সর্বশেষ সংবাদ ১৬ই ডিসেম্বরের মধ্যে রাজাকারদের সম্পূর্ণ তালিকা প্রকাশ আন্তর্জাতিক মানের হচ্ছে মাদ্রাসা শিক্ষা ২৭ জানুয়ারি রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে প্রথম যে টিকা দিবেন এবার ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চার লেন হচ্ছে সোনামসজিদ বন্দর দিয়ে চাল আমদানি ১২১৬ মে.টন চাঁপাইনবাবগঞ্জে স্বেচ্ছাসেবী নারী সংগঠনের উদ্বোধন বিভিন্ন দাবীতে চাঁপাইনবাবগঞ্জে শিক্ষকদের মানববন্ধন চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৫৯ বিজিবি’র ফেন্সিডিল উদ্ধার র‌্যাবের অভিযানে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৯৯৫ ইয়াবা ট্যাবলেটসহ আটক-১ প্রাথমিকে পেনশন নিয়ে সুখবর

ময়মনসিংহে দেশীয় মাছের প্রথম জিন ব্যাংক

ময়মনসিংহে বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের উদ্যোগে এই প্রথম দেশীয় মাছের লাইভ জিন ব্যাংক উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের সদর দফতরের একটি পুকুরে শতাধিক প্রজাতির দেশীয় মাছের লাইভ জিন ব্যাংকের উদ্বোধন করেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট কর্তৃক উদ্ভাবিত উন্নত জাতের কৈ, তেলাপিয়া ও সাদা পাঙ্গাস মাছের জার্মপ্লাজম মৎস্য অধিদফতরের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তরও করেন তিনি। হস্তান্তরিত কৈ মাছ মূল জাতের চেয়ে ১৬%, তেলাপিয়া ৬২% এবং পাঙ্গাশ ১৪% অধিক উৎপাদনশীল। এই তিনটি জাতের চাষাবাদ করা হলে দেশে আরো দুই লাখ ৭৫ হাজার মেট্রিক টন মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে।
অনুষ্ঠানে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী বলেন, দেশের মানুষের পুষ্টি ও আমিষের চাহিদা মিটিয়ে সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মৎস্য খাতকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছে। কোনো পুকুর পতিত রাখা যাবে না। উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় সবাইকে শরিক হতে হবে। বর্তমান সরকার মৎস্য খাতের উন্নয়নের মাধ্যমে বেকারত্ব ও দরিদ্রতা দূর করে সবাইকে স্বাবলম্বী করতে চান। দেশের মৎস্য সম্পদের উন্নয়নের ক্ষেত্রে প্রযুক্তির ব্যবহার অনস্বীকার্য। বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট এ ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অবদান রেখে চলছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, দেশের সর্বাধিক মাছের উৎপাদনের এলাকা হিসেবে আগামীতে জাতীয় পর্যায়ের মৎস্য সপ্তাহ ময়মনসিংহে আয়োজন করা হবে।
বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. ইয়াহিয়া মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন মৎস্য সচিব রওনক মাহমুদ, অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার, মৎস্য অধিদফতরের মহাপরিচালক কাজী শামস আফরোজ। এর আগে মৎস্য মন্ত্রীসহ অতিথিবৃন্দ বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের গবেষণা মাঠ পরিদর্শনকালে বিলুপ্তপ্রায় মহাশোল, সাদা পাঙ্গাশ, তেলাপিয়া, রুই, কাতলাসহ বিপন্ন প্রজাতির বিভিন্ন মাছ এবং বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মৎস্য খামারিদের মধ্যে মাছের পোনা বিতরণ করেন।

৪০ দেশে একসঙ্গে শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপনের উদ্যোগ

