে এই সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন শিল্পসচিব কে এম আলী আজম। সভায় মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. হেলাল উদ্দিন এনডিসি হালকা প্রকৌশল শিল্প খাত বিকাশে প্রণীত সুপারিশ তুলে ধরেন। সভায় জানানো হয়, হালকা প্রকৌশল শিল্পের বিকাশে শিল্প মন্ত্রণালয় ইতিমধ্যে লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্প নীতিমালা প্রণয়নের কাজ শুরু করেছে। সংশ্লিষ্ট অংশীজনদের সঙ্গে আলোচনা করে এটি চূড়ান্ত করা হবে। পাশাপাশি এ খাতের উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্য বিপণন নিশ্চিত করতে সাব কন্ট্রাকটিং আইন প্রণয়নের উদ্যোগ নেওয়া হবে। এ লক্ষ্যে বিসিককে দ্রুত আইনের খসড়া প্রণয়নের নির্দেশনা দেওয়া হয়। আইন প্রণয়নের আগ পর্যন্ত সাব-কন্ট্রাকটিং বিধিমালার আওতায় উদ্যোক্তাদের পণ্য বিক্রয়ের সুযোগ বাড়াতে জাতীয় শিল্পনীতিতে বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সভায় অংশ নেন এসএমই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সফিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ চেম্বার অব ইন্ডাস্ট্রিজের (বিসিআই) সভাপতি আনোয়ারুল আলম চৌধুরী (পারভেজ), বিসিক পরিচালক ড. মোহা. আবদুস ছালাম, শিল্প মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মো. সেলিম উদ্দিন, বাংলাদেশ লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্প মালিক সমিতির সভাপতি মো. আবদুর রাজ্জাক প্রমুখ।

র‌্যাবের দায়েরকৃত মাদকের মামলায় শিবগঞ্জ ছাত্রলীগ নেতা তোতা কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি সাইফ আলী তোতাকে মাদকের একটি মামলায় কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। তিনি শিবগঞ্জ উপজেলার উজিরপুর এলাকার মৃত কলিমুদ্দিনের ছেলে।

বুধবার (৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ চীফ জুটিশিয়াল ম্যজিস্ট্রেট আদালতের আমলী আদালত ‘‘ক” অঞ্চলের বিচারক মো. এরশাদ আলী তোতাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

জানা গেছে- সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) সদর উপজেলার দ্বারিয়াপুর হাতাপাড়া দোতালা মসজিদ সংলগ্ন এলাকা হতে ১৩ কেজি ১’শ গ্রাম গাঁজাসহ চারজনকে আটক করে র‌্যাব-৫ চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের সদস্যরা।

এ ঘটনায় ওইদিন রাতে র‌্যাবের পক্ষ হতে পুলিশ পরিদর্শক জহুরুল হক বাদি হয়ে সাইফ আলী তোতাসহ পাঁচজনকে আসামি করে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং- ১২/৫০৪।

আসামী পক্ষের আইনজীবি নুরে আলম সিদ্দিকী আসাদ জানান, বুধবার দুপুর ১২টার দিকে তোতা আত্মসমর্পণ করলে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানের আদেশ দেন।

এদিকে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আসিফ আহসান , সাইফ আলী তোতা কমিটির সহসভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন বলে নিশ্চিত করেন

