সর্বশেষ সংবাদ দেশীয় পণ্য উৎপাদন ও ব্যবহার বৃদ্ধির আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর সেনাবাহিনীর টহলে ফাঁকা ভোলাহাট এবার ভোলাহাটে ২৫ যুবককে রোদে দাঁড় করিয়ে শাস্তি দিলো সেনাবাহিনী করোনা ভাইরাস সন্দেহে গোমস্তাপুরে ১ মহিলাসহ ২ জনের নমুনা সংগ্রহ দায়িত্ব নিয়ে প্যাকেজ ঘোষণা করেছি, কেউ অপব্যবহার করবেন না এপ্রিলের বেতন ৩০ এপ্রিলেই পাবেন পোশাক শ্রমিকরা করোনা: চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১০ জনের নমুনা সংগ্রহ স্বাস্থ্য বিভাগের:কোন বাড়ি লকডাউন করা হয়নি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে নাটকের শুটিং জার্মানির দুই লাখ মাস্ক ‘কেড়ে নিয়েছে’ যুক্তরাষ্ট্র বরিস জনসনের হবু স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত

গোবরাতলায় মিনিবার ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার গোবরাতলা ইউনিয়নের দিয়ার ধাইনগরে মিনিবার ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। দিয়ার ধাইনগর তরুণ সংঘের আয়োজনে বৃহস্পতিবার বিকেলে দিয়ার ধাইনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এ টুর্নামেন্টের সমাপনী হয়। ফাইনালে দিয়ার ধাইনগর তরুণ সংঘ ফুটবল দলকে ট্রাইব্রেকারে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় সেভেন স্টার ফুটবল দল। নির্ধারিত সময়ে খেলা ১-১ গোলে ড্র হয়। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ গণ-আজাদীলীগ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি মো. বজলুর রহমান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পুরস্কার বিতরণ করেন, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক তাহের আলী মাস্টার, সমাজসেবক মো. সাদিকুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগার ছাত্র ফেডারেশনের গোবরাতলা ইউনিয়ন শাখার সভাপতি মো. তুষার খান।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে আটক 14 জন শিবির নেতা -কর্মী দের পরিচয়

স্টাফ রিপোর্টার
চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার ১১ নম্বর ওয়ার্ড নামোশংকরবাটি হেফজুল কামিল মাদ্রাসার ছাত্রাবাস হতে ৫০০ গ্রাম গান পাউডার ককটেল ও জিহাদি বইসহ 14 জনকে আটক করে সদর থানা পুলিশ।

আটককৃত ব্যক্তিরা হল,চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানার চরনারায়নপুর এলাকার রবিউল ইসলামের ছেলে জোবায়ের ইসলাম(১৮),সদর উপজেলার সুন্দরপুর ইউনিয়নের কালিনগর এলাকার সাইফুর রহমানের ছেলে আব্দুল বারি(২৭),সদর উপজেলার গোবরাতলা ইউনিয়নের মহিপুর এলাকার আশরাফুল হকের ছেলে ইকবাল হোসেন(২৩),সদর উপজেলার শাহজাহানপুর ইউনিয়নের চর হরিপুর এলাকার মামুনুর রশিদের ছেলে বোরহান উদ্দিন(২৯)শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা ইউনিয়নের হাউস নগর এলাকার সোহরাব আলীর ছেলে আব্দুল্লাহিল কাফি(৩৬),সিলেট জেলার মংলা পোট বন্দর এলাকার পেলাম ইউনিয়নের মৃত আব্দুস সাত্তারের ছেলে গাজী আবদুল হান্নান(২৪)।শিবগঞ্জ উপজেলার দূর্লভপুর ইউনিয়নের চরশিংনগর এলাকার শুকুর আলীর ছেলে শহিদুল ইসলাম(২৮),শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা ইউনিয়নের ছাপড়া এলাকার মতিউর রহমানের ছেলে আবুজার গিফারী(৩৫),শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা ইউনিয়নের আমির হামজার ছেলে রাসেল আলী(৩৫)।শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা ইউনিয়নের হাঙ্গামি এলাকার আব্দুস সামাদের ছেলে আয়াতুল্লাহ খোমেনী(৩০)।এছাড়াও সংবাদ লেখার সময় 4 জনকে আটক করে পুলিশ।তবে তাদের নাম জানা যায়নি।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ছাত্রশিবিরের সাংগাঠনিক সম্পাদক সহ ১৪ জন আটকঃ গানপাউডার ও দেশীয় অস্ত্র জব্দ