জার্মান আওয়ামী লীগের উদ্যোগে অনলাইনে বিশ্বের ৪০টি দেশে একসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ২৮ সেপ্টেম্বরে শেখ হাসিনার জন্মদিনে বাংলাদেশ সময় রাত ১২টা ১ মিনিটে বিশ্বের সব মহাদেশের প্রবাসীরা একসঙ্গে যুক্ত হয়ে যাতে জন্মদিন উদযাপন করতে পারে সে আয়োজন চলছে বলে এক যুক্ত বিবৃতিতে জানিয়েছেন জার্মান আওয়ামী লীগের সভাপতি বসিরুল আলম চৌধুরী সাবু ও সাধারণ সম্পাদক আব্বাস আলী চৌধুরী।

বিবৃতিতে তারা বলেন, ‘জননেত্রী শেখ হাসিনার মেধা-মনন, সততা, নিষ্ঠা, যোগ্যতা, প্রাজ্ঞতা, দক্ষতা, সৃজনশীলতা, উদারমুক্ত গণতান্ত্রিক দৃষ্টিভঙ্গি ও দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে উন্নীত হয়েছে। এক সময়ের কথিত ‘তলাবিহীন ঝুড়ি’ দারিদ্র্য-দুর্ভিক্ষে জর্জরিত যে বাংলাদেশকে অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার সংগ্রাম করতে হয়েছে জননেত্রী শেখ হাসিনার কল্যাণমুখী নেতৃত্বে সেই বাংলাদেশ আজ বিশ্বজয়ের নবতর অভিযাত্রায় এগিয়ে চলছে। বিশ্বসভায় আত্মমর্যাদাশীল জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। একজন সফল রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে তার অবদান আজ আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত। ইতোমধ্যে তিনি শান্তি, গণতন্ত্র, স্বাস্থ্য ও শিশু মৃত্যুর হার হ্রাস, তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার, দারিদ্র্য বিমোচন, উন্নয়ন এবং দেশে দেশে জাতিতে জাতিতে সৌভ্রাতৃত্ব ও সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠার জন্য ভূষিত হয়েছেন অসংখ্য মর্যাদাপূর্ণ পদক, পুরস্কার আর স্বীকৃতিতে। জননেত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার জন্মদিন পালন তার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করার জন্য জার্মান আওয়ামী লীগ, বিশ্বের সকল দেশের প্রবাসী ও আওয়ামী লীগের শাখা ও তাদের সহযোগী সংগঠনদের আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।’

আরেক বিবৃতিতে জার্মান আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক (জুম মিটিংয়ের সঞ্চালক) হাবিবুর রহমান বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর কারণে আজ আমরা প্রবাসে সম্মানের সঙ্গে বসবাস করছি, তার প্রতি প্রবাসীরা চিরকৃতজ্ঞ। তাই আসছে ২৮ সেপ্টেম্বর, সোমবার অর্থাৎ বাংলাদেশ সময় ২৭ শে সেপ্টেম্বর দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে বাংলাদেশ বিশ্বের সবদেশের বাংলাদেশী ভাই ও বোনদের নিজ নিজ মোবাইলে জুম এ্যাপ ডাউনলোড করে প্রস্তুত থাকুন, শীঘ্রই আপনাদের জুম এর মিটিং লিঙ্ক, আইডি ও পাসওয়ার্ড সরবরাহ করা হবে।’

এ কর্মসূচীর সার্বিক সহযোগিতায় থাকবেন ইতালি আওয়ামী লীগ, সুইডেন আওয়ামী লীগ, সুইজারল্যান্ড আওয়ামী লীগ, পর্তুগাল আওয়ামী লীগ, অস্ট্রিয়া আওয়ামী লীগ, বেলজিয়াম আওয়ামী লীগ, ফ্রান্স আওয়ামী লীগ, নেদারল্যান্ড আওয়ামী লীগ, ডেনমার্ক আওয়ামী লীগ, ফিনল্যান্ড আওয়ামী লীগ, স্পেন আওয়ামী লীগ, গ্রীস আওয়ামী লীগ, আয়ারল্যান্ড আওয়ামী লীগ, নরওয়ে আওয়ামী লীগ, মাল্টা আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধু প্রকৌশল ও বিশেষজ্ঞ পরিষদ ইউরোপ, ইতালি প্রেসক্লাবসহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশের সাংবাদিকরা।