মুজিববর্ষে এক’শ ভিক্ষক কে পুনর্বাসন

নিজস্ব প্রতিবেদক
মুজিববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১০০ ভিক্ষুককে পুনর্বাসন করা হবে। আজ বুধবার সদর উপজেলার তালিকাভুক্ত ভিক্ষুকের সম্ভাবনা যাচাই ও পুনর্বাসন উপলক্ষে দিনব্যাপী কর্মশালায় এ তথ্য জানানো হয়। সদর উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এ.কে.এম. তাজকির-উজ-জামান।
কর্মশালায় আরো উপস্থিত ছিলেন, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাজমুল ইসলাম সরকার, জেলা মহিলা বিষয়ক উপপরিচালক সাহিদা আক্তার, প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক হাসিব হোসেন, সদর উপজেলা সমাজসেবা অফিসার নাছির উদ্দিন, শিবগঞ্জ উপজেলা সমাজসেবা অফিসার কাঞ্চন কুমার দাস, ব্র্যাকের চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা সমন্বয়ক মোমেনা খাতুনসহ অন্যরা।
সদর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে অনুষ্ঠিত এই কর্মশালায় প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটি ও ব্র্যাকের অন্য প্রতিনিধিরা অংশ নেন। কর্মশালায় প্রয়াসের মৎস্য, প্রাণিসম্পদ ও কৃষি ইউনিটের কর্যক্রম নিয়ে ৪টি ডকুমেন্টারি প্রজেক্টরের মাধ্যমে দেখানো হয়।
কর্মশালায় জানানো হয়, জেলার ৪৫টি ইউনিয়ন ও ৪টি পৌরসভায় মোট ১০০ জন ভিক্ষুককে নির্বাচিত করে তাদের পুনর্বাসন করা হবে।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এ.কে.এম তাজকির-উজ-জামান বলেন, সরকার চাই আপনারা উন্নতির দিকে এগিয়ে যান। নিজেদের উদ্যোগে গরু পালন করা, ছাগল কিংবা হাঁস-মুরগি পালন করা, বিভিন্ন ধরনের কাজ করা।
তিনি আরো জানান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আমারা চাঁপাইনবাবগঞ্জে আপনাদের মতো এইরকম ১০০ জনকে চাই। যারা আমাদের এই সাহায্য-সহযোগিতা নিয়ে নিজের ভাগ্য পরিবর্তনের চেষ্টা করবেন। আপনারা করতে পারলে, যত রকমের সহযোগিতা আপনাদের লাগবে আমরা করতে রাজি আছি। কিন্তু আপনাকে এগিয়ে আসতে হবে।

HC orders to pay 37 N’ganj mosque blast burn victims Tk 5 lakh each

The High Court on Wednesday directed Titas Gas Transmission and Distribution Company to provide Tk 5 lakh compensation each to the families of 37 burn victims for now.

Narayanganj Deputy Commissioner (DC) will hand over the money to the victims’ families within seven days.

The High Court bench of Justice JBM Hassan and Justice Md Khairul Alam passed the order after hearing a writ petition in this regard.

A resident of Narayanganj and Supreme Court lawyer Barrister Mar-e-am Khandakar filed the writ on Monday.

The court also issued a rule asking authorities concerned to explain why they should not be directed to pay Tk 50 lakh compensation each to the 37 families.

Power, energy and mineral resources secretary, home secretary, Narayanganj mayor, Titas Gas managing director, RAJUK, DPDC, Narayanganj DC, SP and mosque committee members were asked to respond to the rule within four weeks.

At least 37 people suffered severe burn injuries in an explosion at Pashchim Talla Baitus Salah Mosque in Narayanganj after Esha prayers around 8.45 pm on Friday (September 4).

A total of 28 of the burn victims died till Wednesday while eight others, who are in critical condition, are now undergoing treatment at the Sheikh Hasina National Institute of Burn and Plastic Surgery in Dhaka Medical College Hospital.

Meanwhile, On September 7, Titas Gas has suspended four of its officials and 4 staff members for negligence of duty.

It has been widely reported that some Titas officials were informed about a leakage of the gas pipeline lying underneath the mosque but took no action to repair it.

Highest ceilings of HSC admission fees fixed by Inter-Education Board Coordination Subcommittee

The Inter-Education Board Coordination Subcommittee has set the highest ceilings for HSC admission fees.

The top ceiling fixed for the colleges of Dhaka Metropolitan areas at Tk 5,000, other metropolitan cities Tk 3,000, district twon Tk 2,000 and upazila level Tk 1,000.

The Inter-Education Board on Monday issued an order asking colleges to publish lists of the admissible students on noticeboard and website.