স্টাফ রির্পোটার

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ছাত্রশিবিরের সাংগাঠনিক সম্পাদক সহ ১০ ছাত্রশিবিরের নেতাকর্মী কে আটক করেছে সদর থানা পুলিশ। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ৫শ গ্রাম গানপাউডার ,৮টি ককটেল, ৫টি হাসুয়া ও ৫টি জিহাদী বই জব্দ করেছে পুলিশ।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার শংকরবাটি হেফজুল উলুম মাদ্রাসার ছাত্রবাসের দোতলার একটি ঘর থেকে বৃহষ্পতিবার বিকালে অভিযান চালিয়ে শিবিরের এসব নেতাকর্মীকে বিস্ফোরক ও দেশিয় অস্ত্রগুলো সহ আটক করা হয়।
সদর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোঃ জিয়াউর রহমান জানান, বৃহষ্পতিবার বিকেলে গোপন সংবাদে ভিত্তিতে পুলিশের একটি দল জানতে পারে যে একটি মাদ্রাসায় শিবিরের কিছু নেতাকর্মী গোপন বৈঠক করছে।খবর পেয়ে শংকরবাটি হেফজুল উলুম মাদ্রাসার ছাত্রবাসের দোতলার একটি ভবনে অভিযান চালিয়ে জেলা ছাত্রশিবিরের সাংগাঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহ হিল কাফি সহ শিবিরের ১০ নেতা কর্মী কে আটক করা হয়।এ সময় সেখান থেকে মজুদ রাখা ৫শ গ্রাম গানপাউডার ,৮টি ককটেল, ৫টি হাসুয়া ও ৫টি জিহাদী বই জব্দ করে পুলিশ।
তিনি আরও জানান, আটককৃতদের থানায় এনে জিঞ্সাবাদ চলছে এবং এ ব্যাপারে সদর থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
জিজ্ঞাসাবাদে তারা তাদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে একটি সভা করছিল বলেে জানিয়েছে। তবে বিস্ফোরক মজুদের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

নাচোলে কসবা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল অনুষ্টিত


নাচোল ( চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ- চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে আসন্ন উপজেলা আওয়ামীলীগের কাউন্সিল গঠন উপলক্ষে ১ নং কসবা ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল অনুষ্টিত হয়েছে। এ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় কসবা ইউনিয়নের এলাইপুর বাজার মাঠে ১ নং কসবা ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আকবর আলীর সভাপতিত্বে ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন নাচোল উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের। এসময় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন কসবা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও চেয়ারম্যান প্রভাষক আজিজুর রহমান। এছাড়াও ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন নাচোল উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রেজাউল করিম বাবু,উপজেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক শ্রী সুধেন চন্দ্র বর্মন,জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য আবু ওবায়েদ বাবলু। বক্তব্য শেষে কসবা ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সকল সদস্যদের সম্মতি ক্রমে সভাপতি পদে মাজেবুল হক এবং সাধারণ সম্পাদক পদে শ্রী দীপঙ্কর বর্মনের নাম ঘোষনা করা হয়। এর আগে ১ নং কসবা ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলের উদ্বোধন ঘোষনা করেন কসবা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুস সাত্তার।

নাচোল সাংবাদিক সংগঠনের নামে বরাদ্ধকৃত টাকা উধাও!