গোমস্তাপুরে সাজাহান আনসারী মামলতের ১ম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত

গোমস্তাপুর (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ
গোমস্তাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও রহনপুর ইউনিয়ন পরিষদের তিনবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান প্রয়াত সাজাহান আনসারী মামলত এর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে। মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে রোববার সকালে নিজ বাসভবনে কোরআনখানি , কবর জিয়ারত, স্মরণসভা ও দোআ খায়ের অনুষ্ঠিত হয়। বিকেলে কাজিগ্রাম শাহজামাল আনসারী মেমোরিয়াল স্টেডিয়াম সংলগ্ন গোলঘরের সামনে রহনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের উদ্যেগে স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়৷ এতে সভাপতিত্ব করেন রহনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোজাম্মেল হক মামুন। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন,সাবেক সংসদ সদস্য যথাক্রমে জিয়াউর রহমান ও গোলাম মোস্তফা বিশ্বাস,উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হুমায়ুন রেজা,উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান জামালউদ্দিন মন্ডল,সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ,রহনপুর পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র রাব্বানী বিশ্বাস,জেলা মহিলালীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য হালিমা খাতুন, রহনপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও প্রয়াতের ভাই শফি আনসারী,আলীনগর ইউপি চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলাম,যুবলীগ নেতা মোমিন বিশ্বাস,উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কাউসার আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক মুক্তাদির বিশ্বাস,
রহনপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শাহরিয়ার জামান আনসারী। স্মরণসভা শেষে দোআ খায়ের অনুষ্ঠিত হয়।

গ্রেপ্তার হতে প্রস্তুত রিয়া

বিনোদন ডেস্ক

সুশান্ত ইস্যুতে আবারও ডাক পড়লো রিয়া চক্রবর্তীর। এবার তার ডাক এসেছে এনসিবি-র দফতর থেকে। সকাল সাড়ে ১১টায় পুলিশি প্রহরায় সেখানে পৌঁছে গিয়েছেন রিয়া,চলছে জিজ্ঞাসাবাদ। মাদক কাণ্ডে ভাই শৌভিকের পর আজই তাকে গ্রেপ্তার করা হবে কি না, তা নিয়ে শুরু হয়েছে জোর জল্পনা। রিয়া কি আগাম জামিনের জন্য আবেদন করেছেন?

রিয়ার আইনজীবী সতীশ মানশিন্ডে সংবাদ সংস্থাকে বলেন, “বিহার পুলিশ থেকে শুরু করে সিবিআই, ইডি এবং এনসিবি কোনও ক্ষেত্রেই রিয়া কোনও আদালতে আগাম জামিনের জন্য আবেদন করেননি।”

পাশপাশি সতীশ যোগ করেন, “কাউকে ভালবাসা যদি অপরাধ হয় তবে তার মূল্য দিতে প্রস্তুত রিয়া। প্রস্তুত গ্রেফতার হতেও।”

অন্য দিকে ছেলে শৌভিকের গ্রেফতারি নিয়েও মুখ খুলেছেন রিয়া-শৌভিকের বাবা ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তী। তিনি বলেন, “অভিনন্দন ভারত। আমার ছেলে গ্রেপ্তার হয়েছে। আমি নিশ্চিত এর পর আমার মেয়ের পালা। সুচারু ভাবে একটি মধ্যবিত্ত পরিবারকে ধ্বংস করে দিয়েছ তুমি। কিন্তু না, ‘ন্যায়বিচার’-এর জন্য তো সবই ঠিক। জয় হিন্দ।”