Students have to be admitted into colleges from September 13 to 17 after completing all procedures, it said. The web address for college admission is: (www.xiclassadmission.gov.bd).

All the education boards have arranged class eleven admission programme via online this year.

The board committee asked the educational institutions to follow the guideline properly.

There are 25 lakh seats in 7,474 government and private colleges across the country. The number of students passed the Secondary School Certificate (SSC) and equivalent exams is 16,90,523.

10 killed as trawler capsizes in Netrakona

At least 10 people were killed as a trawler capsized in the Gumai River of Kamla Kanda in Netrakona on Wednesday morning.

The trawler capsized after being hit by a sand-laden boat around 11 am.

The identity of the deceased could not be known immediately.

Kamla Kanda Police Station OC (officer in charge) Mazharul Karim confirmed the matter to Banglanews.

Fire service diving unit started rescue operation and recovered the bodies, the OC said.

অভিনেতা কে এস ফিরোজ আর নেই:তার মৃত্যুতে শোকাহত ‘ইত্যাদি’

বিনোদন প্রতিবেদক

না ফেরার দেশে চলে গেলেন বর্ষীয়ান অভিনেতা কে এস ফিরোজ। আজ বুধবার সকাল ৬টা ২০ মিনিটে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন বাংলা নাটক ও সিনেমার জনপ্রিয় এই মুখ। টেলিভিশন ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’র মাধ্যমে এই গুণী অভিনেতা জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন। তার মৃত্যুতে শোকাহত পুরা শোবিজ মহল।

বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচারিত ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানটির শুরুর দিক থেকে অভিনয় করেছিলেন কে এস ফিরোজ। তার এমন চলে যাওয়া মেনে নিতে কষ্ট হচ্ছে বলে জানান ‘ইত্যাদি’র উপস্থাপক, পরিচালক, লেখক ও প্রযোজক হানিফ সংকেত।

হানিফ সংকেত বলেন, ফিরোজ ভাই হঠাৎ করেই চলে গেলেন। এই শুনলাম তিনি অসুস্থ, সকালে উঠেই শুনি তিনি নেই। তার এই চলে যাওয়া মেনে নিতে কষ্ট হচ্ছে। আমাদের পুরো ‘ইত্যাদি’ পরিবার শোকাহত। আশির দশক থেকে আমাদের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন ফিরোজ ভাই। তাঁকে ডাকলেই পাওয়া যেত। ফিরোজ ভাই আর ‘ইত্যাদি’ করবেন না, মানতে কষ্ট হচ্ছে।

হানিফ সংকেত পরিচালিত প্রায় সব নাটকেই দেখা গেছে কে এস ফিরোজকে। এ প্রসঙ্গে হানিফ সংকেত বলেন, ‘মারা যাওয়ার পর সবাই গতানুগতিকভাবে বলে, ভালো মানুষ ছিলেন। সে জন্য বলছি না, তিনি আসলেই একজন গুণী মানুষ ছিলেন। তাঁকে শুটিংয়ে ৯টায় ডাকলে তিনি ১০ মিনিট আগে এসে বসে থাকতেন। যাওয়ার জন্য তাড়া দিতেন না। দিনে হয়তো তার তিন মিনিটের শুটিং আছে, তিনি কল টাইমে এসে বসে থাকতেন। বলতেন, আমার তাড়া নেই; যখন সুবিধা হয় আমার অংশের শুট করবেন।’

অভিনেতা কে এস ফিরোজকে তার শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী বুধবার বাদ জোহর বনানী সেনানিবাস কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে জানা গেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অভিনয় শিল্পী সংঘের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব নাসিম।

তিনি জানিয়েছেন, ‘ফিরোজ ভাই নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে করোনার আগে সিএমএইচে ভর্তি ছিলেন। তখন সুস্থ হয়ে বাসায় ও ফিরে যান। গত তিনদিন আগে আবারও এ সমস্যায় ভুগে সিএমএইচে ভর্তি হন। আজকে সকালে না ফেরার দেশে চলে যান।’