নাচোল প্রতিনিধিঃ
চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে সাংবাদিক সংগঠনের নামে বরাদ্ধকৃত টাকা আত্মসাৎএর অভিযোগ উঠেছে উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল কাদেরের বিরুদ্ধে। ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে নাচোল সাংবাদিক অ্যাসোসিয়েশনের নামে ও বরেন্দ্র প্রেস ক্লাবের নামে ১টি করে ডি এল এস আর ক্যামেরা বাবদ ৫০ হাজার টাকা করে সর্বমোট দুটি প্রতিষ্ঠানের নামে ১ লাখ টাকা বরাদ্ধ দেয় উপজেলা পরিষদ। ক্যামেরা কেনার এ প্রকল্প ঠিকাদারী পেয়ে যান ওয়াসী ডিজিটাল এর সত্তাধিকারী আব্দুল আজিম। অর্থ বছর শেষ হয়ে গেলেও তিনি নাচোল সাংবাদিক অ্যাসোসেশনকে প্রকল্পের ক্যামেরা হস্তান্তর করা না হলে সংগঠনের সভাপতি ও সহ-সভাপতি ঠাকাদারের নিকট জানতে চান এসময় তিনি বলেন, ডি এল এস আর ক্যামেরা দাম বেশী হওয়ায় বরাদ্ধকৃত টাকা নিয়ে এলজিইডির নক্্রশাকারক মোস্তাফিজুর রহমান কাজলের সাথে যোগাযোগ করেন। এসময় কাজল ঠিকাদারকে বলেন, যে হেতু উপজেলা পরিষদের বরাদ্ধকৃত অর্থ সে হেতু এ বিষয়ে তিনি উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে পরামর্শ করার কথা বলেন, ঠিকাদার আজিম বিষয়টি নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল কাদেরের সাথে যোগাযোগ করলে চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের বরাদ্ধকৃত টাকা ঠিকাদারের কাছ থেকে বুঝিয়ে নেন।
২০১৮-১৯ অর্থ বছরের উপজেলা পরিষদের বরাদ্ধকৃত ক্যামেরা এখন পর্যন্ত বুঝিয়ে পাননি সংগঠনের সভাপতি নুরুল ইসলাম বাবু ও সহ-সভাপতি মনিরুল ইসলাম। বিষয়টি নিয়ে ঠিকাদার আজিম এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বরাদ্ধের টাকা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের আমার কাছ থেকে বুঝিয়ে নিয়েছেন।
এ প্রকল্পের ক্যামেরা সম্পর্কে উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের এর নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, টাকা আমার নিকট জমা রয়েছে বলে এ প্রতিবেদককে জানান। প্রকল্পের টাকা আত্মসাৎ এর বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাবিহা সুলতানার নিকট গতকাল বৃহস্প্রতিবার দুপুরে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সাংবাদিক সংগঠনের নামে বরাদ্ধকৃত প্রকল্প এতোদিনেও বাস্তবায়ন না হওয়াটা দুঃখজনক! তবে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে, সেই সাথে প্রকল্প বাস্তবায়ন না হয়ে থাকলে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের জামানতের টাকা প্রয়োজনে কর্তন করা হবে বলেও জানান তিনি।

রামচন্দ্রপুর হাট থেকে যুবতীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার


নিজস্ব প্রতিবেদক চাঁপাইনবাবগঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জের রামচন্দ্রপুর হাট, চুনাহারী বটি পাড়ার একটি বাড়ি থেকে জোসনা নামে ২৫ বছরের এক যুবতির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
উদ্ধার যুবতী চাঁপাইনবাবগঞ্জের রামচন্দ্রপুর হাট, চুনাহারী বটি পাড়ার মো. নুরুল ইসলাম ডালুর মেয়ে মোসা. জোসনা (২৫)।
জোসনার চাচি মিন্নাতুন ও পুলিশ জানায়, ৬ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টার দিকে নিজ বাড়িতে গলায় দঁড়ি দিয়ে ফ্যানের সাথে ঝুলে যায়। নিহত জোসনা মানসিক প্রতিবন্ধি ছিল।
পুলিশ ময়না তদন্তের জন্য লাশ থানায় নিয়ে গেছে।

বিএনপির নাশকতার আশংকায় ঢাকা সিটি নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি কম ছিলো: রাজশাহীতে তথ্যমন্ত্রী