আজ এনসিবি’র দফতরে প্রবেশের সঙ্গে সঙ্গেই ছবি শিকারিরা ছেঁকে ধরেন রিয়াকে। একসময় মবড হয়ে যান তিনি। এর আগে মুম্বাই পুলিশের কাছে তার এবং তার পরিবারের জন্য নিরাপত্তা চেয়েছিলেন রিয়া। সেই মতোই মুম্বাই পুলিশের নিরাপত্তার ঘেরাটোপে এত দিন সিবিআই, ইডি-র দফতরে হাজিরা দিচ্ছিলেন রিয়া। কিন্তু আজ প্রথম বার এনসিবি-র দফতরে পৌঁছতেই পাপারাৎজির কবল থেকে রক্ষা পেলেন না রিয়া।

গত শনিবার রাতে মাদক সেবন ও পাচারের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল রিয়ার ভাই শৌভিক এবং সুশান্তের প্রাক্তন হাউজ ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডাকে। রবিবার গ্রেফতার করা হয় সুশান্ত-কাণ্ডে অন্যতম প্রত্যক্ষদর্শী অভিনেতার কর্মচারী দীপেশ সবন্তকে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, মাদক পাচারে যুক্ত ছিলেন তিনিও। এনসিবি সূত্রে খবর, জেরায় শৌভিক আরও বেশ কয়েক জন মাদক পাচারকারীর নাম প্রকাশ্যে এনেছেন।

দিন কয়েক আগে রিয়ার সঙ্গে তার ভাই এবং স্যামুয়েলের মাদক সংক্রান্ত চ্যাট প্রকাশ্যে আসে। তাতে দেখা যায়, ভাই এবং স্যামুয়েলকে গাঁজার গুণমান এবং জোগান নিয়ে প্রশ্ন করেছেন রিয়া। বিশেষ সূত্রে খবর, জেরায় রিয়ার হয়ে মাদক কেনার কথা স্বীকার করেছেন ভাই শৌভিকও। আপাতত এই মাসের ৯ তারিখ পর্যন্ত শৌভিক এবং স্যামুয়েল এনসিবি হেফাজতে থাকবেন। এনসিবি সূত্রে জানা যাচ্ছে, আজই মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করা হবে ভাই-বোনকে।

নাইন ইলেভেন প্রতিরোধে ট্রাম্পের পক্ষে ভোট চাইলেন লাদেনের ভাতিজি

আরেকটি নাইন ইলেভেন প্রতিরোধে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে আবারও ভোট দিতে বললেন লাদেনের ভাতিজি নূর বিন লাদেন। স্পুটনিক ও আরটির প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

যুক্তরাষ্ট্রকে ‘সেকেন্ড হোম’ হিসেবে অভিহিত করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সমর্থন ও ভোট দিতে বলেন ওসামা বিন লাদেনের ভাতিজি। তার অভিযোগ আইএসের প্রসার ঘটেছে ওবামা-বাইডেনদের আমলে। ট্রাম্প দেখিয়েছেন বিদেশি হুমকির হাত থেকে তিনি যুক্তরাষ্ট্র এবং আমাদের রক্ষা করতে চান।

সুইজারল্যান্ডে অধিকাংশ সময় থাকেন ট্রাম্পের এই সমর্থক। খুব কমই যান যুক্তরাষ্ট্রে। ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণার স্লোগান ‘মেক আমেরিকা গ্রেট এগেইন’ লেখা হ্যাট নূরের মাথায় এর আগেও দেখা গেছে। তিনি বলেন, আমি সেই ২০১৫ সাল থেকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সমর্থক, লোকটার স্থিরসঙ্কল্পের প্রশংসা করি আমি। নভেম্বরের নির্বাচনে তাকে অবশ্যই আবার নির্বাচিত হতে হবে। আইন নিয়ে পড়ালেখা শেষ করে নূর ব্যবসায়ী হিসেবে ক্যারিয়ার গড়েছেন। নূরের বোন ওয়াফাহ ডুফুর সুইজারল্যান্ডের পরিচিত গায়িকা। ৯/১১’র মাস্টার মাইন্ড ওসামা বিন লাদেন তার কর্মকাণ্ডের জন্য বিশ্বজুড়ে সমালোচিত হলেও এই সৌদি পরিবারের অন্যরা শান্তিপূর্ণ জীবন-যাপনই করছেন।

