সর্বশেষ সংবাদ চাপাইনবাবগঞ্জে ন্যাশনাল ব্যাংকের চারজন সহ করোনা ভাইরাসে নতুন সংক্রামিত ২২ চাঁপাইনবাবগঞ্জে মাস্ক না পরায় ৪৫ জনকে জরিমানা শিবগঞ্জে মাস্ক না পরায় ৬১ জনকে ৭৭০০ টাকা জরিমানা জেকেজি চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা গ্রেফতার:এখনো অধরা ‘মহাপ্রতারক’ সাহেদ ভোলাহাটে মাদক মামলার আসামি গ্রেফতার বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সেতুর রং করেই দায়িত্ব শেষ ! সেতুর রেলিং ও ফুটপাত দেবে ঝুঁকিপূর্ন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের গণযোগাযোগ ও উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদকের বৃক্ষ রোপণ অনিক দেওয়ানের স্বপ্ন কবি হবার। জনসাধারণকে মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করতে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা জোরদার করার নির্দেশ মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ সচিবের পুলিশ রিমান্ডে মৃত্যু , বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট

ভোলাহাটে করোনা উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু


ভোলাহাট ( চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি ঃ
ভোলাহাটে করোনা উপসর্গ নিয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। বুধবার দুপুর ১২টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।
মৃত ব্যক্তি উপজেলার জামবাড়ীয়া ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের বড়ইগাছী গ্রামের মৃত্যু আব্দুল কাশেম কসেনের ছোট ছেলে রবিউল আওয়াল নান্নু(৪৪) ।
বুধবার সকালে জ¦র-সর্দ্দি কাশি হলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যান তিনি। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর ১২টার দিকে মারা যান বলে তার স্বজনেরা জানান। নান্নু ২/৩দিন পূর্বে ঢাকা থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরে ভাড়াবাসায় উঠেন। সেখানেই করোনা উপসর্গ দেখা দিলে তাকে দ্রুত রাজশাহী মেডিকেল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়। জামবাড়ীয়া ইউপি চেয়ারম্যান মসফিকুল ইসলাম তারা বলেন, করোনা উপসর্গ নিয়ে নান্নুর মৃত্যুর হওয়ার খবর তিনি জেনেছেন। তিনি বলেন, তার মৃত্যুর পর রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নমুনা সংগ্রহ করেছে। এদিকে ভোলাহাট উপজেলা স্বাস্থ ও পঃ পঃ কর্মকর্তা আব্দুল হামিদ জানান, নান্নুর জ¦র-সর্দ্দি কাশি উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। তাকে নিয়মানুযায় শারিরীক দূরুত্ব নিশ্চিত করে স্থানীয় ভাবে দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে।

আবারো সোনামসজিদ বন্দরে ভারতীয় পণ্য পাঠানোর আগ্রহ ভারতীয় ব্যাবসায়ীদের: জেলা প্রশাসকের নির্দেশনা জারী

শিবগঞ্জ( চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি ঃ

বৃহষ্পতিবার থেকে আবারো ভারতের মাহদীপুর স্থলবন্দর দিয়ে সোনামসজিদ বন্দরে ভারতীয় পণ্য পাঠানোর আগ্রহ দেখিয়েছে ভারতীয় ব্যাবসায়ীরা। বুধবার দুপুরে মোবাইল ফোনে এ আগ্রহ প্রকাশ করেন ভারতীয় সিএ্যান্ড এফ এজেন্ট এ্যাসোয়িশেনের সাধারন সম্পাদক ভ’পতি মন্ডল। এ নিয়ে বন্দর এলাকায় আকশ্মিক পরিদর্শনে গিয়ে সেখানে এক সভা করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসক এ জেড এম নুরুল হক।বন্দর সংশ্লিষ্টদের বেশকিছু নির্দেশনা দেন তিনি।
বুধবার (৩ জুন) বেলা ১১টার দিকে বন্দর এলাকা পরিদর্শন শেষে স্থলবন্দর সিএ্যান্ড এফ এজেন্ট এ্যাসোসিয়েশন কনফারেন্স রুমে কাস্টমস এবং বন্দর পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান পানামা র্পোট লিংক লিমিটেডের কর্মকর্তা ও ব্যবসায়ীদের সাথে বৈঠক করেন তিনি।

বৈঠকে ভারতীয় গাড়িচালকদের তাপমাত্রা পরীক্ষা এবং শ্রমিকদের মাক্স,হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও হাত ধৌয়ার ব্যবস্থাসহ স্বাস্থ্য বিধি মেনে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে সীমিত আকারে খাদ্যপন্য সহ সকল প্রকার দ্রবাদি সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুট ২টা পর্যন্ত আমদানী করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় সেসাথে ভারতীয় ট্রাক চালকদের বাংলাদেশে প্রবেশের দিনই বিকেল ৫টার মধ্যে ফেরত যাবার সিদ্ধান্ত গ্রহীত হয়।
বৈঠকে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক এ জেড এম নুরুল হক,পুলিশ সুপার এ এইচ এম আব্দুর রকিব, সিভিল সার্জন ডাঃ জাহিদ নজরুল চৌধুরি ও শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ শিমুল আক্তার।
এ সময় সোনামসজিদ কাস্টমস কর্মকর্তা, সিএ্যান্ড এফ এজেন্ট এ্যাসোসিয়েশনের প্রতিনিধি সহ ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।
এ ব্যাপারে বন্দর পরিচালনাকারী পানামা পোর্ট লিমিটেডের র্পোট ম্যানেজার মাঈনুল ইসলাম জানান, ভারতীয় সিএ্যান্ড এফ এজেন্ট সাধারন সম্পাদক ভ’পতি মন্ডলের মোবাইল ফোনে তাকে ভারত থেকে পণ্যবাহী ট্রাক পাঠানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। সেসাথে বৈঠকের সকল সিদ্ধান্ত মেনে বন্দর পরিচালনার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।
প্রসঙ্গত: করোনা ভাইরাস পরিস্থতিতে ২৪ মার্চ থেকে ৬৮দিন ধরে ভারতের মাহদীপুর -সোনামসজিদ স্থলবন্দরের আন্তর্জাতিক বানিজ্য কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে । বন্দরের কার্যক্রম চালুর জন্য বাংলাদেশের পক্ষ থেকে এপ্রিলে একবার আগ্রহ প্রকাশের পর গত ৩১ মে ভারতীয় রপ্তানীকারক এ্যাসোসিয়েশনের আগ্রহে মঙ্গলবার থেকে বন্দরে উভয় দেশের মধ্যে বানিজ্য কার্যক্রম চালুর সম্ভাবনা থাকলেও তা শেষ পর্যন্ত ভেস্তে যায়।

অবশেষে ৩ মাস হাজতবাসের পর নামের মিল থাকার অপরাধে গ্রেফতারকৃত রুবেল জামিনে মুক্ত।

শিবগঞ্জ(চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি:

অবশেষে ২ মাস ২২ দিন হাজতবাসের পর ভ’লক্রমে গ্রেফতারকৃত রুবেল বুধবার দুপুরে জামিন পেলেন। আদালতের নির্দেশনা কারাগারে পৌছালে নাম একই হবার অপরাধে গ্রেফতার রুবেল মুক্তি পাবেন।

ভুক্তভোগীর পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে,২০১৮ সালে ৬ এপ্রিল চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ কালুপুর বেইলী ব্রীজ এলাকা থেকে গাঁজা সেবনের অভিযোগে গ্রেফতার হন পাঁকা ইউনিয়নের কদমতলা গ্রামের মুন্টু আলীর ছেলে রুবেল আলী ওরফে বাবুল (২৬)। গ্রেফতারের পর ঐদিন শিবগঞ্জ থানা পুলিশ রুবেল কে আসামী করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দিয়ে আদালতে প্রেরন করে। যার মামলা নং-১৫। জেলহাজতে যাবার ৫ দিনের মাথায় জামিন নিয়ে আতœগোপনে চলে যায় রুবেল। এদিকে ঐ আসামীর বিরুদ্ধে পুলিশ চার্জশীট প্রদান করলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত গ্রেফতারী পরোওনা জারী করলে পুলিশ দীর্ঘদিন পর ২০২০ সালের ১০মার্চ একই এলাকার জামাইপাড়া গ্রামের নামের সাথে মিল থাকা মুন্টু আলীর ছেলে রুবেল (২৩) কে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ নিয়ে বিভিন্ন গনমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর ৩ জুন ২৭৬২ স্মারক মূলে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ বিজ্ঞ জুডিসিয়াল ৩য় আদালতে ভ’লক্রমে গ্রেফতারের বিষয়টি স্বীকার করে রুবেলের জামিন চেয়ে পুনরায় প্রকৃত আসামী রুবেল পলাতক থাকায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোওয়ানা থানায় প্রেরণের অনুরোধ জানানো হয়।
এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার ওসি শামসুল আলম শাহ জানান, একই এলাকার ২ রুবেলের পিতার নাম একই হওয়ায় ভ’ল হয়েছে।এ নিয়ে তাদের পরিবার প্রথমে কিছু না বললেও মঙ্গলবার হাজতে থাকা রুবেলের বিষয়টি জানানোর পর পুলিশ তাঃক্ষনিক তদন্ত করে সত্যতা পায়।প্রেক্ষিতে বুধবার সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে এ নিয়ে একটি আবেদন প্রেরন করা হয়।
অন্যদিকে শিবগঞ্জ থানার ওসি (অপারেশন) আতিক ইসলাম আদালতে রুবেলের জামিনের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

চরপাঁকা গমের চর গোরস্থানে সোলার বাতি স্থাপন

শিবগঞ্জ সংবাদদাতা

জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার চরপাঁকা গমের চর গোরস্থানে সোলার বাতি স্থাপনের উদ্ধোধন করা হয়েছে।মঙ্গলবার দুপুরে সরকারীভাবে প্রাপ্ত সোলার বাতি টি স্থাপন করা হয়।বাতি স্থাপনের উদ্ধোধন করেন পাঁকা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ইসমাইল হোসেন মাস্টার।এ সময় সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোজাম্মেল হক সহ স্থানয়িরা উপস্থিত ছিলেন।

শিবগঞ্জে অসহায় ও দরিদ্রদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

শিবগঞ্জ(চাঁপাইনবাবগঞ্জ)প্রতিনিধি:
মহামারি করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে কর্মহীন পড়া অসহায় ও দরিদ্রদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার সকালে ‘মানুষ মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন’র অর্থায়নে ও ঢাকা নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থী চাঁপাইনবাবগঞ্জের প্রধান ভলান্টিয়ার মোসাঃ সারমিন আকতারের উদ্যোগে শিবগঞ্জ উপজেলার দেওয়ান জাইগীর, বড়চক, কানসাট, টিকোরী, গুচ্ছোগ্রাম ও বাজিতপুর গ্রামের কর্মহীনপড়া অসহায় ও দরিদ্রদের বাড়ি-বাড়ি গিয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেন একদল স্বেচ্ছাসেবী দল।
এসময় ওইসব এলাকার ৭০টি পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী ৫ কেজি চাল, ২ কেজি আটা, ১ কেজি লবণ, ১ কেজি মিষ্টি কুমড়া, ১ কেজি ঢেড়স, ১ পিস লাউ ও ১ লিটার তেল দেয়া হয়।
চাঁপাইনবাবগঞ্জের প্রধান ভলান্টিয়ার মোসাঃ সারমিন আকতার জানান, মানুষ মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের ৬৪ জেলাতেই ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে কাজ করছে। এরই ধারাবাহিকতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জেও এই ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হলো। আমাকে এসময় সহযোগিতা করেছেন স্থানীয় একদল স্বেচ্ছাসেবী দল। স্বেচ্ছাসেবী দলে ছিলেন, কানসাট থেকে মোহা. ইমরান আলী, শাহবাজপুর-মুসলিমপুর থেকে মো. আল-আমিন, মোবারকপুর-টিকোরী থেকে মো. আব্দুল আওয়াল, কানসাট গুচ্ছোগ্রাম থেকে মহি মিজান ও শ্যামপুর-বাজিতপুর থেকে এইচ.এস হায়দার আহমেদ।

৪ দিন ধরে আসছে না চাঁপাইনবাবগঞ্জের করোনা নমুনা পরীক্ষার রেজাল্ট ॥ পেনডিং ৪১০টি


চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের বুধবার বিকেলের তথ্য মোতাবেক গত ৪দিন ধরে আসেনি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার কোন করোনা নমূনা পরীক্ষার রেজাল্ট। বর্তমানে পেনডিং রয়েছে ৪১০টি করোনা নমূনা পরীক্ষা। বর্তমানে করোনা সংক্রমন বাড়ার সময় এভাবে রিপোর্ট আসা বন্ধ হওয়ায় আশংকার মধ্যে রয়েছেন জেলার স্বাস্থ্য বিভাগ। কয়েকদিন ধরেই রাজশাহী ল্যাবে করোনা পরীক্ষার মেশিনে সমস্যা দেখা দেয়ায় এই অবস্থা। শেষে ঢাকা ল্যাবে জেলার করোনা নমূনাগুলো পাঠানো হয়েছে এবং দ্রুতই ফলাফলগুলো পাওয়া যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন জেলার সিভিল সার্জন ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরী। সিভিল সার্জন অফিস সুত্র জানায়, গত কয়েকদিনে ৪১০টি নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে ঢাকা ও রাজশাহী ল্যাবে। এর মধ্যে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে ২৮৩টি এবং রাজশাহীতে ১২৭টি। গত ৩১মে থেকে ৩জুন ৪দিন কোন নমুনা পরীক্ষার রেজাল্ট আসেনি। চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় বর্তমানে মোট করোনো সনাক্ত রোগী ৫৪ জন। এর মধ্যে জেলায় মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা ১৪জন। নতুন করে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে ৪১০ জনের। জেলায় বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে ৯৪৮জন। জেলায় করোনা ভাইরাস নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে মোট ২০৯৪ জনের। রেজাল্ট পাওয়া গেছে ১৬৩০ জনের, অপেক্ষায় ৪১০ জনের। জেলায় মোট হোম কোয়ারেন্টাইনের সংখ্যা ১১ হাজার ৯০জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছে ২জন বলে বুধবার বিকেলে নিশ্চিত করেছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ এর সিভিল সার্জন ডাক্তার জাহিদ নজরুল চৌধুরী। তিনি বলেন, রাজশাহী বিভাগের অন্যান্য জেলার তুলনায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার করোনা পরিস্থিতি অনেকটা ভালো। তবে, আশংকার কথা, কোন লক্ষন ছাড়াই মানুষের করোনা সনাক্তের রেজাল্ট আসছে। আর মানুষ চলাফেরা করছেন স্বাভাবিকভাবে। সাধারণ মানুষকে কোনভাবেই সরকারী বিধি নিষেধ মানানো এবং সচেতন করা সম্ভব হচ্ছে না। মাস্ক ছাড়াই যেখানে-সেখানে চলাফেরা করছেন অনেকেই, মানছেন না সামাজিক দূরত্বও। তিনি নিজের ও পরিবারের কথা ভেবে হলেও এই প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সকলকে সচেতন হওয়ার অনুরোধ জানান।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিপুল পরিমাণ নকল ও মেয়াদোর্ত্তীণ কসমেটিকসহ আটক এক



চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার স্বরূপনগর থেকে বিপুল পরিমাণ নকল ও মেয়াদ উত্তীর্ণ কসমেটিকদ্রব্যসহ একজনকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে পুলিশ ও ভোক্তার অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর স্বরূপনগর এলাকার একটি ভাড়াবাড়িতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে প্রায় ৩ লাখ টাকার মূল্যের কসমেটিকদ্রব্য জব্দ করা হয়। আটক ব্যক্তি চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার বারঘরিয়া ইউনিয়নের লাহারপুর গ্রামের মৃত সৈয়দ আলীর ছেলে আব্দুল কাদের (৪০)।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহরকারি পরিচালক জহিরুল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার দুপুরে পুলিশ ও ভোক্তার অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের একটি টিম স্বরূপনগরের একটি বাড়িতে অভিযান চালায়। এসময় সাবান, সুগন্ধি দ্রব্যসহ বিপুল পরিমাণ নকল ও মেয়াদ উত্তীর্ণ কসমেটিকসহ আব্দুল কাদেরকে আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানার এস.আই নাজমুল হোসেন জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে দীর্ঘদিন ধরে নকল ও মেয়াদোত্তীর্ণ কসমেটিকের দ্রব্য বাজারে সরবরাহ করে আসছে এবং সে কসমেটিক বিক্রির আড়ালে মেয়েদেরকে দিয়ে দেহ ব্যবসা করে আসছে। এ ঘটনায় সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

উপকূলে আছড়ে পড়েছে নিসর্গ

ডেক্স নিউজ:

অবশেষে বাংলাদেশের নাম দেয়া ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ ভারতের মহারাষ্ট্র উপকূলে আছড়ে পড়েছে । আগামী তিন ঘণ্টা এর তাণ্ডব চলবে। দু’ সপ্তাহের ব্যবধানে ভারত আঘাত হানা দ্বিতীয় ঘূর্ণিঝড় এটি। তাছাড়া, গত ১০০ বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে মুম্বাইয়ে আঘাত হানা প্রথম ঘূর্ণিঝড় এটি।বুধবার (৩ জুন) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এ তথ্য জানায়।

মঙ্গলবার (২ জুন) দুপুরে ভারতের আবহাওয়া দপ্তর (আইএমডি) মহারাষ্ট্র ও গুজরাট রাজ্য দু’টির বেশ কয়েকটি জেলায় উচ্চ সতর্কতা জারি করে। মুম্বাইয়ে উচ্চ জলোচ্ছ্বাস হতে পারে বলে সতর্ক করা হয়। সমুদ্র সৈকতসহ মুম্বাইয়ের উপকূলবর্তী অঞ্চলে যাওয়ায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে পুলিশ।

নিসর্গের প্রভাবে বুধবার সকাল থেকে মুম্বাই থেকে ৫৮০ কিলোমিটার দূরে গোয়ায় ভারী বৃষ্টিপাত হচ্ছে।

আরব সাগরে গভীর নিম্নচাপ থেকে সৃষ্ট এ ঘূর্ণিঝড়টির নাম দিয়েছে বাংলাদেশ।আর তাহলে ১০০ বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে ভারতের বাণিজ্যিক রাজধানীতে আঘাত হানা প্রথম ঘূর্ণিঝড় হতে যাচ্ছে এটি।

মঙ্গলবার দুপুরে ভারতের আবহাওয়া দপ্তর (আইএমডি) মুম্বাই ও এর পার্শ্ববর্তী জেলাগুলোতে উচ্চ সতর্কতা জারি করে।

সেখানকার মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। প্রবল এ ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে ঘরবাড়ি, বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে পড়ার পাশাপাশি উপকূলবর্তী এলাকায় ভারী বর্ষণ ও ব্যাপক ভূমিধসের আশঙ্কা রয়েছে।

ইতোমধ্যে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের সঙ্গে নিসর্গ মোকাবিলায় রাজ্যের প্রস্তুতি পর্যালোচনা করেছেন।

নিসর্গ মোকাবিলায় দুই রাজ্যে প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলা বাহিনীর (এনডিআরএফ) ৩০টিরও বেশি দল কাজ করছে। প্রতিটি দলে প্রায় ৪৫ জন সদস্য রয়েছে।

ঘূণিঝড় ‘নিসর্গ’ এর নাম দিয়েছে বাংলাদেশ।

দেশে করোনায় আজও ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত দুই হাজার ৫৯৫


গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরো দুই হাজার ৫৯৫ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৫৫ হাজার ১৪০ জনে দাঁড়িয়েছে। একই সময়ে মারা গেছেন আরো ৩৭ জন। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৭৪৬ জন।

বুধবার দুপুর আড়াইটায় করোনা পরিস্থিতি নিয়ে অনলাইনে দৈনন্দিন স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

দেশে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত (কোভিড-১৯) প্রথম রোগী শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ। ১৮ মার্চ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।

আন্তর্জাতিক জরিপকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটার এর তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত মহামারি করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা ৩ লাখ ৮২ হাজার ৭২৭। এছাড়া আক্রান্ত হয়েছেন ৬৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৩২ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩০ লাখ ৭৭ হাজার ৬৯৭ জন।