রাজশাহী ব্যুরো
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ২০১৪ সালের নির্বাচনে এসে বিএনপি সারাদেশে ব্যাপক নাশকতা সৃষ্টি করেছিলো। এবারো তারা নির্বাচনে এসে বলেছে, নির্বাচনে আংশ নেয়া তাদের আন্দোলনের অংশ। বিএনপির আন্দোলন সম্পর্কে মানুষ জানে। ২০১৪ সালে তারা নির্বাচন বানচাল করতে ৫০০ ভোট কেন্দ্র জ্বালিয়ে দিয়েছিলো। প্রিজাইডিং অফিসারসহ নির্বাচনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অনেককে হত্যা করেছিলো। ভোটারকে হত্যা করেছিলো। সুতরাং তারা যখন ঘোষণা দেয়, এই নির্বাচন আন্দোলনের অংশ তখন মানুষ সেই হাঙ্গামার আশংকার করণে ভোট কেন্দ্রে যায়নি। সেই ভয়টি এবারও ভোটারদের মাঝে ছিলো।
বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যকালে তিনি এসব কথা বলেন।
তথ্যমন্ত্রী আরো বলেন, ঢাকা সিটি নিবার্চন ভাল হয়েছে। উপমহাদেশের মানদন্ডে বিচার করলেও বলতে হবে এটি একটি ভাল নির্বাচন হয়েছে। আমরা অতীতে দেখেছি যখনই স্থানীয় সরকার নির্বাচন হয়, তখনই হাঙ্গামা হয়। লোক ক্ষয় হয়। কেন্দ্র দখল, সিল মারা হয়। এই নির্বাচনে কোন সিলমারা হয়নি। হাঙ্গামা হয়নি। লোক ক্ষয় হয়নি। ৫৫ লাখ ভোটারের নির্বাচন করেও এত শান্তিপূর্ণ হওয়ায় নির্বাচন কমিশনকে ধন্যবাদ দেয়ার প্রযোজন রয়েছে।
তিনি বলেন, ঢাকা সিটির নির্বাচনে উত্তর সিটিতে ২৫ শতাংশ, দক্ষিণে ২৯ শতাংশ ভোট পড়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও এমনই ভোট পড়ে। সেই হিসেবে বললে এই ভোটও একেবারে কম নয়।
বিএনপি এখন আজগুবি অভিযোগ তুলছে উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করছে, ইভিএম মেশিনে নাকি রাতভর ভোট দেয়া হয়েছে। সেই সুযোগ থাকলে ভোট ২৫ শতাংশ হতো না, ৬০ ভাগই হতো। ইভিএম মেশিনে চুরি করা যায়না। ইভিএম নিজেই প্রিজাইডিং অফিসার, পোলিং এজেন্ট এর মত কাজ করে।
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আজক যে সরকার, এটি আওয়ামী লীগের সরকার। সরকারের আওয়ামীলীগ নয়। যারা আওয়ামী লীগের মনোনয়নে এমপি হয়েছেন, মেয়র হয়েছেন, চেয়ারম্যান হয়েছেন, তারা দলের নেতা-কর্মীদের গুরুত্ব দেবেন। দলকে গুরুত্ব দেবেন। কর্মীদের ছেড়ে নিজস্ব বলয় অনেকেই তৈরি করেন। এটা করবেন না। দল না থাকলে বলয় থাকবে না। মৌচাকে মধু থাকলে অনেক লোক ঘুর ঘুর করে। মধু না থাকলে কাউকে পাওয়া যায় না।
আওয়ামী লীগ দীর্ঘ ২১ বছর ক্ষমতার বাইরে ছিলো। সে সময় দল অনেক শক্তিশালী ছিলো উল্লেখ করে তিনি বলেন, পরপর তিন বার ক্ষমতায় থাকার কারণে অনেকের মধ্যে আড়ষ্টতা এসেছে, তা ঝেড়ে ফেলতে হবে। আমাদের মধ্যে অনেক অনুপ্রবেশকারী এসেছে, তারা যদি দলীয় পদে থাকে তাদের বাদ দিতে হবে। ২০১৪ সালের পর যারা পিট বাঁচানোর জন্য যোগদান করেছে এবং ক্ষমতার সাথে থাকার জন্য যোগদান করেছে তাদেরকে দলীয় পদে দেয়া যাবে না। দলের মধ্যে শৃঙ্খলা থাকতে হবে। শৃঙ্খলা ছাড়া দলকে শক্তিশালী করতে পারবো না।
প্রতিনিধি সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, আওয়ামী লীগের সদস্য নুরুল ইসলাম ঠান্ডু, বেগম আখতার জাহান, ড. মেরিনা জাহান, সাংসদ এনামুল হক, সাংসদ আয়েন উদ্দীন, সাংসদ ডা. মনসুর রহমান, সাংসদ আদিবা আনজুম মিতা প্রমূখ।
আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত হবে।

মন্দিরে শরীর স্পর্শ, শিক্ষা দিলেন অভিনেত্রী

ডেস্ক : ধর্মীয় অনুষ্ঠানে মন্দিরে গিয়ে যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছিলেন বলিউড অভিনেত্রী তাপসী পান্নু। তবে পাল্টা জবাব দিতেও ছাড়েননি তিনি। সম্প্রতি ভারতীয় এফএম রেডিও ‘ইশক’-কে দেয়া সাক্ষাৎকারে এমন অভিজ্ঞতার কথা জানান তিনি।

তাপসী জানান, কয়েক বছর আগে ধর্মীয় অনুষ্ঠান গুরুপূর্ণিমা উপলক্ষে পরিবারের সঙ্গে পাঞ্জাবের গুরুদুয়ারে গিয়েছিলেন তিনি। সেদিন মন্দিরে অন্যান্য দিনের তুলনায় একটু বেশিই ভিড় ছিল। আর খাবারের স্টলে নড়াচড়া করার জায়গাও ছিল না। সেখানেই হঠাৎ তাপসী বুঝতে পারেন ভিড়ের মধ্যে কেউ একজন অনাকাঙ্খিতভাবে তাকে ছোঁয়ার চেষ্টা করছে।

তাপসী প্রথমে ভেবেছিলেন, প্রচণ্ড ভিড়ে হয়ত অনিচ্ছাকৃতভাবে এমনটা হচ্ছে। কিন্তু একই জিনিসের পুনরাবৃত্তি হওয়ায় আর চুপ থাকতে পারেননি তিনি। ঘুরে দাঁড়িয়েই সেই যৌন হেনস্থাকারীর আঙুল ধরে মুচড়ে দিয়েছিলেন।

ভবিষ্যতে যাতে এমন ঘৃণ্য অপরাধ করতে গেলে দু’বার ভাবতে হয়, সেজন্যই সেদিন প্রতিবাদ করেছিলেন বলে জানান তাপসী।

ভুল করে করোনাভাইরাসের ‘আসল’ তথ্য ফাঁস

ডেস্ক : বিশ্বজুড়ে এখন এক আতঙ্কের নাম চীনের প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাস। এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৫৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে মৃতের সংখ্যা কি আসলেও ৫৬৪? এরই মধ্যে এমন অভিযোগ সামনে এসেছে যেখানে বলা হচ্ছে চীন আসলে মৃতের প্রকৃত সংখ্যা জানতে দিচ্ছে না। সে তত্ত্বে যারা বিশ্বাস করতে শুরু করেছিলেন তাদের জন্য আরও জোরালো প্রমাণ এনে দিল খোদ চীনেরই একটি প্রতিষ্ঠান।

টেনসেন্ট হলো চীনের দ্বিতীয় বৃহত্তম কোম্পানি। প্রতিষ্ঠানটি হয়তো ভুলবশত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কতজন মারা গেছেন তার প্রকৃত সংখ্যা প্রকাশ করে দিয়েছে। কারণ শনিবার প্রতিষ্ঠানটি তাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এপিডেমিক সিচুয়েশন ট্যাকারে প্রথম যে তথ্য প্রকাশ করে সেখানে দেখা যাচ্ছে চীনের প্রকাশিত তথ্যের চেয়ে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা অনেক বেশি।

ওই লেখাতে প্রথমে বলা হয়েছিল এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত ২৪ হাজার ৫৮৯ মানুষের প্রাণ গেছে। আর এতে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৫৪ হাজার ২৩ জন। এসব সংখ্যা চীনের প্রকাশিত সংখ্যার চেয়ে অনেক বেশি। তবে প্রকাশের অল্প কিছু সময়ের মধ্যেই লেখাটি আপডেট করা হয়। আপডেটের পরে দেখা যায় চীনা সরকারের দেয়া সংখ্যা আর তাদের সংখ্যাই কোনো পার্থক্য নেই। তাইওয়ান নিউজের প্রতিবেদনে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

এর আগে এমন খবরও রটেছিল যে ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৭৯ হাজার ৮০৮। তখন চীন বলছিল যতজন আক্রান্ত সেটা ওই সংখ্যার চেয়ে চারগুণ বেশি।

এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত যতজনের মৃত্যু হয়েছে এর বেশিরভাগেরই বাস ছিল উহান ও এর আশপাশে। তবে রাজধানী বেইজিংসহ অন্যান্য অঞ্চলেও মৃত্যুর সংবাদ পাওয়া গেছে। এছাড়া করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর পর সে সংখ্যা রেকর্ডে না নিয়েই মরদেহ পুড়িয়ে ফেলা হচ্ছে বলেও খবর রটেছিল।

এছাড়া কিছু ভিডিওতে দেখা গেছে যেখানে বলা হচ্ছে উহানের হাসপাতালে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে মরদেহ। আর এই ভিডিওগুলো করেছেন উহানের হাসপাতাল স্টাফরা। সূত্র: ডেইলি মেইল