নিউইয়র্ক পোস্টকে নূর এও বলেন রিপাবলিকানদেরই হোয়াইটহাউসে থাকতে হবে। যুক্তরাষ্ট্রে ইসলামের চরমপন্থার বিকাশ হচ্ছে এমন দাবি করে নূর বলেন এটি প্রতিরোধে ট্রাম্পই উপযুক্ত ব্যক্তি। তাকে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করলে সন্ত্রাস দমন সম্ভব হবে।

ট্রাম্পের সমালোচকদের সমালোচনা করে নূর বলেন তাদের একজন সিনেটর ইলহান ওমর যুক্তরাষ্ট্রকে সক্রিয়ভাবে ঘৃণা করছে।

শুধু যুক্তরাষ্ট্র নয় পশ্চিমা সভ্যতার নিরাপত্তার জন্যেও ট্রাম্পকে নির্বাচিত করা উচিত বলে মন্তব্য করেন নূর। তিনি বলেন বামপন্থীরা ইসলামী চরমপন্থীদের সঙ্গে এক হয়েছে এবং এটা খুবই উদ্বেগজনক।

Prothom Alo Editor among 4 face defamation suit

Bangla daily newspaper Prothom Alo’s Editor Matiur Rahman and three other journalists of the daily have faced a Tk100 crore defamation lawsuit for publishing reports against former home minister and current Chandpur-1 (Kachua) MP Dr Mahiuddin Khan Alamgir.

Kachua upazila parishad Vice-Chairman Advocate Helal Uddin lodged the case with Chandpur senior judicial magistrate court on Sunday noon.

Complainant Helal Uddin said Prothom Alo published two separate reports on July 30 and September 4 against Dr Mahiuddin Khan Alamgir saying the lawmaker bought medical college with someone else’s money.

The information and allegations mentioned against Dr Mahiuddin in both reports are false and publication of such reports damaged the image and fame of the veteran politician, he said.

Chandpur senior judicial magistrate court-2 took the case into cognizance and asked the district additional superintendent of police to investigate the matter before filing the report, Helal added.

চাঁপাইনবাবগঞ্জে র‌্যাবের অভিযানে ১৩ কেজি গাঁজাসহ আটক ৪


চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ মাদকের ছোবল থেকে যুবসমাজ ও তরুণদের রক্ষায় মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে র‌্যাব-৫ এর সদস্যরাসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এরই অংশ হিসেবে রবিবার ভোর রাত সোয়া ৫টার দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার দ্বারিয়াপুর এলাকায় তল্লাশী অভিযান চালায়। এসময় দ্বারিয়াপুর হাতাপাড়া দোতলা মসজিদ এর পাশের্^ বসানো চেকপোষ্টে ১৩ কেজি ১’শ গ্রাম গাঁজাসহ ৪শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে র‌্যাব ৫ এর চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের সদস্যরা। এসময় যাত্রীবাহী বাস সানি-জানি পরিবহন, ভাই ভাই স্পেশাল পরিবহন ও এস.আর ট্রাভেলস পরিবহনে তল্লাশী চালিয়ে গাঁজাগুলো উদ্ধারসহ এদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হচ্ছে, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার উত্তর উজিরপুর ঠকঠকিপাড়া গ্রামের মাদক ব্যবসায়ী মৃত বিচারত আলীর ছেলে মো. কেতাউর রহমান (২৫) ও একই এলাকার দবিউর রহমানের ছেলে মো. মেহেদী হাসান (২৭), একই উপজেলার মনাকষা ইউনিয়নের পারচৌকা গ্রামের মৃত মিঠুন আলীর ছেলে মো. ফিরোজ (৩০) ও রাঘববাটি পারচৌকার মৃত আব্দুল হান্নানের ছেলে মো. ইউসুফ (২৫)।
র‌্যাবের এক প্রেসনোটে রবিবার দুপুরে জানানো হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৫ এর চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের একটি দল ৬ সেপ্টেম্বর ভোর সোয়া ৫টার দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানার দ্বারিয়াপুর হাতাপাড়া দোতলা মসজিদ এর পূর্বপাশে পাঁকা রাস্তার উপর চেকপোষ্ট পরিচালনা করে। এসময় যাত্রীবাহী বাস সানি-জানি পরিবহন, ভাই ভাই স্পেশাল পরিবহন ও এস.আর ট্রাভেলস পরিবহনে তল্লাশী চালিয়ে ১৩ কেজি ১০০ গ্রাম গাঁজা-সহ ৪ শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী মোঃ কেতাউর রহমান(২৫), মোঃ মেহেদী হাসান (২৭), মোঃ ফিরোজ (৩০) ও মোঃ ইউসুফ (২৫) কে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়। আটক মাদক ব্যবসায়ীরা দীর্ঘদিন যাবৎ গাঁজাসহ বিভিন্ন ধরনের মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। এ ঘটনায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানায় মামলা হয়েছে।