কে এস ফিরোজের অভিনয় জীবনের শুরুটা হয়েছিল মঞ্চনাটক দিয়ে। নাট্যদল ‘থিয়েটার’-এর সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়ে অভিনয় শুরু করেন তিনি। টিভিপর্দায় প্রথম অভিনয় করেন ফখরুজ্জামানের রচনা ও জামান আলী খানের প্রযোজনায় ‘দীপ তবুও জ্বলে’ নাটকে। টেলিভিশনে কে এস ফিরোজের প্রথম আলোচিত নাটক জিয়া আনসারী প্রযোজিত ‘প্রতিশ্রুতি’।

বাংলা নাটকের পাশাপাশি চলচ্চিত্রেও ছিল কে এস ফিরোজের উল্লেখযোগ্য উপস্থিতি। কে এস ফিরোজ অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র ‘লাওয়ারিশ’। কে এস ফিরোজ ১৯৬৭ সালে সেনাবাহিনীতে কমিশন পদে চাকরি শুরু করেন। ১৯৭৭ সালে মেজর পদে চাকরি থেকে অব্যাহতি নেন।

করোনা: অক্সফোর্ডের টিকার চূড়ান্ত ট্রায়াল স্থগিত

অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি এবং অ্যাস্ট্রাজেনেকা কোম্পানির যৌথ উদ্যোগে তৈরি করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়েছে। ব্রিটেনে এ ট্রায়ালে একজন অংশগ্রহণকারীর মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হওয়ার পরে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। বিবিসি বলছে, ব্রিটিশ-সুইডিশ ওষুধ প্রস্ততকারক কোম্পানি অ্যাস্ট্রাজেনেকা এটিকে একটি ‘অব্যক্ত অস্বস্তি’ বিষয়ক ‘রুটিন বিরতি’ হিসেবে বর্ণনা করেছে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বলছে, ব্রিটেনে চূড়ান্ত ধাপের ট্রায়ালে অংশগ্রহণকারী একজন স্বেচ্ছাসেবী অসুস্থ হয়ে পড়লে এ স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ। তবে ওই স্বেচ্ছাসেবীর পরিচয় বা কী হয়েছে তা, সে সম্পর্কে জানানো হয়নি।

এ বিষয়ে অ্যাস্ট্রাজেনেকা বলছে, বড় ধরনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে এমন ঘটতেই পারে। খুব শিগগিরই আবার ট্রায়াল শুরু করা হবে আশা করা হচ্ছে।

মহামারি করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিন পরীক্ষার ফলাফল বিশ্বজুড়ে খুব নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। এরমধ্যে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনকে বিশ্বব্যাপী তৈরি কয়েক ডজন ভ্যাকসিনের মধ্যে শক্তিশালী প্রতিযোগী হিসেবে বিবেচনায় রয়েছে।

খুব বেশি আশা ছিল, বাজারে আসা প্রথম পর্যায়ের ভ্যাকসিনগুলোর মধ্যে একটি হতে পারে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন। আর এটা হতে পারে এক থেকে দুইটি পরীক্ষা সফল হওয়ার পরেই।

প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের ট্রায়াল বেশ ভালোভাবেই সম্পন্ন করেছে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন। সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে তৃতীয় ধাপের পরীক্ষায় এ ভ্যাকসিনের পদক্ষেপ যুক্তরাষ্ট্রের পাশাপাশি যুক্তরাজ্য, ব্রাজিল এবং দক্ষিণ আফ্রিকাতে। প্রায় ৩০ হাজার লোককে এতে জড়িত করা হয়েছে।

ভ্যাকসিনগুলোর তৃতীয় ধাপের পরীক্ষায় প্রায়ই হাজার হাজার অংশগ্রহণকারী জড়িত থাকেন। এবং বেশ কয়েক বছর স্থায়ীও হতে পারে যেকোনো ভ্যাকসিনের পরীক্ষা।