তৃতীয় শ্রম আদালতের ১৭ মামলায় ফাঁসলেন ড. ইউনূস

ডেস্ক : ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে নতুন করে ১৭টি দেওয়ানি মামলা দায়ের করেছেন গ্রামীণ টেলিকমের সাবেক ও বর্তমান কর্মীরা। গত রোববার (২ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতে ১৭টি মামলা করেন তার প্রতিষ্ঠানের বর্তমান কর্মীরা। এ নিয়ে গ্রামীণ টেলিকমের কর্মীরা ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে মোট ১০৭টি মামলা দায়ের করলেন। যার মধ্যে সাবেক কর্মীদের ১৪টি ও বর্তমান কর্মীদের ৯৩টি মামলা রয়েছে।

ড. ইউনূসকে এসব মামলায় গ্রামীণ টেলিকমের চেয়ারম্যান হিসেবে আসামি করা হয়েছে। এছাড়া গ্রামীণ টেলিকমের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হিসেবে আশরাফুল হাসানকেও এসব মামলায় আসামি করা হয়েছে।

বাদীপক্ষের আইনজীবী জাফরুল হাসান শরীফ জানিয়েছেন, রোববার (২ ফেব্রুয়ারি) শ্রম আদালতে যে ১৭টি মামলা দায়ের করা হয়েছে সেগুলোর শুনানির জন্য আদালত ২৩ মার্চ দিন ধার্য করেছেন।

অন্যদিকে ড. মোহাম্মদ ইউনূসের আইনজীবী রাজু আহম্মেদ গণমাধ্যমকে বলেছেন, ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে আরও ১৭টি মামলা হয়েছে আমরা তা শুনেছি। আইনগতভাবে আমরা এসব মামলার মোকাবিলা করব।

মামলার অভিযোগে যা আছে

বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোনে ৩৪.২০ শতাংশ শেয়ার রয়েছে গ্রামীণ টেলিকমের। প্রতিষ্ঠানটি নিজস্ব পল্লীফোন ছাড়াও নোকিয়া সার্ভিস দিয়ে থাকে। প্রতিষ্ঠানটির মুনাফা কর্মীদের মাঝে বণ্টন করে দেয়ার আইনি বাধ্যবাধকতা থাকলেও তা দেয়া হয়নি।

২০১৬ সালে সরকারের অংশ চেয়ে শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক স্বাক্ষরিত ২টি চিঠি এবং কল কারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদফতরের মহাপরিদর্শক থেকে ১টি চিঠি দিয়ে টাকা চাইলেও গ্রামীণ টেলিকম তা কর্ণপাত করেনি।

২০০৬ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত গ্রামীণ টেলিকমের মুনাফা হয়েছে ৪০৭৪ কোটি ৭৭ লাখ ৬৫ হাজার ৪০ টাকা। যার ৫ শতাংশ, অর্থাৎ ২০৪ কোটি টাকা সকল কর্মীদের মধ্যে সমানভাবে বণ্টন করে দেয়ার বিধান থাকলেও সেই টাকা কর্মীদের মাঝে পরিশোধ করা হয়নি।

নতুন ১৭ মামলার বাদী যারা

কাজী ফিরোজা সনি (মামলা নম্বর- ৫৭/২০২০), মনিরুজ্জামান টনি (মামলা নম্বর- ৫৮/২০২০), রবিউল ইসলাম (মামলা নম্বর-৫৯/২০২০), আবু নাঈম বায়েজিদ (মামলা নম্বর- ৬০/২০২০), বিল্লাল হোসেন (মামলা নম্বর- ৬১/২০২০), সাদমান সাকিব (মামলা নম্বর- ৬২/২০২০), জুনায়েদ হোসেন (মামলা নম্বর- ৬৩/২০২০), মোফাসল হক তুহিন (মামলা নম্বর-৬৪/২০২০), মাহামুদুল হাসান সুজন (মামলা নম্বর- ৬৫/২০২০), মোস্তাফিজুর রহমান মিলন (মামলা নম্বর- ৬৬/২০২০), সাদিকুর রহমান (মামলা নম্বর- ৬৭/২০২০), আমিনুল হক চৌধুরী (মামলা নম্বর- ৬৮/২০২০), সাবিনা ইয়াসমিন (মামলা নম্বর- ৬৯/২০২০), বাছির উদ্দিন (মামলা নম্বর-৭০/২০২০), রেজাউল করিম (মামলা নম্বর-৭১/২০২০), হাফিজুর রহমান (মামলা নম্বর- ৭২/২০২০) ও শরীফুল ইসলাম (মামলা নম্বর-৭৩/২০২০)।