নাচোলে ফেনসিডিলও গাঁজাসহ আটক ৩


নাচোল প্রতিনিধি
চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে পুলিশের পৃথক ২টি অভিযানে ১৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ ১ কেজি গাঁজা আটক করেছে। আটককৃতরা হলেন, জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার বালিয়াদিঘী গ্রামের ইদুলের ছেলে হামিদ(২৫),উত্তর মকিমপুর গ্রামের মৃত দেরাজ আলীর ছেলে নুরুল ইসলাম (৪০) ও তারাপুর সোনাপাড়া গ্রামের আব্দুল ওয়াদুদের ছেলে হারুন (২৭)।

নাচোল থানার অফিসার ইনচার্জ সেলিম রেজা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সকালে নাচোল পৌর এলাকার ইসলামপুর মোড় থেকে ১টি টিভিএস মোটর সাইকেল. ৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ হামিদ ও নুরুল ইসলাম নামের দু’ ব্যাক্তিকে আটক করে। পরে উপজেলার সুর্য্যপুর মোড় থেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে পুলিশ হারুনের কাছ থেকে ১ কেজি গাঁজাসহ ১০০ বোতল ফেনসিডিল জব্দ করে। সেই সাথে ১২৫ সিসির হিরো গ্লামার মোটর সাইকেলও জব্দ করে। আটককৃতদের আজ রবিবার জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে বলে ওসি জানান।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের সীমান্তে গুলিতে এক বাংলাদেশী নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ সীমান্তে গুলিতে এক বাংলাদেশি নিহত হয়েছে। শনিবার (০৫ সেপ্টেম্বর)গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়দের দাবী নিহত ব্যাক্তি মাদক চোরাচালান করতে গিয়ে বিএসএফের গুলিতে মারা গেছে।
নিহত ব্যক্তি মো: রফিকের ছেলে বাদশা(২২)।
স্থানীয়দের বরাত দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জানান, শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১ টার দিকে নিহত ব্যক্তি জেলার সীমান্ত পিলার ৩এস ও ৪এস পিলারের মধ্য দিয়ে ভারতে মাদক চোরাচালান করার সময় ভারতের সবদেলপুর বিএসএফ সদস্যরা গুলি চালালে ঘটনাস্থলেই বাদশা মারা যায়।
এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত (সকাল ৭টা) নিহতের লাশ কাঁটাতারের বেড়া সংলগ্ন বাংলাদেশ প্রান্তে একটি গর্তে পড়ে ছিল এবং ভারতীয় ভ’খন্ডে বিএসএফ সদস্যদের লাশ টি পাহারা দিতে দেখা গেছে।
এ ব্যাপারে ৫৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মাহমুদুল হাসানের সাথে যোগাযোগ করাা হলে তিনি জানান, বাংলাদেশ ভূখণ্ডেচাঁপাইনবাবগঞ্জ সীমান্তে এখন পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর জানা যায়নি বা কোন লাশ উদ্ধার নেই