/নাচোল রাজবাড়ী কলেজ অধ্যক্ষের স্বাক্ষর জাল করে গভণিং বডি কমিটির অনুমোদন

নাচোল রাজবাড়ী কলেজ অধ্যক্ষের স্বাক্ষর জাল করে গভণিং বডি কমিটির অনুমোদন

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  

নাচোল(চাঁপাইনবাবগঞ্জ)প্রতিনিধি : চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল রাজবাড়ী কলেজের অধ্যক্ষ মিজানুর রহমানের স্বাক্ষর জাল করে কলেজের গভণিং বডি কমিটির অনুমোদনের অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগে জানা গেছে,গত ৪ সেপ্টেম্বর ১৯ ইং নাচোল রাজবাড়ী কলেজের গভণিং বডি কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত । সেই নির্বাচনে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার দুলাল উদ্দিন খাঁন প্রিজাইডিং অফিসার হিসাবে সুষ্ঠভাবে নির্বাচন পরিচালনা করেন । উক্ত নির্বাচনে ৪ জন অবিভাবক,৩ জন শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচিত হয়। সেই মোতাবেক উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা দুলাল উদ্দিন খান নির্বাচন সংক্রান্ত যাবতীয় চুড়ান্ত তালিকা অধ্যক্ষ মিজানুর রহমানের নিকট দাখিল করেন। কিন্তু দাতা সদস্য বাদ পড়ায় উক্ত নির্বাচনের ফলাফল বেআইনি,এবং উক্ত নির্বাচিত কমিটি যাতে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড রাজশাহী কর্তৃক অনুমোদিত না হয় সেই লক্ষ্যে নাচোল বাজারপাড়া এলাকার শওকত আলীর ছেলে মশিউর রহমান বাদী হয়ে গত ২২ সেপ্টেম্বর নাচোল সহকারী জজ আদালত (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) এ চিরস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চেয়ে একটি মামলা দ্বায়ের করেন। সেই মামলার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত গত ০৭ অক্টোবর নিষেধাজ্ঞা জারি করে।
রাজবাড়ী কলেজের অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান জানান,মামলা ও নিষেধাজ্ঞার কারনে নির্বাচিত কমিটি অনুমোদনের জন্য আমি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড রাজশাহী বরাবর কোন আবেদন করিনি। কে বা কাহারা আমার স্বাক্ষর ও কাগজ পত্রাদি জাল করে ৩ অক্টোবর অত্র বোর্ডে দাখিল করে এবং গভণিং বডি অনুমোদনের সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে। ৬ অক্টোবর অনুমোদিত গভণিং বডির কপি থেকে জানতে পারি যে,গভণিং বডির সভাপতি হিসাবে সদর ইউপির সদস্য মেসবাউল হক কে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। গভণিং বডির সভাপতি মেসবাউল হক মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড রাজশাহীর চেয়ারম্যান জনাব, প্রফেসর মকবুল হোসেনের আপন ফুফাতো ভাই। তাই বিষয়টি জালিয়াতি ও যোগসাজসরূপে করা হয়েছে।
এ বিষয়ে রাজবাড়ী কলেজের সাবেক সভাপতি ও সদর ইউপির আওয়ামীলীগের সভাপতি গোলাম মোস্তফা জানান, রাজবাড়ী কলেজের অধ্যক্ষ মিজানুর রহমানের স¦াক্ষর জাল করে বোর্ডে কাগজ প্রেরন করে মেসবাউল হক। মেসবাউল হকের মামাত ভাই মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড রাজশাহীর চেয়ারম্যান জনাব, প্রফেসর মকবুল হোসেন। সেই সুবাধে মেসবাউল কমিটির অনুমোদন পেয়েছে। মেসবাউল বিএনপির একজন সক্রিয় নেতা। কমিটি বাতিলের জোর দাবি জানাচ্ছি।
এদিকে অনুমোদিত কমিটি বাতিল চেয়ে ৭ অক্টোবর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড রাজশাহী (কলেজ পরিদর্শক) বরাবর আবেদন করেছেন রাজবাড়ী কলেজের অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান