সর্বশেষ সংবাদ দেশীয় পণ্য উৎপাদন ও ব্যবহার বৃদ্ধির আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর সেনাবাহিনীর টহলে ফাঁকা ভোলাহাট এবার ভোলাহাটে ২৫ যুবককে রোদে দাঁড় করিয়ে শাস্তি দিলো সেনাবাহিনী করোনা ভাইরাস সন্দেহে গোমস্তাপুরে ১ মহিলাসহ ২ জনের নমুনা সংগ্রহ দায়িত্ব নিয়ে প্যাকেজ ঘোষণা করেছি, কেউ অপব্যবহার করবেন না এপ্রিলের বেতন ৩০ এপ্রিলেই পাবেন পোশাক শ্রমিকরা করোনা: চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১০ জনের নমুনা সংগ্রহ স্বাস্থ্য বিভাগের:কোন বাড়ি লকডাউন করা হয়নি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে নাটকের শুটিং জার্মানির দুই লাখ মাস্ক ‘কেড়ে নিয়েছে’ যুক্তরাষ্ট্র বরিস জনসনের হবু স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত

শিবগঞ্জের ৩ মোটরসাইকেল চোর রাজশাহীতে গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার
মোটরসাইকেল চোর চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানা পুলিশ। এসময় তাদের কাছ হতে ২টি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে। ১২ ফেব্রুয়ারি বুধবার সকালে তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
গ্রেফতারকৃতরা হলো-চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার বেড়িবাঁধ এলাকার আফসার আলীর ছেলে সুমন (২৮), একই এলাকার সাদেকুলের ছেলে আল মামুন (২৭) ও লছমানপুর হিন্দুপাড়ার মুকুলের ছেলে রিমন (১৮)।
রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহাদাত হোসেন জানান, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে প্রথমে সুমনকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্যানুযায়ী আল মামুন ও রিমনকে গ্রেফতার করা হয়। তার সকলেই মোটরসাইকেল চোর চক্রের সদস্য। ওসি আরও জানান, রাজশাহী ও এর আশে পাশের জেলা গুলোতে সিন্ডিকেট করে মোটরসাইকেল চুরি করে আসছে এই চক্রটি।
গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে সুমনের বিরুদ্ধে মোটরসাইকেল চুরির অভিযোগে মামলা রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

গোমস্তাপুর মুজিব মঞ্চে উপজেলা প্রশাসনের আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

চাঁপাইনবাবগঞ্জে মুজিব মঞ্চে গোমস্তাপুর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বিকেলে জেলা প্রশাসন আমবাগানে অনুষ্ঠানের শুরুতে এতে বক্তব্য রাখেন, গোমস্তাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মিজানুর রহমান। ।

আলোচনা শেষে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গান, একক গান, দলীয় সংগীত, দেশত্ববোধক গান ও বঙ্গবন্ধুর জীবনের নানাদিক নিয়ে আলোচনা করা হয়। অনুষ্ঠান দেখতে ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক দেবেন্দ্র নাথ উরাও, নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের প্রধান প্রফেসর ড. মাযহারুল ইসলাম তরু, শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা মোঃ শফিকুল আলমসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষজন উপস্থিত ছিলেন।

নাচোলে শুদ্ধসুরে জাতীয় সংগীত পরিবেশন প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত


নাচোল প্রতিনিধিঃ
চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে শুদ্ধসুরে জাতীয় সংগীত পরিবেশন প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দুপুর ২টায় নাচোল উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ হলরুমে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়। ইউনিয়ন ও পৌরসভা পর্যায়ে যে সমস্ত প্রতিষ্ঠান চ্যাম্পিয়ান হয় সে সমস্ত প্রতিষ্ঠানের প্রতিযোগীরা এতে অংশ গ্রহন করে। মাধ্যমিক পর্যায়ে নাচোল এশিয়ান স্কুল এন্ড কলেজ ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে নাচোল সরকারী কলেজ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে। প্রতিযোগীতা শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাবিহা সুলতানা বলেন, একটা জাতির পরিচয় একটি স্বাধীন পতাকা, একটি জাতীয় সংগীত। তাই জাতীয় সংগীতকে শুদ্ধভাবে শুদ্ধসুরে পরিবেশন করার প্রয়োজন। শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের উদ্যোশে বলেন, আপনারা নিয়মিতভাবে স্কুলে প্যাক্টিস করবেন। যেকোন প্রতিযোতীয় হার-জিত থাকবে। এরই মাঝে এগিয়ে যেতে হবে। সকলেইতো আর প্রথম হবেনা, প্রথম হবে মাত্র একজন। এবার হবেনাতো কি হয়েছে সামনের কোন প্রতিযোগীতায় তুমি সফলকাম হবে। সাফল্যের চুড়া উঠতে গেলে লাগে কঠোর প্ররিশ্রম। তাই মন খারাপ না করে সামনে এগিয়ে যাও। এ প্রতিযোগীতায় বিচারকরে দায়িত্ব পালন করেন উপজেলা সমাজসেবা অফিসার আল গালিব, আমার বাড়ি আমার খামার প্রকল্পের উপজেলা সম্বয়নায়ক হাবিবুর রহমান, গীতাঞ্জলি সাংস্কৃতিক একাডেমীর পরিচালক অলিউল হক ডলার। আলোচনা শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

স্কাউট ও কাব সদস্যদের মাঝে ড্রেস বিতরণ


চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি
চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার ৭ নং চর অনুপনগর ইউনিয়নের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের স্কাউট ও কাব সদস্যদের মাঝে ড্রেস বিতরণ করেছে উপজেলা প্রশাসন। ১২ ফেব্রুয়ারি বুধবার সকাল সাড়ে ১০ টায় ইউনিয়ন চত্বরে এ ড্রেস বিতরণ করা হয়।
চর অনুপনগর ইউনিয়ন পরিষদ আয়োজিত ড্রেস বিতরণী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আলমগীর হোসেন।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে স্কাউট ও কাব সদস্যদের হাতে ড্রেস তুলে দেন সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ তসিকুল ইসলাম তসি।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চর অনুপনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ সাদেকুল ইসলাম বাচ্চু।
ড্রেস বিতরণী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, স্কাউট ও কাব সদস্যরা, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

জেনে নিন বিশ্বের সবচেয়ে সেক্সি পুরুষ সর্ম্পকে

ডেস্ক

মার্কিন সাপ্তাহিক ‘পিপল’ ম্যাগাজিন প্রতিবছর বিশ্বের সবচেয়ে সেক্সি পুরুষ বা ‘সেক্সিয়েস্ট ম্যান এলাইভ’ নির্বাচন করে থাকে। সমীক্ষার ওপর ভিত্তি করে চলতি বছর সেই খেতাব পেয়েছেন ব্রিটিশ অভিনেতা ইদ্রিস এলবা।

কে এই ইদ্রিস এলবা? ‘দ্য ওয়্যার’ টিভি সিরিজে মাদক ব্যবসায়ী ‘স্ট্রিংগার বেল’ চরিত্রে অভিনয় করে প্রথম দর্শকদের নজর কাড়েন এলবা। ‘লং ওয়াক টু ফ্রিডম’ শীর্ষক ছবিতে তিনি নেলসন ম্যান্ডেলার ভূমিকায়ও অভিনয় করেছেন। এই খেতাব ঘোষণার সময়ে পিপল ম্যাগাজিন ইদ্রিস এলবাকে একজন ‘মিষ্টি, সেক্সি সুপারস্টার’ হিসাবে আখ্যা দেয়।

পূর্বসূরি যারা ইদ্রিসের আগে যারা এই খেতাব পেয়েছেন তাদের মধ্যে আছেন অভিনেতা জনি ডেপ, জর্জ ক্লুনি ও কুস্তিগির ডোয়েন জনসন, যাকে মানুষ ‘দ্য রক’ নামেই বেশি চেনেন৷ ২০১৭ সালে এই খেতাব পেয়েছিলেন সংগীতশিল্পী ব্লেক শেলটন।

যা বললেন এলবা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রিয় টিভি শো ‘লেট নাইট টক শো’-তে এলবা বলেন, আমার মা আজ সত্যিই খুব গর্বিত হবেন।

এলবার অন্য পরিচয় অভিনয় ছাড়াও ইদ্রিস এলবা একজন ডিজে বা ডিস্ক জকি। ফ্যাট জো, জেজি বা ম্যাকেলমোর-এর মতো বিখ্যাত সংগীতশিল্পীদের সাথে ডিজে হিসাবে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার। এছাড়া ২০১৫ সালে বার্লিনে ম্যাডোনার সাথেও মঞ্চে দেখা যায় তাকে।

বিশ্বের প্রথম সেক্সি পুরুষ ১৯৮৫ সালে অভিনেতা মেল গিবসনকে নিয়ে একটি প্রতিবেদন ছাপা হয় পিপল ম্যাগাজিনে। যার শিরোনাম ছিলো ‘সেক্সিয়েস্ট ম্যান এলাইভ’। এরপর থেকে নিয়মিত এই খেতাব দেয়া হচ্ছে।সূত্র: ডয়চে ভেলে

স্মার্টফোন ব্যবহারে সতর্কতা

তথ্য ও প্রযুক্তি ডেস্ক

তথ্য প্রযুক্তির যুগে নিত্যদিনের অন্যতম সঙ্গী স্মার্টফোন। এই যন্ত্রটি ছাড়া আমাদের এক মুহূর্তও চলে না। কিন্তু সারাক্ষণ ফোন সঙ্গে রাখার কারণে ফোনের থেকে বেরিয়ে আসা রেডিয়েশন প্রবেশ করছে আমাদের শরীরে। সে কারণে নানা রকম অসুখে আক্রান্ত হওয়া অস্বাভাবিক কিছু নয়।
|আরো খবর

কিন্তু কিছু পদ্ধতি অনুসরণ করলে ক্ষতির হাত থেকে বাঁচা সম্ভব। চলুন জেনে নেই এ পরিস্থিতি থেকে বাঁচবেন যেভাবে।

১) মোবাইল ফোনটিকে যতটা সম্ভব শরীরের থেকে দূরে রাখুন।

২) বেশিক্ষণ কথা বলতে হলে ল্যান্ডলাইন ব্যবহার করুন।

৩) যখন দরকার নেই তখন ফোনটিকে বন্ধ করে দিন বা এরোপ্লেন মুডে রাখুন।

৪) কথা বলার সময় স্পীকার বা হেডফোনের ব্যবহার করুন।

৫) চার্জ দেয়ার সময় ফোন বন্ধ করে রাখুন।
৬) লো ব্যাটারি থাকলে ফোনে কথা না বলাই শ্রেয়।

প্রসঙ্গত, প্যান্টের পেছনের পকেটে ফোন রাখার কারণে বেড়ে যেতে পারে পায়ের ব্যথা। ফোন সামনের পকেটে রাখলে পুরুষের স্পার্ম কাউন্ট কমে যায়। শার্টের পকেটে ফোন রাখলে হার্টের ক্ষতি হতে পারে। কারণ ফোন থেকে যে রেডিয়েশন বের হয় তা হার্টের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।

এছাড়া রান্নাঘর বা আগুনের কাছাকাছি ফোন রাখলে ফোন ব্লাস্ট হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই ফোন রাখার সময় আগুন বা তাপ লাগতে পারে এমনকিছু থেকে দূরে রাখা উচিত।

শিশুর সামনে ফোন রাখাও বিপদজনক। বাচ্চারা বেশি ফোন নিয়ে খেলা করলে তাদের হাইপারঅ্যাকটিভিটি, ডিফিসিট ডিসঅর্ডার-এর মতো অসুখ দেখা দিতে পারে।

ওয়েবসাইট থেকে বেমালুম গায়েব আসামের নাগরিক তালিকা

২০১৯ সালের আগস্ট মাসে প্রকাশিত ভারতের আসাম রাজ্যের চূড়ান্ত নাগরিক তালিকা বেমালুম গায়েব হয়ে গেছে রাজ্যটির জাতীয় নাগরিক পঞ্জির (এনআরসি) ওয়েবসাইট থেকে। ‘যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে এ ঘটনা ঘটেছে’ বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম এ তথ্য জানায়।

ভারতের সুপ্রিম কোর্ট এনআরসি’র তথ্য জনগণের কাছে প্রকাশ করার নির্দেশ দিলে এ সংক্রান্ত তথ্য ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়। তবে এখন গায়েব হয়ে গেছে এসব তথ্য। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দাবি, এনআরসি’র তথ্য নিরাপদে রয়েছে। যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে তা ক্লাউডে (গুগলের ভার্চুয়াল তথ্য সংরক্ষণাগার) দেখা যাচ্ছে না।

শিগগিরই এ সমস্যার সমাধান করা হবে বলে জানায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। অপরদিকে এনআরসি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ‘উইপ্রো’র সঙ্গে চুক্তি নবায়ন না করার কারণেই গায়েব হয়েছে তথ্য। আসামে ভারতীয় নাগরিকদের নির্বাসন এবং অন্তর্ভুক্তির চূড়ান্ত তালিকাটি গত ৩১ আগস্ট প্রকাশিত হওয়ার পর, তা অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে আপলোড করা হয়েছিল।

আসাম রাজ্যের এনআরসি’র সহ-সমন্বয়ক হিতেশ দেবশর্মা বলেন, এতে বিপুল পরিমাণ তথ্য থাকায় ক্লাউড সেবা সরবরাহ করেছিল উইপ্রো এবং তাদের চুক্তি ছিল গত বছরের ১৯ অক্টোবর পর্যন্ত। আগের সহ-সমন্বয়ক এ চুক্তি সময় মতো নবায়ন না করায় উইপ্রো’র নিয়ম অনুযায়ী ১৫ ডিসেম্বর থেকে সব তথ্য অফলাইন হয়ে গেছে। আমি ২৪ ডিসেম্বর দায়িত্ব নিয়েছি।

তিনি বলেন, উইপ্রো তথ্য অনলাইন করে দিলেই জনগণ তা আবার দেখতে পাবে। আমরা আশা করি, আগামী দুই-তিনদিনের মধ্যে এসব তথ্য দেখা যাবে।

রহস্যজনকভাবে তথ্য গায়েব হওয়ার যাওয়ার ঘটনাকে ‘অসৎ কাজ’ আখ্যা দিয়ে দেশটির রেজিস্ট্রার জেনারেলকে চিঠি দিয়েছেন আসামের প্রধান বিরোধীদল কংগ্রেসের নেতা দেবব্রত সাইকিয়া। বিষয়টি জরুরিভিত্তিতে খতিয়ে দেখার জন্য অনুরোধ করেছেন তিনি।

আসামের ওই নাগরিকপঞ্জি থেকে ‘অবৈধ অভিবাসী’ হিসেবে থেকে বাদ পড়েছেন ১৯ লাখ মানুষ। বাদ পড়াদের নাগরিকত্বের প্রমাণ দিতে বলা হয়েছে। তবে কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে, এনআরসিতে যাদের নাম আসেনি, সব আইনি প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত তাদের ‘বিদেশি’ বলে ঘোষণা দেওয়া হবে না।

চীনের উহান ত্যাগ করছেন না ‘মিস্টার বিন’ অভিনেতা


বিশ্বজুড়ে তুমুল জনপ্রিয় কমেডি চরিত্র ‘মিস্টার বিন’। রোয়ান অ্যাটকিনসনের এই বিখ্যাত চরিত্রকে অনুকরণ করে জনপ্রিয়তা পেয়েছেন কমেডিয়ান নিগেল ডিক্সন। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত চীনের হুবেই শহরে আগে থেকেই অবস্থান করছিলেন ডিক্সন। কিন্তু নিজের দেশের সুরক্ষার্থে এখনই বাড়ি ফিরতে চান না এই ব্রিটিশ নাগরিক। বরং হুবেই থেকেই সচেতনতামূলক কমেডি তৈরি করে প্রশংসিত হচ্ছেন তিনি।করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কেবল চীনেই এক হাজার একশ ১০ জনের বেশি মানুষ মারা গেছেন। এছাড়া আরো ৪৪ হাজারের বেশি মানুষ কোভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বেঁচে থাকার জন্য লড়ছেন।করোনাভাইরাস মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে এরই মধ্যে বিভিন্ন দেশ চীনের সঙ্গে সব ধরনের বিমান ওঠানামা বন্ধ করে দিয়েছে। নিজেদের দেশের নাগরিক সরিয়ে নিয়েছে অনেক দেশই।

তবে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার কেন্দ্রস্থল উহান শহর ছেড়ে চলে যাননি ‘মিস্টার বিন’ খ্যাত অভিনেতা ব্রিটিশ নাগরিক নিগেল ডিক্সন। তার দাবি, নিজেকে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নেওয়ার মধ্য দিয়ে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে দিতে চান না। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি না জেনেই নিজের দেশে ফিরে গিয়ে অন্যদের ঝুঁকির মধ্যে ফেলতে চান না তিনি। সে কারণে উহানেই থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

কেবল উহান শহরে থেকে যাননি তিনি। উহানে থেকেই করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সবাইকে সচেতন করার কাজে নেমেছেন। এরই মধ্যে করোনাভাইরাস নিয়ে ‘মিস্টার পিয়া’ নামে সচেতনতামূলক হাস্যরসাত্মক সিরিজ বের করেছেন। তারপর সেগুলো চীনের সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়েছেন।

৫৩ বছর বয়সী নিগেল ডিক্সন সবসময় রোয়ান অ্যাটকিনসনকে আইকন মানেন। ৩০ বছর বয়স থেকেই তিনি মিস্টার বিন চরিত্রে অভিনয় করে আসছেন। তিন বছর আগে চীনে কমেডি সিনেমায় অভিনয় করে ব্যাপক জনপ্রিয় তিনি। এবার করোনাভাইরাস নিয়ে সচেতন করার জন্য ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছেন।

জানা গেছে, ২ জানুয়ারি তিনি উহানে যান। কয়েকদিন পরেই দেশে ফিরে যাওয়ার কথা ছিল তার। তবে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে যাওয়ার জেরে তিনি আর ফিরে যাননি। ব্রিটিশ নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার খবরও ছিল তার কাছে। তাকে ফিরে যাওয়ার প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছে। তবে তিনি উহান ছেড়ে কেবল নিজের ভালোর কথা ভাবতে পারেননি।

জানা গেছে, কিভাবে নিজে পরিচ্ছন্ন থাকতে হবে, কিভাবে মাস্ক পরতে হবে, কিভাবে অন্যদের থেকে নিরাপদ থাকা এবং অন্যদেরও নিরাপদ রাখা যায়- সেসব বিষয় নিয়ে কমেডি করছেন তিনি। মূলত, হাসির মধ্য দিয়ে সবাইকে সচেতন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। করোনাভাইরাসের প্রকোপ শেষ না হওয়া পর্যন্ত তিনি উহান শহর ছাড়বেন না বলে ঠিক করেছেন।

শপিংমলকে হাসপাতাল বানানোর অভিযোগ ল্যাবএইডের বিরুদ্ধে

ঢাকা: রাজধানীর ধানমন্ডিতে কনকর্ড আর্কেডিয়া শপিংমলের দোকান কিনে বেআইনিভাবে হাসপাতাল বানানোর অভিযোগ উঠেছে ল্যাবএইডের বিরুদ্ধে। এ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই মার্কেট মালিক সমিতির সঙ্গে ল্যাবএইড কর্তৃপক্ষের দ্বন্দ্ব চলছে। সর্বশেষ গত ২১ জানুয়ারি এ দ্বন্দ্ব রূপ নেয় সহিংসতায়।কনকর্ড আর্কেডিয়া শপিংমল ওনার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের দাবি, কোনো নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে শপিংমলে হাসপাতালের কার্যক্রম পরিচালনা করছে ল্যাবএইড। বিভিন্ন সময় বাধা দিয়ে এবং আইনি সহায়তা চেয়েও তারা এর প্রতিকার পাননি। বরং গত ২১ জানুয়ারি হাসপাতালের লোকজন এবং বহিরাগতরা মিলে মার্কেটে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে।

বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন কনকর্ড আর্কেডিয়া শপিংমল ওনার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সানাউল হক নীরু।

তিনি বলেন, রাজউকের লে-আউট প্ল্যান ও ডেভেলাপারের ঘোষণা অনুযায়ী শপিংমলটির একটি বেজমেন্ট, নীচতলা থেকে চতুর্থ তলা পর্যন্ত সেন্ট্রাল এয়ার কন্ডিশনড মার্কেট এবং ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা অফিসের জন্য বরাদ্দ ছিল। শপিংমল চালুর প্রাথমিক পর্যায়ে ২০৪টি দোকানের মধ্যে নীচতলার ৪১টি, দ্বিতীয় তলায় ২৪টি, ৩য় তলার ১২টি এবং ৪র্থ তলার ৩১টি দোকান এবং ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলায় অফিস, ডাক্তারের চেম্বার, কোচিং সেন্টার ও অন্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জন্য বরাদ্দ দেওয়া হয়।

২০০৫ সালে আমরা জানতে পারি, মার্কেটের ৩য় তলার (৩০১-৩৫১) এবং ৪র্থ তলার (৪০১-৪৫১) মোট ১০২টি দোকান ও ৫ম তলার ৭০০০ বর্গফুট অফিস স্পেস কিনে নিয়েছে ল্যাবএইড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. এ. এম. শামীম। দোকানগুলো কিনে নেওয়ার পর মার্কেটের ৩য়, ৪র্থ তলা ও ৫ম তলার ল্যাবএইডের পাশের অংশ ভেঙে হাসপাতালের সঙ্গে এক করে দেওয়া হয় এবং ওই ফ্লোরগুলোতে সাধারণ ক্রেতা ও মার্কেটের সংশ্লিষ্ট লোকজনের চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়।

রাজউক চতুর্থ তলা পর্যান্ত মার্কেটের অনুমতি দিলেও ল্যাবএইড জোর করে হাসপাতাল বানিয়ে ফেলছে মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি বলেন, দোকান কিনে জোরপূর্বক হাসপাতাল বানিয়ে ফেলার অভিযোগে ২০১১ সালের ২৮ আগস্ট ধানমন্ডি থানায় সাধারণ ডায়েরি করে ওনার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন। এর আগে কনকর্ড আর্কেডিয়া শপিংমল ওনার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের একজন উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী ২০০৮ সালের ১৩ জানুয়ারি সরেজমিন তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করেন।

২০১১ সালের ১১ অক্টোবর রাজউকের অনুমোদিত নকশার বিচ্যুতি ঘটানোর কারণ দর্শানো নোটিশ জারি করা হয়। এরপর ২০১২ সালের ২৬ জানুয়ারি চূড়ান্ত নোটিশের মাধ্যমে শপিং মলের ৩য় ও ৪র্থ তলার নকশা বহির্ভূত স্থাপনা ও সংযোগ ব্রীজ নিজ খরচে ভাঙার নির্দেশ দেওয়া হয় ল্যাবএইড কর্তৃপক্ষকে।

এরইমধ্যে ২০১১ সালের ৩ অক্টোবর মার্কেটের ভূমি মালিক ও ল্যাবএইডের সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করে কনকর্ড আর্কেডিয়া শপিংমল ওনার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন। শুনানি শেষে ২০১২ সালের ২৬ নভেম্বর মামলাটি নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত স্থিতাবস্থা বজায় রাখার আদেশ দেন আদালত, যা এখনো নিষ্পত্তি হয়নি।

সানাউল হক নীরু আরও বলেন, অথচ ল্যাবএইড কর্তৃপক্ষ কোনো নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে তাদের কর্মকাণ্ড অব্যাহত রেখেছেন। বাধা দিতে গেলে বিভিন্ন সময় প্রাণনাশের হুমকিসহ সর্বশেষ শপিংমলে হামলা-ভাংচুর চালানো হয়। আমরা আইনগতভাবে এ অচলাবস্থা থেকে পরিত্রাণ চাই।

ল্যাবএইড কর্তৃপক্ষের কাছে ২০১২ সাল থেকে ২০২০ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত সার্ভিস চার্জ বাবদ ৫ কোটি ৮৩ লাখ টাকা বকেয়া রয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি।

নাচোলে সিআইজি এবং নন সিআইজি মৎস্য চাষিদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা


চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধিঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে “ন্যাশনাল এগ্রীকালচার টেকনোলজি প্রোগ্রাম ফেজ ll প্রোজেক্ট” (এনএটিপি ২) এর আওয়াতার সিআইজি এবং নন সিআইজি মৎস্য চাষিদের অভিজ্ঞতা বিনিময় প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।আজ বুধবার বেলা ১১টার দিকে নেজামপুর ইউনিয়ন পরিষদ হল রুমে নাচোল উপজেলা সিনিয়র মৎস্য দপ্তরের বাস্তবায়নে এ প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নাচোল উপজেলা সিনিয়র মৎস্য অফিসার আলী হোসেন।অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের বিঙ্গান ও প্রযুক্তিক বিষয়ক সম্পাদক মোঃ নজরুল ইসলাম, নাচোল মৎস্য সহকারী মজিবুর রহমান, ফিল এ্যাসিসটেন্ট মোঃ আপেল মাহাম্মুদ, বকুলতলা সিআইজির সভাপতি আব্দুর রহমান মানিক, মূরগীডাঙ্গা সিআইজির সভাপতি মোঃ হাসান আলী প্রমুখ।